২০২৪ সালের মধ্যে দুই লাখ অ্যাপার্টমেন্ট তৈরি হবে

July 20, 2018, 9:01 AM, Hits: 186

 ২০২৪ সালের মধ্যে দুই লাখ অ্যাপার্টমেন্ট তৈরি হবে

হ-বাংলা নিউজ : নিউইয়র্কে অট্টালিকা নির্মাণের কাজ চলছে দ্রুত গতিতে। শহরে অট্টালিকা যত বাড়ছে, খেটে খাওয়া মানুষের বসবাসের সুযোগও তত বাড়ছে। 

নিউইয়র্ক সিটি মেয়র বিল ডি ব্লাজিও ঘোষণা দিয়েছেন, ২০২৪ সালের মধ্যে আরও ২ লাখ নতুন অ্যাপার্টমেন্ট তৈরি হচ্ছে। আর ২০২৬ সালের মধ্যে এই সংখ্যা দাঁড়াবে ৩ লাখে। এর অর্থ হলো এই সময়ের মধ্যে শহরের তিন ভাগের এক ভাগ মানুষের জন্য অ্যাফরডেবল অ্যাপার্টমেন্ট প্রস্তুত হয়ে যাবে। 

ব্রঙ্কসে ‘কিপ হাউজিং অ্যাফরডেবল’ শিরোনামের একটি বিশেষ ঘোষণা অনুষ্ঠানে এই তথ্য জানিয়েছেন মেয়র বিল ডি ব্লাজিও। 

ব্লাজিও বলেন, ‘২০১৩ সালে আমি যখন নির্বাচন করছিলাম, দেখেছিলাম মানুষ গৃহ বিচ্ছিন্ন হওয়ার ভয়ে ছিল। সেটা এখনো আছে। তবে আমি চেষ্টা করেছি, নিউইয়র্কের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় অ্যাফরডেবল হাউজিং প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে। এতে আরও সময় লাগবে। রাতারাতি পরিবর্তন হবে না। তবে এখন অনেকেই তাদের পছন্দের বাসায় বাস করতে পারছেন।’ মেয়র বলেন, ‘আমাদের যেসব অ্যাফরডেবল হাউজিং আছে, সেগুলো সুরক্ষা করত হবে। পুরোনো ভবনগুলো সংস্কার করে বাস উপযোগী রাখা এবং নতুন নতুন অ্যাফরডেবল হাউজিং তৈরির চেষ্টা চলছে।’ 

অনুষ্ঠানে মেয়র ব্লাজিও বলেন, চলতি বছরের ৩০ জুন পর্যন্ত নিউইয়র্ক সিটি ৩২ হাজার অ্যাপার্টমেন্টকে অ্যাফরডেবল হাউজিংয়ের জন্য অর্থায়ন করেছে প্রশাসন। এ পর্যন্ত ১ লাখ ১০ হাজার অ্যাপার্টমেন্টে অর্থায়ন করেছে নিউইয়র্ক সিটি। গত চার বছরে নতুন ৬০ হাজার অ্যাপার্টমেন্ট তৈরি করা হয়েছে। ২০১৪ সালের মে মাসে চালু করা এই প্রকল্পে ১ লাখ ৫০ হাজার নিউইয়র্কবাসী অ্যাফরডেবল হাউজিং পেয়েছে। 

মেয়র বলেন, ‘কর্মজীবী পরিবারগুলোর জন্য আমরা প্রতিনিয়ত সংগ্রাম করছি। এখনো খুব বেশি উন্নয়ন করতে পারিনি, তবে চেষ্টা করে যাচ্ছি। শুধু অ্যাপার্টমেন্ট বাড়ানো নয় বরং যেসব হাউজিংয়ে ভাড়াটিয়া আছেন, তাদের সুরক্ষা দেওয়ার জন্য নগর অনন্য সুবিধাও প্রণয়ন করেছে।’ 

শহর প্রশাসনের যে আইন বিভাগ আছে, সেখানে একেবারে বিনা মূল্যে আইনি সহায়তা দেওয়া হয়। এমনকি ওই সব ভবন বা অন্য ভবন যেখানে ভাড়াটিয়া তাদের অধিকার সুরক্ষিত হচ্ছে না বলে মনে করছেন, তারা আইনের আশ্রয় নিতে পারেন। 

মেয়র বিল ডি ব্লাজিও বলেন, ‘ভাড়াটিয়াদের হেয় প্রতিপন্ন করা হচ্ছে—এমন অভিযোগ পেলে বাড়িঅলাদের সরাসরি আদালতে নেওয়া হবে। শুধু তাই নয়, যদি প্রমাণিত হয় তারা অপরাধ করছে তাহলে হাজার হাজার ডলার মাশুল গুনতে হবে। সেটা কোনো ক্ষেত্রে লাখ ডলারের বেশি হতে পারে। সুতরাং ভাড়াটিয়াদের হেয় করার চিন্তা করবেন না।’

 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ