রাশিয়ায় ভাষাশহীদ দিবস

February 22, 2018, 10:03 AM, Hits: 360

রাশিয়ায় ভাষাশহীদ দিবস

হ-বাংলা নিউজ,  রাশিয়ার রাজধানী মস্কোয় যথাযথ মর্যাদা ও ভাব গাম্ভীর্যপূর্ণ পরিবেশে পালিত হয়েছে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। অমর একুশের কর্মসূচি শুরু হয় ২১ ফেব্রুয়ারি স্থানীয় সময় ভোরে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণের মধ্য দিয়ে। রাশিয়ায় নিয়োজিত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. এস এম সাইফুল হক ও দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপস্থিতিতে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করা হয়,বক্তব্য দিচ্ছেন এস এম সাইফুল হক

সন্ধ্যায় দূতাবাসে একটি আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে শহীদদের স্মরণে ও তাঁদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এরপর পবিত্র গ্রন্থ থেকে পাঠের পর রাষ্ট্রদূত এস এম সাইফুল হক অস্থায়ী শহীদ বেদিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। তারপর দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রবাসী বাঙালি, রাশিয়ান নাগরিকেরা শোভাযাত্রা সহকারে অস্থায়ী শহীদ বেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে বাংলাদেশ থেকে প্রেরিত রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বাণী পাঠ করে শোনানো হয়।

আলোচনা অনুষ্ঠানে বক্তারা মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের পটভূমি, গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে ধরেন। রাষ্ট্রদূত এস এম সাইফুল হক তাঁর বক্তব্যে ভাষা শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, ভাষা আন্দোলন বাংলাদেশের স্বাধিকার আন্দোলনের প্রথম সোপান। তিনি ভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্ব ও তাঁর অবদানের কথা স্মরণ করেন। তিনি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি প্রাপ্তির পেছনে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার ভূমিকার কথাও তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন দূতাবাসের কাউন্সেলর ও দূতালয় প্রধান আন্দ্রিয় দ্রং।

অমর একুশের অনুষ্ঠানে মস্কোয় বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশি, রাশিয়ার নাগরিক, দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও তাদের পরিবারের সদস্যসহ প্রায় ২০০ জন অংশগ্রহণ করেন। দূতাবাসের পক্ষ থেকে অনুষ্ঠানে আগত সকলকে হালকা আপ্যায়ন করা হয়।  

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ