হার্ভার্ডে বাংলাদেশের ব্যাংকিং এবং টেকসই উন্নয়ন নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

April 20, 2016, 4:14 AM, Hits: 3486

হার্ভার্ডে বাংলাদেশের ব্যাংকিং এবং টেকসই উন্নয়ন নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

 বস্টন থেকে : যুক্তরাষ্ট্রের হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে শুক্রবার বাংলাদেশের ব্যাংকিং, ফাইন্যান্স এবং টেকসই উন্নয়নের আলোকে দিনব্যাপী এক আন্তর্জাতিক সম্মেলন আয়োজিত হয়। হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট কনফারেন্স-২০১৬ এর সাংগঠনিক কমিটির সহায়তায় এই সম্মেলনে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক এবং ব্যাংকিং সেক্টরের নানা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে পাঁচটি সেশণে একাডেমিক আলোচনা করা হয় এবং এই সেক্টরের সাফল্য ও অগ্রগতি, বিদ্যমান সমস্যা সমাধান ও টেকসই উন্নয়ন নিয়ে পথ নির্দেশনা দেওয়া হয়। বস্টন ভিত্তীক অলাভজনক থিঙ্কট্যাংক ‘ইন্টারন্যাশনাল সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট ইন্সটিটিউট’ এবং হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির ছাত্র ও গবেষকদের যৌথ উদ্যোগে অনুষ্ঠিত এই সম্মেলনে দেড় শতাধিক শিক্ষাবিদ, গবেষক এবং সংশ্লিষ্ট সেক্টরের বিশেষজ্ঞরা অংশগ্রহণ করেন।
 
সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ন্যাশনাল ডেপুটি ডিরেক্টর এলবার্ট শেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান, সরকারী হিসাব সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি এবং ফারমারস ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান ড. মহিউদ্দীন খান আলমগীর, হার্ভার্ড ল’ স্কুলের ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট এবং পাবলিক ইন্টারেস্ট এডভাইজার জিনি গ্রাইম্যান, এবং হার্ভার্ড বিজনেস স্কুলের ব্যবসা সম্পর্কিত অধ্যাপক ড. নিয়েন হি শি।এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন স্টেটের বিশ্ববিদ্যালয়ের এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকবৃন্দ গবেষণামূলক প্রবন্ধ ও বক্তব্য উপস্থাপন করেন এবং মতামত প্রদান করেন। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক এবং ব্যাংকিং সেক্টরের চলমান অগ্রযাত্রা, বাংলাদেশের ঊন্নয়নে এর প্রভাব, বিনিয়োগ ও ব্যাঙ্কিং শিল্পের এগিয়ে যাবার ক্ষেত্রে উৎসাহ প্রদান এবং এই খাতের উন্নয়নে বিভিন্ন দিকনির্দেশনামূলক আলোচনা হয় ।


এ সম্মেলনে সমস্যা ও উত্তরণের উপায় নিয়েও বিস্তারিত আলোচনা হয় এবং অতি সম্প্রতি বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের রিজার্ভ থেকে ৮১ মিলিয়ন ডলার সরিয়ে নেয়ার মত উদ্বেগজনক অপরাধ প্রসঙ্গও স্থান পায়। সাইবার ক্রাইম রোধ অথবা দমনে কী পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত তা নিয়ে আলোচনা করেন সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ, সাইবার অপরাধ আইনজীবী এবং আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞ ও শিক্ষাবিদরা। বিশেষজ্ঞদের আলোচনায় উঠে আসে উন্নত বিশ্বে সাইবার অপরাধ ও চুরি নিয়মিত ঘটলেও বাংলাদেশের মত উন্নয়ন সাফল্য লাভকারী দেশগুলো এখন সাইবার অপরাধীদের নিশানায় পরিণত হচ্ছে এবং এর প্রতিরোধে ব্যাঙ্কসহ গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানগুলোতে দক্ষ আইটি নিরাপত্তা কর্মী এবং দক্ষ ম্যানেজমেন্ট টীম গড়ে তোলা দরকার।


নিয়মিত সাইবার নিরাপত্তা প্রশিক্ষণ, গবেষণা এবং সরকারী সহায়তায় সাইবার অপরাধ ও চুরির মত ঘটনা প্রতিরোধ সম্ভব এবং ডিজিটাল লেন-দেন ও ই- কমার্সের পরিধী বাড়ানো যায় বলে তাঁরা মত দেন। বাংলদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের রিজার্ভ সরানোর দায় হ্যাকারদের সাথে সাথে সুইফটসহ প্রযুক্তি সহায়তাকারী প্রতিষ্ঠান এবং যুক্তরাষ্ট্র, ফিলিপিন্স, ও চীনের ব্যাঙ্কগুলো তথা সেদেশের সরকারগুলোর দায়িত্ব রয়েছে বলে বিশেষজ্ঞ এবং শিক্ষাবিদরা মত ব্যক্ত করেন।


 
সম্মেলনের সমন্বয়কারী ‘ইন্টারন্যাশনাল সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট ইন্সটিটিউট’র নির্বাহী পরিচালক ইকবাল ইউসুফ জানান, ‘বিষয়ভিত্তিক সেমিনারসমূহে মূলত বাংলাদেশের এগিয়ে চলার ক্ষেত্রে উৎসাহ প্রদানের বিষয়াবলী প্রাধান্য পায়’। তিনি আরো জানান, বস্টনভিত্তিক এই অলাভজনক থিঙ্ক ট্যাঙ্কের উদ্যোগে ২০১১ সাল থেকে প্রতি বছরই বাংলদেশ তথা দক্ষিণ এশিয়ার সাথে যুক্তরাষ্ট্র তথা উন্নত বিশ্বের ব্যবসা-বানিজ্য, তথ্য-প্রযুক্তি, পরিবেশ, জলবায়ু পরিবর্তন এবং টেকসই উন্নয়ন পরিক্রমা নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্মেলন হয়ে আসছে।


এ বছরের আগস্টে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক সম্পর্কিত সম্মেলন হবে হার্ভার্ডে এবং নভেম্বরে আইটি সম্পর্কিত আরেকটি সম্মেলন হবে এমআইটিতে এবং সেগুলোতেও বাংলাদেশের উন্নয়ন-অগ্রগতি প্রাধান্য পাবে বলে তিনি জানান।

 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ