পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডাঃ দীপু মনিকে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন ডেনমার্ক বিএনপি নেতা গাজী মনির আহমেদ । হালে দলকে ব্যবহার করে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের চেষ্টা করছেন

June 7, 2011, 8:43 AM, Hits: 1717

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডাঃ দীপু মনিকে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন ডেনমার্ক বিএনপি নেতা গাজী মনির আহমেদ । হালে দলকে ব্যবহার করে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের চেষ্টা করছেন


নরওয়ে থেকে আদেল ভুইয়াঃ বিএনপিকে ব্যবহার করে দলের কেন্দ্রীয় বিভিন্ন নেতৃবৃন্দের নাম ভাঙিয়ে নানা রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে ডেনমার্ক বিএনপি নেতা গাজী মনির আহমদের বিরুদ্ধে । সেই সাথে আওয়ামী লীগের সাথে গোপন আঁতাত রেখে দলের ভাবমর্যাদা ক্ষুন্ন করছেন তিনি । এসব বিষয়ে সতর্ক থাকতে এবং এ ধরনের সুবিধাবাদী ও দ্বিমুখী চরিত্রের নেতাদেরকে কেন্দ্র থেকে কোন ধরনের সহযোগিতা না করার জন্য কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের প্রতি আহবান জানিয়েছেন, নরওয়ে বিএনপি নেতৃবৃন্দ । দলীয় চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া এবং সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট তারেক রহমানের কাছে প্রেরিত নরওয়ে বিএনপির সভাপতি বাদল ভুইয়া,সিনিয়র সহ সভাপতি মকবুল হোসাইন এবং সাধারন সম্পাদক দেলোয়ার হোসাইন স্বক্ষরিত এক লিখিত অভিযোগপত্রে তারা এ আহবান জানান।

জানা গেছে,বর্তমানে ডেনমার্ক বিএনপির সভাপতি হিসেবে পরিচয়দানকারী গাজী মনির আহমেদ ২০০৯ সালের ২৭শে এপ্রিল নরওয়েতে রাষ্ট্রীয় সফরে আসা  দিপু মনিকে ফুলের তোড়া দিয়ে অভিনন্দন জানান এবং ডেনমার্ক সফরে যাওয়ার জন্য তাকে আমন্ত্রন জানান । এ ঘটনায় ডেনমার্ক এবং নরওয়ে বিএনপি চরম অপমানবোধ করেন। তারা বিষয়টি তাৎক্ষনিকভাবে সদ্য প্রয়াত যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব কমর উদ্দিনকে টেলিফোন করে জানান।  দলীয় মান সম্মান চরম ভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে বলে জানান তারা । এ ব্যাপারে গাজী মনির আহমদের সাথে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার । বর্তমানে গাজী মনির নিজেকে ডেনমার্ক বিএনপির সভাপতি হিসেবে প্রচার করছেন এবং বিভিন্ন মিডিয়াতে নানা বিবৃতি দিয়ে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের চেষ্টা করছেন। নরওয়ে বিএনপি নেতৃবৃন্দ বলেন, এ ধরনের নামধারী বিএনপির কর্মীদেরকে নরওয়ে বিএনপির পক্ষ থেকে ঘৃনা করছি । যাদের দ্বারা দলের ও দেশের বড় ধরনের ক্ষতি হচ্ছে, তাদেরকে দল থেকে দূরে রাখা দরকার ।

জানা গেছে, গাজী মনির দলের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের নামেও নানা ধরনের কথা বলে বেড়ান । চলতি বছরের ৯ জানুয়ারী নরওয়ে বিএনপির সভাপতি বাদল ভূইয়ার কাছে টেলিফোন করে বলেন, আমি দেশে যাচ্ছি আমার কমিটি অনুমোদন করাতে । এতে কেন্দ্রীয় বিভিন্ন নেতাকে ৫ লাখ টাকা দিতে হয়েছে । এভাবে গাজী মনির প্রবাসে বসে দলের নেতাদের নামে কুৎসা রটাতে দ্বিধাবোধ করছে না । তিনি ডেনমার্ক বিএনপিতে দলীয় কোন্দল সৃষ্টি করে সেখানে দলকে দ্বিধাবিভক্ত করেছেন। বর্তমানে একটি ক্ষুদ্র অংশের নেতৃত্ব দিচ্ছেন তিনি। মিডিয়াতে নিজেকে সভাপতি হিসেবে উল্লেখ করে নানা বিবৃতি দিয়ে দলের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের সহানুভূতি ও দৃষ্টি কাড়ার চেষ্টা করছেন। এ ধরনের সুবিধাবাদী নামধারী ও কোন্দল সৃষ্টিকারী লোকদেরকে দল থেকে কোন ধরনের সহযোগিতা না করার জন্য তারা আহবান জানান । তা না হলে প্রবাসে দলের ইমেজ মারাত্নকভাবে ক্ষুন্ন হবে বলে তারা আশংকা করছেন।

 
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ