স্বাধীনতা দিবসে ক্যালিফোর্ণিয়া বিএনপি'র আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত-

March 27, 2018, 4:33 AM, Hits: 1464

স্বাধীনতা দিবসে ক্যালিফোর্ণিয়া বিএনপি'র আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত-

হ-বাংলা নিউজ : ২৬শে মার্চ বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে ক্যালিফোর্ণিয়া বিএনপির উদ্যোগে যুক্তরাষ্ট্রের লস এঞ্জেলেসে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় আয়োজিত এ সভায় বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্য ছাড়াও প্রবাসী কম্যুনিটির বিশিষ্ট নাগরিকগণ ও স্হানীয় বিএনপির বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী, সমর্থক ও শুভাণুধ্যায়ীরা উপস্হিত ছিলেন। আলোচনা সভার সভাপতিত্ব করেন ক্যালিফোর্ণিয়া বিএনপির সভাপতি মোঃ আঃ বাছিত। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন ক্যালিফোর্ণিয়া বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বদরুল আলম চৌধুরী শিপলু।সূচনায় ক্যালিফোর্ণিয়া বিএনপি'র সভাপতি মোঃ আঃ বাছিত বলেন, মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে আমি দেশের ও প্রবাসী বাংলাদেশি সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই, তাদের সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করি। আজকের এই মহান দিবসে আমি সশ্রদ্ধচিত্তে স্মরণ করি স্বাধীনতার ঘোষক, মুক্তিযুদ্ধে জেড ফোর্সের অধিনায়ক শহীদ  প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানকে-যার ডাকে সাড়া দিয়ে ১৯৭১ সালে এদিনে গোটা জাতি মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। আমি গভীর শ্রদ্ধা জানাই সকল জাতীয় নেতার প্রতি, যারা দেশ ও জাতির জন্য অসামান্য অবদান রেখেছেন।প্রধান অতিথি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হান্নান বলেন, যে গণতন্ত্র এবং মানুষের অধিকারের জন্য আমরা মহান মুক্তিযুদ্ধ করেছিলাম তা আজ বন্দি।

 আজ আমাদেরকে শপথ নিতে হবে। সংগ্রামের মাধ্যমে বাংলাদেশের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে হবে।দলের সাধারণ সম্পাদক বদরুল চৌধুরী শিপলু বলেন, দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব বিপন্ন করার জন্য আজও দেশি-বিদেশি চক্রান্তকারীরা নানামুখী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। বহুদলীয় গণতন্ত্রের যে যাত্রা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান শুরু করেছিলেন তাও আজকে বিনষ্ট করে গণতন্ত্রের নামে কর্তৃত্ববাদী অপশাসন চালু করা হয়েছে। কেউ যাতে মানুষের মৌলিক মানবিক অধিকার নিয়ে কথা না বলে, নাগরিক স্বাধীনতার জন্য আওয়াজ না তোলে সেজন্যই বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে।ক্যালিফোর্ণিয়া বিএনপি'র সাংগঠনিক সম্পাদক মারুফ খান বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে বন্দি করার অর্থ গণতন্ত্রকেই তালাবদ্ধ করে রাখা। নতুন করে ফ্যাসিবাদের বিস্তার লাভ করেছে। তাই স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব সুরক্ষা ও গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখতে জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক শক্তির এ মুহূর্তে গড়ে তুলতে হবে ইস্পাত কঠিন ঐক্য। আর এজন্যই বিপুল জনসমর্থিত নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে সাহসী সংগ্রামে অবতীর্ণ হতে হবে। তাই সকল ষড়যন্ত্র রুখে দিয়ে অপহৃত গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে হবে। একটি সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসে এই হোক আমাদের অঙ্গীকার।সভায় বিএনপি নেতৃবৃন্দ বলেন, স্বাধীনতার দীর্ঘ ৯ মাস বেগম খালেদা জিয়া কারাবন্দী ছিলেন। আজ ৪৭ বছর পর এসেও সেই নেত্রীকে আবারও কারাগারে বন্দী থাকতে হচ্ছে এ স্বাধীন দেশে। অবৈধ, অনৈতিক সরকারের চক্রান্তে আজ গণতন্ত্রের নেত্রী বন্দী। শান্তিপূর্ণ আন্দোলন-সংগ্রামের মাধ্যমে আমাদের নেত্রী খালেদা জিয়াসহ হাজার হাজার নেতাকর্মীকে মুক্ত করে দেশের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে হবে। বিএনপি নির্বাচনমুখী দল, আমরা নির্বাচনে যেতে চাই। কিন্তু আমাদের নেত্রীকে নিয়েই যাবো

। একটি নিরপেক্ষ নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে। সংসদ ভেঙে দিতে হবে, প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ করতে হবে। আমাদের সকল নেতাকর্মীর মামলা প্রত্যাহার করতে হবে।স্বাধীনতা দিবসের এ আলোচনা সভায় উপস্হিত ছিলেনঃ মোঃ আঃ বাছিত, বদরুল আলম চৌধুরী শিপলু, সৈয়দ দেলোয়ার হোসেন দিলির, নজরুল ইসলাম চৌধুরী কাঞ্চন, খন্দকার আলম, আবুল ইব্রাহিম, মুর্শেদুল ইসলাম, মাহবুবুর রহমান শাহীন, সালাম দাঁড়িয়া, মানিক চৌধুরী, মাতাব আহমদ, আব্দুল হাকিম, মিশর নুন, আবু তাহের সাজু, এ আর মাহবুবুল হক, মুরাদ হামিদ খান সানী, সাইদ আবেদ নিপু, ফারুক সরকার, খন্দকার তসলিম, মোঃ সামছুল ইসলাম, জহিরুল কবির হেলাল, মোঃ শাহজাহান, হাসানুজ্জামান মিজান, বাদল, সৈয়দ নাসিরউদ্দিন জেবুল, মোয়াজ্জেম আহমেদ রাসেল, মারুফ খান, ইলিয়াস মিয়া, লায়েক আহমেদ, বদরুল আলম মাসুদ, শাহীন হক, শাহতাব কবির ভূঁইয়া শান্ত, নাঈমুল ইসলাম চৌধুরী, হোসেন আহমেদ,রেজাউল হায়দার চৌধুরী, হুমায়ুন কবির, মিজানুর রহমান, খসরু রানা, শাহানুর কবির ভুঁইয়া শুভ্র, আজমউদ্দিন চৌধুরী দুলাল, সুমেন আহমেদ, রেজাউল করিম জামিল, জুয়েল আহমেদ, কামরুল হাসান তরুন, মিকায়েল খান রাসেল, খায়রুল ইসলাম, তানভীর আহমেদ, জাভেদ বখত্ , আবদুল মোতালেব, আলতাফ হোসেন, আহসান আহমেদ, মিল্টন খান, ওমর ফারুক, কামাল হোসেন, ফয়সল হোসেন সিদ্দিক, আমজাদ হোসেন, খোরশেদ আলম রতন, জিল্লুর রহমান চৌধুরী, তারেক খান, রওনক সালাম, তাসনুভা বেগম, রুহুল আমিন বাবু, সাজ্জাদ পারভেজ, হেলাল মজুমদার, ইসলাম উদ্দিন, শাহেদ আহমেদ, সিদ্দিক আহমেদ, জুনেল আহমেদ, মোঃ গোলাম সারোয়ার হোসেন, ইলিয়াস শিকদার, আবুল বাশার, আবদুল আহাদ, আবদুল হাকিম, কামরুল আলম চৌধুরী, গিয়াস আহমদ, মজিবর রহমান, ফখরুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম, মোঃ শামীম উদ্দিন, আবদুল মুনিম, আশিকুর রহমান, হাবিবুর রহমান, আবদুল হাসিব বাবুল, আবদুল কাদির, মাঈনুল আহমেদ, রিপন চৌধুরী, এড. নুরুল হক, জামিল আহমেদ, মোঃ রহমান রফিক, সফিকুল ইসলাম পলাশ, আবুল কালাম আজাদ, মোঃ মুকুল, আবদুল্লাহ আল ফরহাদ, এনাম চৌধুরী, মোঃ আলম খোকন, সৈয়দ আলী আক্তার, রফিকুল আলম চৌধুরি প্রমুখ। 

 
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ