উৎসব সর্বজনীন

June 11, 2017, 2:20 AM, Hits: 1326

উৎসব সর্বজনীন

পলাশ কামালী, হেলসিংকি (ফিনল্যান্ড) থেকে : আমাদের ভাষা-সংস্কৃতি গৌরবের। বাঙালির সাংস্কৃতিক বিনোদন ও ধর্মীয় উৎসবগুলো বহুলাংশেই সর্বজনীন। প্রবাসজীবনে আমরা বাঙালিরা নিজস্ব সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগের ক্ষেত্রে যথারীতি সর্বদাই উদ্‌গ্রীব। তবে আমাদের নিজেদের গতানুগতিক দলাদলি, ব্যক্তিকেন্দ্রিক পছন্দ-অপছন্দ ইত্যাদি কারণে (যেটা আসলেই অপ্রত্যাশিত) সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানগুলো সর্বজনীন উৎসবের রূপ পেতে কিছু কিছু ক্ষেত্রে ব্যর্থ হয়।

লেখক

এই কিছুদিন আগে বাংলা নতুন বছরের বৈশাখী উৎসব ফিনল্যান্ডের হেলসিংকিতে আমরা খণ্ডিত হয়ে চারটি ভাগে পালন করলাম। যেটা কাম্য ছিল না। যদিও চাইনিজ সংস্কৃতির একক উৎসব চীনা নববর্ষ হেলসিংকিতে সর্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছিল। ফিনল্যান্ডের মূল মিডিয়াগুলোতেও এই উৎসবের খবর প্রচারিত হয়েছে।

বাঙালি কমিউনিটির আমরাও সবাই মিলে বৈশাখী মঙ্গল শোভাযাত্রার আয়োজন করে হেলসিংকিতে বাংলা নববর্ষ সর্বজনীন উৎসবে পরিণত করতে পারতাম। ভবিষ্যতে সকল ক্ষুদ্র স্বার্থের ঊর্ধ্বে উঠে সর্বজনীন বৈশাখী অনুষ্ঠান এই প্রবাসে আমরা যাতে প্রদর্শন করতে পারি, এই প্রত্যাশা রইল। বাঙালির সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও উৎসবগুলো সর্বজনীন হয়ে দলাদলি-পছন্দ অপছন্দ ইত্যাদি সবকিছুর ঊর্ধ্বে থাকুক সেটাই প্রত্যাশা।

আগত ঈদ উৎসব যে আমাদের কাছে কাঙ্ক্ষিত একটা বড় উৎসব সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না। ঈদ যদিও ধর্মীয় উৎসব, কিন্তু ‘ধর্ম যার যার উৎসব সবার’ এটা যে আমরা মনেপ্রাণে বিশ্বাস করি। উসিমাতে (helsinki, espoo, vantaa) আমরা যদি একটা ঈদের বড় জামাত একই জায়গায় অনুষ্ঠিত করতে পারি বা আদায় করতে পারি সেটা বাঙালি কমিউনিটির জন্য একতার বহিঃপ্রকাশ ও উৎসবে পরিণত হবে, সেটা বলাই বাহুল্য। কিছুদিন আগেও আমরা বাঙালি কমিউনিটি একটি ঈদের জামাত করতাম। এখন কেন অসম্ভব? একটু ক্ষুদ্র স্বার্থ বর্জনই কি যথেষ্ট নয়।

ঈদ উৎসবও ফিনল্যান্ডে বাঙালির সর্বজনীন উৎসবে পরিণত হবে, এটাই প্রত্যাশা!

 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ