খাবার নিয়ে প্রচলিত কিছু ভুল ধারণা

July 27, 2016, 9:00 PM, Hits: 1866

খাবার নিয়ে প্রচলিত কিছু ভুল ধারণা

-বাংলা নিউজসুস্থ সুন্দরভাবে বেঁচে থাকার জন্য সঠিক খাদ্য গ্রহণ করতে হবে। কিন্তু আমাদের পিছিয়ে থাকা সমাজে কুসংস্কারের অভাব নেই। এমনকী খাবারের ক্ষেত্রেও কুসংস্কারের বাহুল্য বিদ্যমান। এই একুশ শতকে এসেও যদি এসব কুসংস্কার নিয়ে বসে থাকেন তবে দিনে দিনে আরও পিছিয়ে পড়ব আমরা। জেনে নিন খাবার সম্পর্কে প্রচলিত এমন কিছু ধারণা যা আসলে সত্য নয় :

০১. বলা হয়, অন্যান্য ফ্রুট ড্রিঙ্কসের থেকে ঠান্ডা পানীয়তে নাকি বেশি সুগার থাকে। কিন্তু আসলে এটা সত্যি নয়।

০২. অনেক সময় কিডনির ক্ষতি হবে এই ধারণায় বেশি প্রোটিন খেতে নিষেধ করা হয়।

কিন্তু, সত্যি যদি আপনার কিডনির কোনও সমস্যা আগে থেকেই থাকে, তা হলেই অধিক প্রোটিনে সমস্যা হয়। নাহলে নয়।

০৩. কাঁচা সব্জি নাকি রান্না করা আর সেদ্ধ সব্জির চেয়ে বেশি পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ। কিন্তু কাঁচা সব্জি হজমে সমস্যা করে। তা ছাড়া রান্নার ফলে সব্জির মধ্যের ক্ষতিকর পদার্থগুলোও নষ্ট হয়ে যায়। যা কাঁচা সব্জিতে হয় না।

০৪. বলা হয়, মাইক্রোওয়েভের খাবারে পুষ্টিগুণ কমে যায়। আসলে মাইক্রোওয়েভে রান্না করা খাবারে ভিটামিন আর মিনারেল নষ্ট হয় না।

০৫. অনেকেই মনে করেন, ব্রাউন ডিমের পুষ্টিগুণ বেশি। আসলে সাদা হোক বা বাদামি-সমস্ত ডিমেই পুষ্টির পরিমাণ একই থাকে।

০৬. একটা প্রচলিত ধারণা আছে, সারাদিনে নাকি ৮ গ্লাস জল খেতেই হয়। কিন্তু জলের চাহিদা প্রত্যেকের শরীরের ওপর নির্ভর করে। জলের চাহিদা প্রত্যেকের শরীরেই আলাদা আলাদা হয়।

০৭. অনেকেই বলেন প্রেগন্যান্ট মহিলাদের কফি খাওয়া উচিত নয়। কিন্তু দেখা গেছে প্রতিদিন ১-২ কাপ অর্থাৎ ২০০ মিলিগ্রাম কফি কোনও রকম ক্ষতি করে না।

০৮. প্রচলিত ধারণা আছে ডার্ক চকোলেট খেলে নাকি ওজন কমে। ডার্ক চকোলেটে ভিটামিন, মিনারেল এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্ট থাকলেও তার ওজন কমানোর কোনও প্রমাণ এখনও পাওয়া যায়নি। 

 
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ