প্রত্যাশা ও নিয়তির বিধান

May 27, 2017, 6:20 PM, Hits: 1932

প্রত্যাশা ও নিয়তির বিধান

আমার প্রবাসজীবন প্রায় দেড় যুগের বেশি। প্রবাসে জীবন ধারণের পথ চলায় বাঙালি ও বাংলাদেশের সুনাম ও ভাবমূর্তি নষ্ট করার ক্ষেত্রে আমাদের কৃতকর্ম কোনো অংশেই কম নয়। প্রবাসে বাঙালিদের ওঠাবসা, আড্ডা অথবা বন্ধুত্বের মাঝে দুটি বিষয় বিশেষভাবে লক্ষণীয়। এক. নিঃস্বার্থ বন্ধুত্ব (ফ্রেন্ডলি রিলেশনশিপ)। দুই. স্বার্থযুক্ত বাণিজ্যিক সম্পর্ক (কমার্শিয়াল ফ্রেন্ডলি রিলেশনশিপ)। এই দুইয়ের আবর্তে প্রবাসী বাঙালি কমিউনিটি ঘূর্ণমান।

প্রথম সম্পর্ক সব সময় বাঙালি কমিউনিটিকে শক্ত কাঠামো দিয়ে নিজ দেশীয় সুনাম বর্ধিত করে বলেই বিশ্বাস করি।

দ্বিতীয় সম্পর্কে শুধুই স্বার্থ জড়িত। আর এই স্বার্থ চরিতার্থ করতে গিয়ে অনেক ক্ষেত্রেই নিজের ও দেশের সুনাম বিনষ্ট হচ্ছে। এটা বোধ হয় আমরা সবাই জানি। আর এটা যে ক্ষণস্থায়ী সম্পর্ক সেটাও অজানা নয়। তবুও আমরা কেউ কেউ এই সম্পর্ক করতে বেশি আগ্রহী। এই বাণিজ্যিক বন্ধুত্বে হয়তো ক্ষুদ্র আর্থিক বেনিফিট হয়। কিন্তু তাও ক্ষণস্থায়ী। আবার ক্ষুদ্র আদর্শকে প্রাধান্য দিয়ে যে স্বার্থযুক্ত বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে তাও দীর্ঘস্থায়ী হয় বলে মনে হয় না।

বাঙালি ও বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নষ্টের বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই স্বার্থযুক্ত সম্পর্কই অন্যতম কারণ। এর সঙ্গে আরও আছে প্রবাসে বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ রাজনীতির চর্চা। বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের সুনাম নষ্টের জন্য এটা আরও একটি অন্যতম কারণ।

কবে যে স্বার্থমুক্ত আন্তরিকতার ছত্রচ্ছায়ায় আমরা প্রবাসীরা শক্ত কাঠামোতে বাঙালি কমিউনিটি গড়ে তুলে দেশের সুনাম ও ভাবমূর্তি বৃদ্ধি করে দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখব? এ প্রত্যাশায় আমাদের দিন গণনা যেন আজ নিয়তির বিধানে পরিণত। 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ