বাংলাদেশী অভিবাসীরা যুক্তরাষ্ট্রের গর্বিত অংশীদার - সিনেটর ম্যানডেজ

July 3, 2011, 9:19 AM, Hits: 1962

বাংলাদেশী অভিবাসীরা যুক্তরাষ্ট্রের গর্বিত অংশীদার - সিনেটর ম্যানডেজ


নিউজ ওয়ার্ল্ড নিউইয়র্ক থেকে : যুক্তরাষ্ট্রে ত্রিধাবিভক্ত ফোবানা সম্মেলন গতকাল শুক্রবার শুরু হয়েছে। নিউজার্সি ও ওয়াশিংটনের উপকণ্ঠে পৃথক তিন ফোবানার মঞ্চ থেকে সবাই ঐক্যের আহ্বান জানিয়েছেন।


অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সিনেটর ম্যানডেজ বলেন, মানবাধিকারকে যেভাবেই হোক আমাদের সমুন্নত রাখতে হবে। এ ক্ষেত্রে লিবিয়ায় বাংলাদেশীরা যেভাবে অত্যাচার নির্যাতনের শিকার হয়েছেন তাকে মানবাধিকারের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন বলে মন্তব্য করেন তিনি।


সিনেটর ম্যানডেজ বলেন, আমেরিকার ইতিহাসের গর্বিত অংশীদার হচ্ছে বাংলাদেশী অভিবাসীরা। অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই যে আমেরিকান উন্নয়নে তাদের রয়েছে গর্ব করার মতো অবদান।
নিউজার্সি ফোবানায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নিউজার্সি সিনেটর রবার্ট ম্যানডেজ, কংগ্রেসম্যান হ্যানসেন ক্লার্ক, ড. জাফর ইকবাল, জাতিসঙ্ঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ড. এম আব্দুল মোমেন, সাবেক আমেরিকান রাষ্ট্রদূত উসমান সিদ্দিক, নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কন্সাল জেনারেল শাব্বির আহমেদ চৌধুরী, অধ্যাপক মমতাজ উদ্দীন আহমেদ, ড. নুরুন্নবী, ফোবানার সদস্য সচিব নাহিদ চৌধুরী মামুন, ফোবানার কনভেনার মীর চৌধুরী, চেয়ারম্যান রেহান রেজা প্রমুখ।


তিনি বলেন, আমাদের সামনে হাজারো চ্যালেঞ্জ। ঐকবদ্ধভাবে এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে। এ জন্য তিনি সব বাংলাদেশীকে মূলধারায় আরো ঘনিষ্ঠ হওয়ার আহ্বান জানান।
কংগ্রেসম্যান হ্যানসেন ক্লার্ক বলেন, আমার রক্তে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ হচ্ছে আমাদের অস্তিত্ব। সুতরাং বাংলাদেশীদের স্বার্থে আমাদের সবাইকে কাজ করতে হবে।


ড. আব্দুল মোমেন বলেন, যে লক্ষ্যকে সামনে নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ফোবানা সেই ইতিহাসের অংশীদার আমি নিজেও। কমিউনিটিকে ঐক্যবদ্ধ করতে না পারলে এর চেতনা ধ্বংস হয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।


ড. জাফর ইকবাল বলেন, ফোবানা হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশীদের গর্বিত ইতিহাসের অংশ এবং এই ধারাকে অব্যাহত রাখতে হবে।


এ দিকে ওয়াশিংটন ডিসির ক্রিস্টাল সিটিতে পাশাপাশি দুই ফোবান অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে হোটেল হিলটনের সম্মেলনে জনসমাবেশ বেশি হয়েছে এবং পাশের মেরিয়ট হোটেলে অনুষ্ঠিত সমাবেশে তেমন লোকসমাগম হয়নি বলে জানা গেছে।

 


 
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ