বাঘ ধরতে গিয়ে প্রতারণার শিকার স্কটল্যান্ডের পুলিশ

February 9, 2018, 3:02 AM, Hits: 306

বাঘ ধরতে গিয়ে প্রতারণার শিকার স্কটল্যান্ডের পুলিশ

হ-বাংলা নিউজ :  সেখানে সন্ধ্যা ঘনাতেই বাড়ির বাইরে খুব একটা দেখা যায় না কাউকেই। তার ওপর ফাঁকা ফাঁকা এলাকা। আর বেশিরভাগই বাগানবাড়ি। বলছিলাম স্কটল্যান্ডের অ্যাবেডিন অঞ্চলের কথা।

সেখানেই হঠাৎ এক ব্যক্তি তার বাড়ির বাগানে দেখতে পান কোনও এক বন্যজন্তু বসে আছে। আতঙ্কে সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় থানায় খবর দেন। ভয়ার্ত কণ্ঠে তিনি পুলিশকে জানান তাঁর বাড়ির বাগানে বাঘ ঢুকেছে। খবর পাওয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যে বনদপ্তরের কর্মীদের নিয়ে এলাকায় হাজির হয় পুলিশ। 

সেই খবর তখন দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়েছে অ্যাবেডিনের হ্যাটন এলাকায়। আতঙ্কে বাড়ির বাইরে পা রাখছিলেন না কেউ। কাছেই রয়েছে বনাঞ্চল। সকলেই ভেবেছিলেন সেখানে থেকেই এসেছে কোনও বন্যজন্তু। বাগানে বাঘের অবয়ব দেখে পুলিশও বাঘই বুঝেছিল।

এলাকাবাসীকে সুরক্ষিত রাখতে কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয় গোটা এলাকা। সকলকে বাড়ির ভেতরে থাকতে বলা হয়। অতি সন্তর্পণে বাগানে ঢোকেন তারা। ধীরে ধীরে সেদিকে এগোতে থাকেন বনদপ্তরের কর্মীরা। কিন্ত এতকিছুর পরেও নিজের জায়গা থেকে একটুও নড়েনি সেই বাঘ। খোস মেজাজে বসে ছিল। তারপরেই সন্দেহ বাড়তে থাকে বনকর্মীদের। একটু কাছে যেতেই তারা বুঝতে পারেন বাঘ আসল নয়, নকল। 

একটি বড় সফট টয়কে কেউ বাগানে বসিয়ে রেখেছিলেন। অন্ধকার নামতে সেটাকেই আসল বাঘ বলে ভেবেছিলেন বাড়ির মালিক। পুরো ঘটনাটি বেশ মজাকরে ট্যুইট করে জানান হ্যাটলের পুলিশ দপ্তর। ৫ ফেব্রুয়ারির এই ঘটনা ইতিমধ্যেই ১০০০ জন শেয়ার করে ফেলেছেন। নর্থ ইস্ট পুলিশ ডিভিশন তাদের ফেসবুক পেজেও ঘটনাটির বিবরণ ছবি সহ প্রকাশ করেছেন।  

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ