নতুন কমিটি গঠনে সক্রিয় হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া বাংলাদেশ সমিতি

February 18, 2018, 6:45 AM, Hits: 723

নতুন কমিটি গঠনে সক্রিয় হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া বাংলাদেশ সমিতি

রুমী কবির, জর্জিয়া প্রতিনিধি,হ-বাংলা নিউজ :  নির্ধারিত মেয়াদ শেষ হওয়ার দুই বছরেরও বেশি সময় পর অবশেষে জর্জিয়া বাংলাদেশ সমিতি পরবর্তী কমিটি গঠনে সক্রিয় হয়ে ওঠেছে।

মেয়াদোত্তীর্ণ কার্যকরী কমিটির সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক আহমাদুর রহমান পারভেজ স্বাক্ষরিত সংগঠনের এক বিজ্ঞপ্তিতে ২০ ফেব্রুয়ারি রাত ৮টায় জিমি কার্টার বুলোবার্ডের জেসি ইভেন্ট মিলনায়তনে সংগঠনের এক সাধারণ সভা আয়োজনের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

ওই সভা থেকে বিগত কমিটির দুই বছরের মেয়াদের আয়-ব্যয়ের হিসেব নিকাশের রিপোর্ট ও সাধারণ সম্পাদকের রিপোর্ট উপস্থাপনের পর নতুন কমিটি গঠনের লক্ষ্যে সর্বসম্মতিক্রমে নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে বলে সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

একই স্থানে একই সংগঠনের উদ্যোগে রাত ৯টা থেকে ভাষা শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনে কবিতা, গান, আলোচনাসহ মহান একুশের প্রথম প্রহরে পুস্পস্তবক অর্পণের আয়োজন করা হয়েছে এর আগের অপর এক ঘোষণায়। 

গত দুই বছরের ব্যবধানে জর্জিয়া বাংলাদেশ সমিতি দুই বার সাধারণ সভার আহবান করলেও কোরামের অভাবে তা সফল হয়নি। এরপর গত বছর গ্রীষ্মে একটি বনভোজনের আয়োজন করে সেই বনভোজন প্রাঙ্গণেই সাধারণ সভা করার প্রচেষ্টা নেয়া হয়েছিলো। কিন্তু সেই সময়ে বেশ কয়েকটি ফোরাম বা গ্রুপের বনভোজনের কর্মসূচী থাকায় সেই পরিকল্পনাটিও ভেস্তে যায়।

দৃশ্যত আসন্ন একুশের আয়োজনেও অগনিত বাংলাদেশির উপস্থিতির কথা বিবেচনা করে এবারও একই কৌশল হিসেবে কোরাম হওয়ার প্রত্যাশায় রাত ৮টায় সাধারণ সভার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান।         

এদিকে বিধি অনুযায়ী সাধারণ সভা আহ্বানের জন্যে কমপক্ষে ৩০ দিনের সময় নিয়ে বিজ্ঞপ্তি ও আমন্ত্রণপত্র পাঠানোর বাধ্যবাধকতা রয়েছে। কিন্তু দুই সপ্তাহের নোটিশে এই সভা আহ্বানের কারণে জর্জিয়া সমিতির আজীবন সদস্যসহ বেশ কয়েকজন সদস্যের পক্ষে-বিপক্ষে মিশ্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে। তবে অধিকাংশ প্রবাসী বাংলাদেশিই স্বল্প সময়ের ব্যবধানে হলেও আসন্ন সাধারণ সভার মধ্য দিয়ে নিষ্ক্রিয় সমিতিকে পুনরায় সক্রিয় করার পক্ষেই মত দেন।

জর্জিয়া সমিতির সাবেক সাংস্কৃতিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান ভূঁইয়া, সমিতির সাবেক সহ সভাপতি আহসান ফারুক মানিক, সাংবাদিক রুমী কবির, নবুয়ত মজলিশ, মোসাম্মাৎ আরজু, মহিন উদ্দিন দুলালসহ অনেকেই এ সভা আয়োজনের পক্ষে অবস্থান নিয়ে নিজেদের কথা জানিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

তারা যত দ্রুত সম্ভব দীর্ঘদিনের এই সঙ্কট থেকে উত্তরণে অনুষ্ঠিতব্য এই সাধারণ সভার মাধ্যমে নতুন কমিটি গঠনের অনুরোধ জানান। তবে কেউ কেউ বিধিমালাকে সামনে এনে মামলা ঠুকে দিলে নতুন ঝামেলার সৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কার কথাও উল্লেখ করেন।     

অন্যদিকে সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, সাবেক নির্বাচন কমিশনার খন্দকার আসাদুর রহমান, প্রবীণ সংগঠক গিয়াস উদ্দিন ভূঁইয়া, আব্রাহাম রহমান, নাহিদুল খান সাহেলসহ বেশ কিছু সদস্য বিধি মোতাবেক ত্রিশ দিনের সময় নিয়ে সাধারণ সভা আহ্বানের ব্যাপারে জোরালো মন্তব্য করেন। অন্যথায় সেটি বিধিসম্মত সভা হিসেবে গণ্য হবেন না বলে উল্লেখ করেন তারা।

গিয়াস উদ্দিন বলেন, “দুই বছর আগে মেয়াদ শেষ হওয়া এই কমিটির কর্মকর্তারা একমাত্র বৈধ সদস্য হিসেবে গণ্য আজীবন সদস্যদের অংশগ্রহণে ত্রিশ দিনের সময়ের নোটিশে সাধারণ সভা আহবান করতে পারেন এবং তারা সম্মানের সাথে বিদায় নিতে পারেন। সমিতির এই আজীবন সদস্যরাই নির্বাচন কমিশন গঠনে সিদ্ধান্ত নিতে পারবে”।

জর্জিয়া সমিতির সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেনের দেয়া তথ্য অনুযায়ী বর্তমানে সমিতির আজীবন সদস্য সংখ্যা ২৩৪ জন। এছাড়া সমিতির মালিকানায় গুইনেট কাউন্টিতে গত সাত বছর আগে একটি নিজস্ব ভবন কেনা হয়েছে।  

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ