লংবীচ কাইট ফেষ্টিভ্যাল'২০১৭ অায়োজিত।। আত্মতৃপ্তি নিয়ে বাড়ী ফেরা

September 19, 2017, 11:14 PM, Hits: 285

লংবীচ কাইট ফেষ্টিভ্যাল'২০১৭ অায়োজিত।। আত্মতৃপ্তি নিয়ে বাড়ী ফেরা

হ-বাংলা নিউজ, হলিউড থেকে: সাড়া পৃথিবীতে বাঙ্গালী জাতী যেন তার ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির চাদর দিয়ে নিজেদের মর্যাদায় টিকে আছে। বিদেশের মাটিতেও তারা তাদের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য ভুলেনি। তাইতো প্রতি বছরই লস্ এঞ্জেলেসের প্রবাসী বাঙ্গালীরাও মেতে উঠে নিজেদের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য নিয়ে। পালন করে বিভিন্ন উৎসবগুলো।

এমনিভাবে গত ১৭ই সেপ্টেম্বর রোজ রবিবার প্রশান্ত মহাসাগরের তীরে লংবীচে অনুষ্ঠিত হয় ’লংবীচ কাইট ফেষ্টিভ্যাল’২০১৭। লংবীচ কাইট ফেষ্টিভ্যালের প্রধান উপদেষ্ঠামন্ডলী, কমিটি সদস্যদের পরিশ্রমে প্রবাসী বাঙ্গালীদের এ মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়। 

দুপুর হতেই ছোট ছোট ছেলে-মেয়ে থেকে শুরু করে সকল বয়সী পুরুশ-মহিলাদের পদচারণায় মুখরিত হতে থাকে লংবীচটি। দুপুর আড়াইটা থেকে তিনটার মধ্যে লাঞ্চপর্ব সেড়ে ফেলা হয়। এরপরই শুরু হয় ছোট ছোট ছেলে-মেয়েদের নিয়ে বিভিন্ন আকর্ষনীয় প্রতিযোগিতা ও খেলাধুলা পর্ব।

প্রথমেই ঘুড়ি চিত্রাংকন প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়। চিত্রাংকন প্রতিযোগীতায় ১ম স্থান অধিকার করে সামিয়া, ২য়-তানু এবং ৩য় স্থান অধিকার করে এঞ্জেলি।

এরপর দড়ি জাম্প প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়। অনূর্ধ ১০ ও এর উপরে দুই ভাগে প্রতিযোগীতা হয়। অনূর্ধ ১০ এ দড়ি জাম্প প্রতিযোগিতায় ১ম স্থান অধিকার করে সারা, ২য় সাফিয়া 

এবং ৩য় স্থান অধিকার করে তানিফা। এরপর দড়ি জাম্প প্রতিযোগীতায় ১০ বছরের উপরে ১ম স্থান অধিকার করে আখিঁ, ২য়-উর্মি এবং ৩য় স্থান অধিকার করে ফাতেমা।

মিউজিক্যাল পিলো প্রতিযোগীতা ছিলো বেশ আকর্ষনীয়! অনূর্ধ ১৮ বছরের ছেলে-মেয়ে প্রতিযোগীদের মধ্যে ১ম স্থান অধিকার করে মালেকা, ২য়- নিহাল এবং ৩য় স্থান অধিকার করে

 হৃদয়। এবং ১৮ বছরের উপরের (ভাবীদের মধ্যে) প্রতিযোগীতায় ১ম স্থান অধিকার করেন মুন্নি, ২য়- তানিয়া এবং ৩য় স্থান অধিকার করে শাখিঁ। প্রত্যকটি প্রতিযোগীতায় ১ম,২য় ও ৩য় স্থান অধিকারকারীদের মাঝে ’লংবীচ কাইট ফেষ্টিভ্যাল কমিটি’র পক্ষ থেকে পুরস্কার বিতরন করা হয়।

এছাড়া অনুষ্ঠানের মূল আকর্ষন ছিলো ঘুড়ি উড়ানো। ছোট বড় সকলেই যেন প্রশান্ত মহাসাগরের আকাশ ছুঁতে চায়। ঘুড়ির কাটাকাটি আর সকলের হর্ষধ্বনিতে পরিবেশ যেন সকলকে অভিভুত করে তোলে। ছোটদের তুলনায় মহিলাদের ঘুড়ি উড়ানোয় বেশ দক্ষতার পরিচয় দেয় যা উপস্থিত সকলকে অবাক করে। এমনকি সন্ধ্যা হয়ে যাওয়ার পরও ঘুড়ি উড়াতে দেখা যায়। 

উল্লেখ্য, প্রতিবছর ’লংবীচ কাইট ফেষ্টিভ্যাল’ আগষ্ট মাসে অনুষ্ঠিত হয়। এবছরই এর ব্যাতিক্রম ঘটে। একই সময়ে লংবীচে স্যান্ড ক্যাসেল অনুষ্ঠিত হওয়ায় এবছর কাইট ফেষ্টিভ্যাল অনুষ্ঠানটি সেপ্টেম্বরে আয়োজন করা হয়। সেপ্টেম্বর হওয়াতে সন্ধ্যা হতেই আবহাওয়া একটু ঠান্ডা অনুভুত হয়। এ কারনে আগামী বছরের ’লংবীচ কাইট ফেষ্ঠিভ্যাল-২০১৮’ আগষ্ট মাসেই আয়োজন করবে বলে ’লংবীচ কাইট ফেষ্টিভ্যাল কমিটি সিদ্ধান্ত নেয়।

এবছরের ‘লংবীচ কাইট ফেষ্টিভ্যাল’এর সার্থকতার জন্য যাদের অক্লান্ত পরিশ্রম ও অবদান রয়েছে তারা হলেন কনভেনর সোহরাব চৌধুরী, কো-কনভেনর আব্দুল আলীম আলমগীর, চেয়ারম্যান জসিম হক, ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুব তালুকদার, ফুড ডিস্ট্রিবিউটর আরিফ হোসেন, কোষাদক্ষ টিটু মজুমদার সহ আরও আনেকে।

সর্বপরি পুরো দিনটিই যেন আনন্দঘন ছিলো। রঙ-বে-রঙয়ের ঘুড়ি দিয়ে প্রশান্ত মহাসাগরের আকাশ যেন ছেয়ে যায়! দারুন এক পরিবেশ থেকে  সকলে যেন তৃপ্ত আত্মা নিয়ে বাড়ি 

ফিরে। এবারের লংবীচ কাইট ফেষ্টিভ্যাল অনুষ্ঠানে উপস্থিতি হওয়ার জন্য ’লংবীচ কাইট ফেষ্টিভ্যাল কমিটি’র পক্ষ থেকে আন্তরিক অভিনন্দন প্রদান করা হয়েছে।

 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ