বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের স্বীকৃতিতে গ্রিসে বাংলাদেশ দূতাবাসে বিভিন্ন কর্মসূচি

December 7, 2017, 9:32 AM, Hits: 69

বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের স্বীকৃতিতে গ্রিসে বাংলাদেশ দূতাবাসে বিভিন্ন কর্মসূচি

হ-বাংলা নিউজ:  বাংলাদেশ দূতাবাস, এথেন্সে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা এবং আনন্দের মধ্য দিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণের ইউনেস্কোর ‘মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড’রেজিস্টারে অন্তর্ভুক্তি উদযাপিত হয়েছে। 

এই আয়োজনে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ব্যবসায়ী, আঞ্চলিক, নারী নেতৃত্ব, নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধিসহ সর্বস্তরের প্রবাসী বাংলাদেশিরা অংশগ্রহণ করেন। 

পবিত্র কুরআন থেকে তিলাওয়াত এবং পবিত্র গীতা পাঠের মধ্যে দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠান। এ উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করা হয়। বাণী পাঠের পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণের রঙিন ভিডিও প্রদর্শন করা হয়। এরপর ঐতিহাসিক ভাষণটি ইউনেস্কোর ‘মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড’রেজিস্টারে অন্তর্ভুক্তি উপলক্ষে বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠান হয়। 

জাতির পিতার ঐতিহাসিক ভাষণটি স্মৃতি থেকে পাঠ করে প্রবাসী নতুন প্রজন্মের এক কিশোরী। উপস্থিত প্রবাসীদের প্রত্যেককে ঐতিহাসিক ভাষণটির কপি সিডি হিসেবে উপহার দেয়া হয়।  গ্রিসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. জসীম উদ্দিন তার বক্তব্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক নেতৃত্বের কথা স্মরণ করেন। 

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার দৃপ্ত পদক্ষেপে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে।  জাতির পিতার ভাষণের এই স্বীকৃতি আমাদের জাতির জন্য এক মহিমান্বিত অর্জন। এই অর্জনের মধ্য দিয়ে একদিকে যেমন বহিঃবিশ্বে জাতির পিতার অবিস্মরণীয় বাণী ছড়িয়ে পড়ল, তেমনি একই সাথে আমাদের উপর দায়িত্ব অর্পিত হলো জাতির পিতার মূল্যবোধ ছড়িয়ে দেয়ার। 

গ্রিসে বসবাসরত বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশিদের অংশগ্রহণে এ উদযাপন দূতাবাস প্রাঙ্গণে  সৃষ্টি করে এক মিলনমেলা। তাদের প্রাণবন্ত ও স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে দূতাবাসে একটি আনন্দময় পরিবেশ সৃষ্ট হয়। 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ