নিউজার্সি অঙ্গরাজ্যের সিনেটর ক্রিস এ ব্রাউন 'বাংলাদেশ মেলা'র সাফল্য কামনা করেছেন

July 25, 2018, 1:47 AM, Hits: 1194

নিউজার্সি অঙ্গরাজ্যের সিনেটর ক্রিস এ ব্রাউন 'বাংলাদেশ মেলা'র সাফল্য কামনা করেছেন

আটলান্টিক সিটি থেকে সুব্রত চৌধুরী-হ-বাংলা নিউজ :  যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সি অঙ্গরাজ্যের আটলান্টিক মহাসাগর বিধৌত আটলান্টিক সিটি, যা ‘ক্যাসিনো শহর’ হিসাবে সমধিক পরিচিত।এই আটলান্টিক সিটি  ও তৎসংলগ্ন শহরগুলোতে ব্যাপক সংখ্যক বাংলাদেশীর বসবাস।এই  প্রবাসী   বাংলাদেশীদের সাংবাৎসরিক আনন্দ আয়োজন ‘বাংলাদেশ মেলা’, যার জন্য প্রবাসী বাংলাদেশীরা চাতক পাখির মতো প্রতীক্ষা করতে থাকে।বাংলাদেশ মেলা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামী ১ আগস্ট,২০১৮, বুধবার।ঐদিন বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব আটলান্টিক কাউনটির  উদ্যোগে আটলান্টিক সিটির  ৫৪৫, আলবেনী এভিনিউস্থ  সার্ফ স্টেডিয়াম এর উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে বিকেল পাঁচটা থেকে শুরু হয়ে  রাত বারোটা পর্যন্ত চলবে  “বাংলাদেশ মেলা’'র কার্যক্রম।  “বাংলাদেশ মেলা’য়   সংগীত পরিবেশন করবেন বাংলাদেশের  কিংবদন্তী  কণ্ঠশিল্পী  আবদুল হাদী।এছাড়া নিজস্ব গায়কী শৈলীতে  বাংলাদেশ  মেলার  মঞ্চ মাতাবেন  প্রবাসের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী সায়রা রেজা ও মারিয়া।  পাশাপাশি বাংলাদেশ মেলায় বাড়তি পাওনা থাকবে প্রবাস প্রজন্মে বেড়ে ওঠা শিশু-কিশোরদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ।   বাংলাদেশ মেলায়   থাকবে রকমারী স্টল সহ ঐতিহ্যবাহী বাংলাদেশী পণ্যের সমাহার।মেলায় আরো থাকবে আকর্ষণীয় র‍্যাফেল ড্র।বাংলাদেশ মেলায় প্রবাসী কৃতি ছাএ-ছাএীদের সম্বর্ধনা দেওয়া হবে।বাংলাদেশ মেলার টাইটেল    স্পন্সর  রেডিয়েণ্ট  আইপি টিভি  ও গ্র্যান্ড স্পন্সর উৎসব কুরিয়ার।    ‘বাংলাদেশ মেলা'র  গনমাধ্যম সহযোগী এনটিভি। মেলায় কোন প্রবেশ মূল্য নাই।বাংলাদেশ মেলা'য়  প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন আবদুল কাদের মিয়া ফাউন্ডেশন এর চেয়ারম্যান জনাব আব্দুল কাদের মিয়া।নিউজারসি অঙ্গরাজ্যের  সিনেটর ক্রিস এ ব্রাউন বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব আটলান্টিক কাউনটির  সভাপতি শহীদ খান ও সাধারন সম্পাদক সোহেল আহমেদ এর বরাবরে লেখা এক পএে  প্রবাসী আমেরিকান বাংলাদেশীদের গর্ব ও  অহংকারের আয়োজন  “ বাংলাদেশ মেলা"র  সফলতা কামনা করে লিখেছেন, বাংলাদেশ মেলার আয়োজনের সংবাদে আমি বেশ রোমাঞ্চিত। কেননা এই বাংলাদেশ মেলা আয়োজনের সূচনা লগ্ন থেকেই আমি দেখে আসছি আমাদের বহুজাতিক সমাজ ব্যবস্থায় এই মেলা কী বিশাল ভূমিকা রেখে আসছে।আমি আশা করছি চলতি বছরের  বাংলাদেশ মেলা আয়োজনের মধ্য দিয়ে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ তাদের দেশীয় কৃষ্টি ও সংস্কৃতির  নিত্য নতুন ধারনার  নান্দনিক উপস্থাপন ঘটাবেন,যার   মাধ্যমে   আমাদের বহুজাতিক সমাজ ব্যবস্থায় বাংলাদেশ কমিউনিটির  অবস্থানকে তাঁরা  খ্যাতির শীর্ষ শিখরে নিয়ে যাবেন। ‘বাংলাদেশ মেলা'র  আয়োজন উপলক্ষে কমিউনিটিতে বেশ সাড়া পড়েছে, আয়োজকরা পার করছেন ব্যস্ত সময়। সবাই এখন প্রতীক্ষার প্রহর গুনছেন সেই মাহেন্দ্রক্ষণের জন্য। 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ