আজ ঐতিহাসিক স্বৈরশাসক এরশাদ প্রতিরোধ দিবস

February 14, 2018, 1:30 PM, Hits: 1056

আজ ঐতিহাসিক স্বৈরশাসক এরশাদ প্রতিরোধ দিবস

খন্দকার আহমেদ,হ-বাংলা নিউজ,হলিউড থেকে: আজ ভ্যালেন্টাইন্স ডে, বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বের অনেক দেশ পালন করবে বা করছে। প্রশ্চাত্যের অধিকাংশ দেশ এই দিন পালন করে আসছে দীর্ঘদিন ধরে,কিন্তু বাংলাদেশ এই পশ্চিমা কৃষ্টি ও সংস্কৃতির চর্চা খুব বেশীদিন আগের নয়।আমার আজকের প্যাঁচাল ভ্যালন্টাইস ডে বা তথাকথিত 'ভালবাসা দিবস'টিকে গূরুত্ব দিয়ে এর সার্থকতা তুলে ধরবার জন্য নয়,বরং এদিনটিকে অন্যভাবে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরা।

অনেকেরই মনে আছে 'নূর হোসেনে'র কথা,উনার বিখ্যাত 'গনতন্ত্র মুক্তি পাক' এবং গনতন্ত্রের জন্য উনার জীবন উৎসর্গ করবার কথা। স্বৈরচার সামরিক জান্তা এরশাদের পতনে উল্লেখযোগ্য ঐতিহাসিক সত্য,নুর হোসেনের হত্যা দিবসে বিভিন্ন আয়োজন,সভা,সেমিনার আর টক শো'তে দিবসটির মূল্যায়ন করা হয়।
অথচ স্বৈরাচার এরশাদ বিরোধী প্রথম সংঘবদ্ধ আন্দোলন ও বিক্ষোভ হয়েছিল আজকের এই দিনটিতে,১৪ ফেব্রুয়ারী ১৯৮৩,বৃহস্পতিবার।
স্বৈরচার এরশাদের বিতর্কিত তৎকালীন  শিক্ষা মন্ত্রি মজিদ খানের ছাত্র-জনগনের প্রত্যাখানকৃত 'শিক্ষা কমিশন বিল' এর বিরুদ্ধে ১৪ দলীয় ছাত্র জোট কলা ভবন থেকে শিক্ষা ভবনের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে। পথিমধ্যে আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা বাঁধা দেয় এবং এক পর্যায়ে আধা সামরিক বাহিনীর সদস্যরা নির্বিচারে গুলিবর্ষনে নিহন হল শিশু দিপালী সাহা,জয়নাল,মোজাম্মেল,কান্চন এবং আইয়ুব।
আহত হন অনেক ছাত্র-জনতা,গ্রেফতার হন অনেকেই। স্বৈরচার এরশাদের সামরিক শাসনের প্রথম সফল আন্দোলন,যা ১৯৯০ সনের ৪ঠা ডিসেম্বর পূর্নতা পায়,বিশ্ব বেহায়া খ্যাত স্বৈরশাসক এরশাদ ক্ষমতাচূত হন।
আজকের ভ্যালেনটাইন্স ডে ঐ বিশেষ দিনটিকে ম্লান করে দিয়েছে কিছু শফিক রেহমান নামক ভদ্র বেশী সুশীল মানুষগুলোর কল্যানে।
সুশীল জনাব শফিক রেহমান ছিলেন চরম এরশাদ বিরোধী,যা উনার সেই সময়কার 'যায় যায় দিন' সপ্তাহিকে প্রমান মেলে।কিন্তু এই স্বৈরচারকে রাজনীতিতে সুযোগ করে দেয় বৃহৎ দুটি রাজনৈতিক দল,আর অন্যদিকে তথাকথিত সুশীল শফিক রেহমান ম্যাডাককে নিয়ে জামায়েতের সাথে লিয়াজো করতে থাকেন। কি করে ম্যাডামের দলকে ক্ষমতায় বসিয়ে যুদ্ধপরাধীদের বিচারকে নত্স্যাৎ করা যায়।
এরই ফাকে ভেলেন্টাইনস্ ডে নতুন প্রজন্মকে উপহার দিয়ে স্বৈরাচার এরশাদের স্বৈরচারী ইতিহাসকে আড়াল করা হয় এবং হচ্ছে।
ক্ষমা করো তোমরা 'দিপালী,জয়নাল,মোজাম্মেল,আইয়ুব এবং কান্চন' ...
আমরা তোমাদের ভুলে গেছি....
তোমরা জাতিকে ক্ষমা করো....

তোমরা আমাদের ক্ষমা করো.. 

 


 
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ