ভার্জিনিয়ায় গাড়ির এয়ার ভেন্ট দিয়ে ঢুকল সাপ

June 7, 2018, 1:52 AM, Hits: 183

ভার্জিনিয়ায় গাড়ির এয়ার ভেন্ট দিয়ে ঢুকল সাপ

হ-বাংলা নিউজ :  ঘটনাটি যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়ার ওয়ারেন্টনের। লরা গফ নামের এক নারী দুপুরের খাবারের বিরতিতে মেইন স্ট্রিটে গাড়ি চালাচ্ছিলেন। হঠাৎ দেখলেন, গাড়ির বায়ু চলাচলের পথ (এয়ার ভেন্ট) বেয়ে নেমে আসছে প্রায় দুই ফুট দৈর্ঘ্যের একটি সাপ। তিনি ভয় পেলেন না। মাথা ঠান্ডা রেখে রাস্তায় থেমে গেলেন। গাড়ি থেকে নেমে ফোন করলেন ৯১১ নম্বরে।

লরা গফ এ ঘটনার ছবি তুলে রাখলেন সঙ্গে সঙ্গে। এখনকার দিনে কোনো ঘটনা ঘটলেই ছবি তোলার কথা কেউ ভোলেন না। তিনি ভেবেছিলেন, কেউ হয়তো বিশ্বাস করতে চাইবে না! তাই তিনি ছবি তুলে রাখলেন। ততক্ষণে প্রাণী নিয়ন্ত্রণ দপ্তরের একজন কর্মী এসে পৌঁছান। গত সোমবার এ ঘটনা ঘটে।

তবে সাপটি ধরতে বেশ বেগ পেতে হয় প্রাণী নিয়ন্ত্রণ বিভাগের ওই কর্মীকেও। তিনি ভয় পেয়ে যান। এ কথা তিনি স্বীকারও করেন।

পরে জানা যায়, এটি গারটার সাপ, যা উত্তর আমেরিকা অঞ্চলে সচরাচর দেখা যায়। সাপটি লরার ফোন কর্ডের চার্জারের সঙ্গে পেঁচিয়ে ছিল।

লরা জানান, সাপ দেখে প্রথমে নিজে বিশ্বাস করতে পারেননি তিনি। প্রথমে খেয়াল করেননি। পরে সাপটি শব্দ করলে তিনি টের পান। সাপটি ধরার জন্য নানা কসরত করেন প্রাণী নিয়ন্ত্রণ দপ্তরের ওই কর্মী। কিন্তু সাপ তো ধরা দেয় না! পরে এয়ার ভেন্ট থেকে সাপটি বের হয়ে পুরো গাড়িতে ঘুরতে থাকে। একসময় এটি সামনের সিটের নিচে পড়ে যায়। এরপর সেটি আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। এদিকে দুপুরের খাবার সময় পেরিয়ে যাওয়ায় কাজে ফেরার তাড়া ছিল লরার।

গাড়ির মধ্যে সাপ থাকা অবস্থায় তিনি গাড়িটি চালিয়ে কাজে ফেরেন। সহকর্মীদের ঘটনা জানান। তখন তাঁর সহকর্মীরা নানা বুদ্ধি-পরামর্শ দিতে শুরু করেন। এয়ারকন্ডিশনার চালু করাসহ সাপটি বের করার নানা চেষ্টা করেন তাঁরা। কিন্তু সব প্রচেষ্টাই বিফলে যায়। পরে ইন্টারনেট ঘাঁটতে শুরু করেন লরা। তিনি জানতে পারেন, আঠা ব্যবহার করলে সাপ আটকে যাবে। পরে এক বন্ধুর গাড়ি নিয়ে আঠা কিনে আনেন এবং গাড়ির সিটের নিচে রেখে দেন। কিন্তু তাতেও কোনো কাজ হয়নি। পরে গাড়ি চালিয়ে তিনি র‍্যাপাহ্যানক কাউন্টিতে তাঁর বাড়িতে ফেরেন। পরদিন সকালে তিনি দেখতে পান সাপটি আঠায় আটকে রয়েছে। পরে সেটি ছুড়ে ফেলা হয় বলে জানান তিনি।

গতকাল বুধবার ফকোয়ার কাউন্টির পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, তাঁদের এক প্রাণী নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা সাহায্যের জন্য সাড়া দিয়েছিলেন। গারটার সাপ ওই এলাকায় বেশি দেখা যায়। প্রায়ই এ ধরনের সাপের কবল থেকে বাঁচার জন্য কল পানা তাঁরা। তবে গাড়ি চালানো অবস্থায় এয়ার ভেন্ট দিয়ে সাপ ঢুকে পড়ার ঘটনা সাধারণত ঘটে না।

পুলিশ বিভাগের এক কর্মকর্তা ওয়াশিংটন পোস্টকে জানান, সম্প্রতি ভারী বৃষ্টির কারণে সাপটি সম্ভবত শুষ্ক ও উষ্ণ জায়গা খুঁজছিল। উষ্ণ গাড়ি এ ক্ষেত্রে তার জন্য ভালো জায়গা। রাতের কোনো এক সময় গাড়ির হুডের মধ্যে ঢুকে পড়ে এটি। গাড়ির ইঞ্জিন যেহেতু বেশ কিছু সময় গরম থাকে, সেটিই উপভোগ করতে চাইছিল সাপটি। 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ