প্যারিসস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে আওয়ামী প্রীতি!

July 18, 2011, 11:22 AM, Hits: 1665

প্যারিসস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে আওয়ামী প্রীতি!


‘আওয়ামী লীগের লোকজন আইছে কি, কোন ধরনের নেতা আইছে দেখ। উনারা আসলে অনুষ্ঠান শুরু করো।‘ এভাবেই আওয়ামী নেতাদের খোজ করে বিশ্ব কবি রবীন্দ্র নাথ ঠাকুর ও বাংলাদেশের জাতীয় কবি কাজী  নজরুল ইসলামের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে প্যারিসস্থ বাংলাদেশ দুতাবাস আয়োজিত অনুষ্ঠানের শুরু করতে বললেন রাষ্ট্রদুত এনামুল করিম।অনুষ্ঠানটি প্যারিসে অবস্থিত বাংলাদেশীদের জন্য হলেও আলোচনা সভায় আওয়ামী লীগের মাত্র জনাকয়েক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

শনিবার যখন ইউরোপের প্রায় দেশে পবিত্র শব ঈ বরাত পালিত হচ্ছে ঠিক সেই দিনই বিশ্ব কবি রবীন্দ্র নাথ ঠাকুরের সার্ধশত ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১২ তম জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠান পালিত হলো প্যারিসের কুটনৈতিক পাড়া হেনরী মাতায় অবস্থিত বাংলাদেশ দুতাবাসের নতুন ভবনে।

রাষ্ট্রদুত এনামুল কবিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ প্যারিস শাখার সহ সভাপতি ওয়াহেদ তাহের ও প্যারিস আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আবুল কাশেম উপস্থিত ছিলেন। দুতাবাসের কাউন্সিলর ওয়ালিউর রহমানের উপস্থাপনায় জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে প্রথমে কোরআন তেলাওয়াত ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। রাষ্ট্রদুতের ছেলে স্কুল ফাইনাল পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হওয়ায় তার ভবিষ্যত সাফল্যের জন্য বিশেষ দোয়া করা হয়।

পরবর্তীতে বিশ্বকবি ও জাতীয় কবির উপর আলোচনায় অংশ নেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। আলোচনা সভায় বক্তারা বাঙ্গালী জাতির বিভিন্ন আন্দোলন ও সংগ্রামে এই দুই কবির রচনার অনুপ্রেরনার কথা উল্লেখ করেন।

বক্তাদের মাঝে অনেকে দুতাবাসের কতিপয় দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তার সহায়তায় ভারতীয় নাগরিকদের বাংলাদেশী পাসপোর্ট দেয়ার অভিযোগ করলে রাষ্ট্রদুত জানান অভিযোগ অনেক আসে। এর পর তা বাংলাদেশ থেকে তদন্ত করা হলে দীর্ঘ সুত্রীতার কারনে অনেক সময় প্রতিবেদন আসে না। এ কারনে ব্যবস্থা নেয়া সম্ভব হয় না বলে জানান তিনি।

ফ্রান্সে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন আর্ন্তজাতিক প্রদর্শনীতে বাংলাদেশের কোন স্টল থাকে না কেন এমন এক প্রশ্নের জবাবে রাষ্ট্রদুত বলেন, আমরা বানিজ্য মন্ত্রনালয়ে মেলার খবর পাঠালেও সেখান থেকে রপ্তানী উন্নয়ন ব্যুরো হয়ে কোন কাগজ ফিরে আসতে আসতে মেলার সময় শেষ হয়ে যায়। এ কারনে আমলাতান্ত্রিক জটিলতা দায়ী বলে তিনি মনে করেন।

শব ঈ বরাতের মতো পবিত্র দিনে কেন এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হলো এ প্রশ্নের জবাবে রাষ্ট্রদুত কোন মন্তব্য করেন নি।

আলোচনা সভার পর স্থানীয় উদিচী শিল্পী গোষ্ঠীর সদস্যরা রবীন্দ্র ও নজরুল সংগীত পরিবেশন করেন।

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ