ভিকারুননিসা নূন ছাত্রীদের ছবি দিয়ে পর্নো ভিডিও ছাড়ার হুমকি

July 24, 2011, 2:42 PM, Hits: 2192

ভিকারুননিসা নূন ছাত্রীদের ছবি দিয়ে পর্নো ভিডিও ছাড়ার হুমকি


হিউদ্দিন মাহী : ঢাকা থেকে : ছাত্রী নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেপ্তার শিক্ষক পরিমল জয়ধরের দৃষ্টান্তমূলক বিচারসহ সাতদফা দাবিতে এবার ডিজিটাল আন্দোলন বেছে নিয়েছে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্রীরা। ফেইসবুক, ব্লগ, ই-মেইল ও ইউটিউবের মাধ্যমে ছাত্রীরা তুলে ধরছে তাদের দাবি। এছাড়াও ছাত্রীদের অভিযোগ, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার পরিচয় দিয়ে হুমকি দেয়া হচ্ছে প্রতিষ্ঠানটির সাবেক ছাত্রীদের ছবি দিয়ে পর্নো ভিডিও তৈরি করে, তা ইন্টারনেটে ছাড়া হবে।

ইতিমধ্যে ইউটিউবে ছাত্রীরা নিজেদের দাবি সম্বলিত কয়েকটি ভিডিও ক্লিপ আপলোড করেছে। এতে বলা হয়েছে, আন্দোলনের যৌক্তিকতা এবং আন্দোলনের বিপক্ষে অংশ নেয়াদের নেপথ্য কাহিনী। ছাত্রীদের দাবি, এ আন্দোলনে কোনো রাজনৈতিক রং নেই। কিন্তু একটি মহল এ আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে রাজনৈতিক তকমা লাগাচ্ছে।

‘ভিকিস স্পিক আপলোড, ইউ উইল নেভার কুয়িট’ নামের ২ মিনিট ২২ সেকেন্ডের এই ভিডিওতে আরও বলা হয়েছে থানা থেকে ওসি পরিচয়ে আন্দোলনরত ছাত্রীদের ফোন দিয়ে বলা হয়েছে, তোমরা আন্দোলন থেকে সরে যাও, অন্যথায় তোমাদের ছবি দিয়ে পর্নো ভিডিও তৈরি করে ইন্টারনেট ও মোবাইল ফোনে ছেড়ে দেয়া হবে। মিডিয়াতে ভিকারুননিসা স্কুল বিষয়ক কোনও রিপোর্ট প্রকাশ হবে না। এমনকি এ বিষয়ে সরকারি নিষেধাজ্ঞা রয়েছে বলেও উল্লেখ করা হয়।

এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানটির কয়েক ছাত্রী জানান, অধ্যক্ষ হোসনে আরা যৌননির্যাতনের বিষয়টিকে মিউচুয়াল সেক্স বলে এড়িয়ে যাবার চেষ্টা করেছেন। তার কারণেই ছাত্রী নিপীড়নের আলামত নষ্ট হয়ে যায়। সুবিচার পাবার নিশ্চয়তায় তারা হোসনে আরার স্থায়ী অপসারণ চাইছেন। ছাত্রীরা বলেন, তিনমাস পর তিনি যদি এ স্কুলে পুনরায় যোগ দেন, তাহলে বিদ্যালয়টিতে আবারও অচলাবস্থা সৃষ্টি হবে। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের কাছে ছাত্রীরা হোসনে আরার পুরোপুরি অপসারণ দাবি করেছে।

প্রতিষ্ঠানটির ভেঙ্গে দেয়া গভর্নিং বডির সভাপতি রাশেদ খান মেননের উদ্দেশে বলা হয়, ‘আপনি এখন আমেরিকায় মেয়ের কাছে অবস্থান করছেন। নির্যাতিত ছাত্রীটি যদি আপনার মেয়ে হত, আপনি কী পারতেন বিদেশে লেজ গুটিয়ে বসে থাকতে’। ছাত্রীরা জানান, নিপীড়কের বিরুদ্ধে ভিকিদের এ আন্দোলন একার নয়। এ আন্দোলন আজ পুরো দেশবাসীর। আমাদের দেশকে আমরা অন্যায়ভাবে ধর্ষিত হতে দেব না। বিকল্প মিডিয়াতে (ব্লগ, ফেইসবুক, ইউটিউব) আমাদের আন্দোলন চলতে থাকবে।



 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ