বিজয় বহরের নেতৃত্বে কারা ?

December 4, 2016, 7:28 PM, Hits: 3873

বিজয় বহরের নেতৃত্বে কারা ?

-বাংলা নিউজ : হলিউড থেকে : গত ২০১০ সন থেকে বাংলাদেশের বিজয় দিবস উপলক্ষে লসএঞ্জেলেস প্রবাসীরা বিজয় বহর পালন করে আসছে ৷ দীর্ঘ নয় মাসের রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের মাধ্যমে আমাদের অর্জিত স্বাধীনতার জন্য ত্যাগ করতে হয়েছে ত্রিশ লক্ষ শহীদের রক্ত আর দুই লক্ষ মা বোনের ইজ্জত !

অনেক দাম দিয়ে কেনা এই বিজয় আমাদের অহংকার ৷ কিন্তু দুর্ভাগ্য বিজয়ের এই উৎসবটি নিয়ন্ত্রণ করছে মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী কমিউনিটিতে পরিচিত কিছু ক্লাউন এবং দুর্বৃত্ত দ্বারা ৷
বিজয় বহরের আহ্ববায়ক আবু হানিফা যুদ্ধপরাধী কামারুজ্জানের সম্বর্ধনা প্রদানকারী ৷ চেতনাহীন এই আবু হানিফ প্রবাস জীবনে প্রথম দিকে ছিল লসএঞ্জেলেসের বিএনপির এক অর্থদাতার ধামাধরা ৷ তারই হাত ধরে কিছু পয়সা ইনকাম করে এখন কমিউনিটির নেতা হতে চাই ৷


এই বিজয় বহরে আরো রয়েছে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী খুনি মহিউদ্দিনের আশ্রয়দাতা মুজিব সিদ্দিকী ৷ শিক্ষিত এই নাম ধারী কমিউনিটিকে ব্যবহার করে দীর্ঘদিন ধরে নিজের আখের গোছানো ব্যবসায়ে লিপ্ত ৷ ড: ইউনুসকে সম্বর্ধনার নাম করে সে একবার বড় ধরণের ব্যবসা করে নিয়েছে ৷ যেটা কমিউনিটি নেতারা ড: ইউনূসের ভাইয়ের মাধ্যমে ড:ইউনুসকে জানিয়ে দেন ৷ মানবতা বিরোধী অপরাধীদের বিচারের বিরুদ্ধে সে জনমত গড়ে তোলার আন্দোলনের সাথে ছিল ৷
তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও রয়েছে অনেক মুখরোচক গল্প !
সর্বশেষ ব্যক্তি হলো মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন ৷ কে এই ইসমাইল ? মার্কিন প্রশাসনের কাছে সে একজন তালিকাভুক্ত অপরাধী ৷ তিন বছর জেল খেটে বর্তমানে নজরবন্দি রয়েছেন ৷ তার শরীরে ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস বসিয়েছে কর্তৃপক্ষ ৷ এই প্রমাণিত প্রতারক কমিউনিটির মানুষের সাথেও প্রতারণা করেছে ৷
মুজিব সিদ্দিকী এবং ইসমাইল মিলে বিজয় বহরকে সামনে রেখে আদম ব্যবসার চেষ্টায় লিপ্ত ৷ এরই অংশ হিসাবে বর্তমানে ইসমাইল বাংলাদেশে অবস্থান করছে ৷ এই
চক্র বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর ছবি ব্যবহার করে অনুষ্ঠানের গুরুত্ব বাড়িয়ে ব্যবসার ফন্দি এটেছিল ৷ কিন্তু স্থানীয় আওয়ামিলীগের চাপের মুখে সে চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে ৷ সিটি কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে রাস্তা এবং স্যাটো সেন্টার ফ্রি পাবার পরও তারা কমিউনিটি থেকে বড় একটা চাঁদা উঠায় যার কোনো হিসাব তারা কখনো উপস্থাপন করেনা ৷
সামগ্রিক বিবেচনায় এ ব্যাপারে কমিউনিটির মাঝে ক্ষোভও আছে ৷ যার বহিঃপ্রকাশ হয়েছে কারো কারো ফেসবুক পোস্টে ৷ 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ