কমিউনিস্ট হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের নজরদারিতে ছিলেন ম্যান্ডেলা

July 20, 2018, 1:44 AM, Hits: 132

কমিউনিস্ট হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের নজরদারিতে ছিলেন ম্যান্ডেলা

হ-বাংলা নিউজ : যুক্তরাষ্ট্রের চোখে দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদবিরোধী অবিসংবাদিত নেতা নেলসন ম্যান্ডেলা ছিলেন কমিউনিস্ট। যুক্তরাষ্ট্রে নাগরিক অধিকারের নেতা মার্টিন লুথার কিংয়ের মতো তিনিও সাম্যবাদী আন্দোলনকে ছড়িয়ে দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তাকে অস্থিতিশীল করতে চেয়েছেন। ম্যান্ডেলার জন্মশতবার্ষকী উপলক্ষে গত বুধবার প্রকাশিত মার্কিন গোয়েন্দা নথিতে এমন তথ্যই পাওয়া গেছে।

ম্যান্ডেলার ব্যাপারে হাজার হাজার পৃষ্ঠার মার্কিন গোয়েন্দা নথি প্রকাশ করেছে ওয়াশিংটনভিত্তিক প্রোপার্টি অব দ্য পিপল নামের একটি প্রতিষ্ঠান। প্রকাশিত সেসব নথিতে দেখা যাচ্ছে, বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে লড়াই করে কারাবন্দী ম্যান্ডেলাকে ওয়াশিংটন দেখত একজন কমিউনিস্ট হিসেবে। ২৭ বছর কারাবন্দী থাকার পর মুক্তি পেলেও তাঁর ব্যাপারে ওয়াশিংটনের মনোভাবের পরিবর্তন হয়নি। তাঁকে সম্ভাব্য সাম্যবাদী ধরে তাঁর ওপর নজরদারি চলত।

প্রতিষ্ঠানটির সভাপতি রায়ান শাপিরো এক বিবৃতিতে বলেছেন, নথিগুলোতে এটা স্পষ্ট যে পঞ্চাশ ও ষাটের দশকে মার্কিন নাগরিক অধিকারের নেতা মার্টিন লুথার কিংকে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা (এফবিআই) যেভাবে কড়া নজরদারির মধ্যে রাখত, ম্যান্ডেলার ক্ষেত্রেও তা-ই করেছিল। তাঁদের প্রতি এফবিআইয়ের অভিযোগ ছিল, তাঁরা দুজনই সাম্যবাদী আন্দোলনের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তাকে হুমকির মুখে ফেলার ষড়যন্ত্রে জড়িত ছিলেন।

দক্ষিণ আফ্রিকার এই অবিসংবাদিত নেতার প্রতি মার্কিন গোয়েন্দাদের নজরদারি অব্যাহত ছিল ২০০৮ সাল পর্যন্ত। এই সময় পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের সন্ত্রাসবাদ তালিকায় তাঁর নাম ছিল। ২০১৩ সালে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। ১৯৯৪ সালের শেষের দিক থেকে ম্যান্ডেলার দল আফ্রিকান ন্যাশনাল কংগ্রেস (এএনসি) ক্ষমতায় আছে। 

প্রোপার্টি অব দ্য পিপল বলেছে, তাদের প্রকাশিত নথির মধ্যে এফবিআই, সিআইএ, ডিআইএ ও এনএসএর গোয়েন্দাদের গোপন নথি আছে। এগুলো প্রথমবারের মতো জনসমক্ষে আনা হলো। তাদের নিজেদের ওয়েবসাইটেও ‘দ্য ম্যান্ডেলা ফাইলস’ নামে নথিগুলো পাওয়া যাবে। 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ