নিউইয়র্কে শাহজাহান বাচ্চু হত্যাকান্ডের বিচার দাবি

June 20, 2018, 1:31 AM, Hits: 339

নিউইয়র্কে শাহজাহান বাচ্চু হত্যাকান্ডের বিচার দাবি

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:প্রকাশক শাহজাহান বাচ্চু হত্যাকান্ডের বিচারের দাবিতে ১৮জুন সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসে মানববন্ধন ও পথসভার আয়োজন করা হয়। প্রবাসী নাগরিক সমাজ আয়োজিত কর্মসূচির সভাপতিত্ব করেন এ্যাকটিভিস্ট মুজাহিদ আনসারি । নাট্যকার ও সাংবাদিক তোফাজ্জল লিটন’র সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন সুশীল শাহা, জাকির আহমেদ রনি, গোপাল স্যান্যাল, এন্ড্রো ডেনিস এবং স্বীকৃতি বড়–য়া ।

সভাপতির বক্তব্যে এ্যাকটিভিস্ট মুজাহিদ আনসারি বলেন, প্রকাশক শাহজাহান বাচ্চু হত্যাকান্ডসহ সকল হত্যাকান্ডের রহস্য উন্মোচন করে তার বিচার দাবি করছি এই সভা থেকে। ৩০ লক্ষ্য শহীদের রক্তে গড়া এই বাংলাদেশ কোনো দিন পরাজিত হতে পারে না। ১৯৭১ সালে পরাজিত শক্তিরা আবার নানা উপায়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার মানুষ, প্রতিষ্ঠান এবং স্থাপনার উপর হামলে পড়েছে। অসাম্প্রদায়িক চেতনার মানুষকে হত্যা করছে উগ্রবাদি মানুষরা। সরকারের মধ্য থেকেই কিছু মানুষ উপরের নির্দেশের কথা বলে অপকর্মগুলোকে আশকারা দিচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী যদি এসব বিষয়ে শিগ্রই ব্যবস্থা না নেন তাহলে সমস্ত অপকর্মেও দায় প্রধানমন্ত্রীর উপরই বর্তাবে। 

বাংলাদেশ গনজাগরণ মঞ্চের প্রতিষ্ঠাতা সংগঠক জাকির আহমেদ রনি বলেন, যখন লালনে ভাস্কর্য মৌলবাদীরা ভেঙ্গে ফেলে দিলো আমরা পওতিবাদ করেছি, মুক্তমনা ব্লগারসহ ভিন্ন মতামতের জন্য নানা ধর্মের মানুষকে হত্যা করা হয়েছে আমরা বারে বার প্রবিতাদ করেছি। সরকার কর্ণপাত করেনি। নগরে আগুল লাগলে দেবালয় রক্ষা পায় না। সরকার কে আমরা বলতে চাই , আপনারা আপনাদের মতামত আমাদের উপর চাপিয়ে না দিয়ে জনগন কী বলতে চায় শুনুন। প্রতিটি হত্যাকান্ডের সুষ্ঠু তদন্ত করে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করুন। 

নিউইয়র্ক স্যাকুলার আন্দোলনের সংগঠক এন্ড্রো ডেনিস বলেন, আমি এখানে না আসলে জানতেই পারতাম না তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোতে ধর্মীয় উগ্রবাদিতা জালের মতো ছড়িয়ে পড়ছে। বাংলাদেশে অন্তত ২০জনকে হত্যা করা হয়েছে তাদের ভিন্ন মত চর্চার জন্য। সরকার এ বিষয়ে উদাসিন না হলে এই হত্যার মিছিল এমন করে বৃদ্ধি পেতে পারতো না। আমরা বাংলাদেশ সরকারকে এ বিষয়ে সহযোগীতা করতে চাই। 

নিউইয়র্ক গনজাগরণ মঞ্চের অন্যতম সংগঠক গোপাল স্যান্যাল বলেন, গনজাগরণ মঞ্চ থেকে যোদ্ধাপরাধীদেও বিচারের দাবি জানানো হয়েছিলো সরকার তাদের ছোড়ে ফেলে দিয়েছে, যারা অসাম্প্রদায়িক চেতনার কথা বলেছে , মুক্ত চিন্তার কথা বলেছে উগ্রবাদিরা তাদের হত্যা করেছে। সেই সহ্যার মিছিল দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হচ্ছে সরকার তার কোনো একটিরও বিচার করে নি। সরকারের এই অবহেলা বাংলাদেশের জন্য ভয়ংকর পরিনতি ডেকে আনবে। 

নিউইয়র্ক ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সাধারণ সম্পাদক স্বীকৃতি বড়–য়া,  বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক দেশ। তাকে সাম্প্রদায়িক দেশ হিসেবে বিশ্বে পরিচিত করার জন্য একটি মহল প্রতিনিয়ত চেষ্ঠা করে যাচ্ছে। সেই জন্যই এতো রক্ত, এতো হত্যা। আমি বলতে চাই যতোই রক্ত ঝরুক বাংলার আপামর জনগন ৭১ সালের পরাজিতদের ষড়যন্ত্র বাস্তবায়ন হতে দিবে না। বাংলার মানুষ কোনো দিন পরাজিত হতে পারে না। 

 

 
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ