নাফটা সংশোধনে কানাডাকে আরও সময় দিলেন ট্রাম্প

September 1, 2018, 8:35 AM, Hits: 771

 নাফটা সংশোধনে কানাডাকে আরও সময় দিলেন ট্রাম্প

হ-বাংলা নিউজ :  ট্রাম্প প্রশাসন উত্তর আমেরিকার মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি (নাফটা) থেকে কানাডাকে বাদ দেওয়ার হুমকি থেকে সরে এসেছে। এর বদলে দেশটিকে সংশোধিত চুক্তিতে যুক্ত হওয়ার জন্য ৯০ দিন সময় দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে ট্রাম্প প্রশাসন হুমকি দিয়ে বলেছে, কানাডাকে অবশ্যই যুক্তরাষ্ট্রের শর্ত মেনে নিতে ‘ইচ্ছুক’ থাকতে হবে। সমঝোতা আলোচনাটি গতকাল শুক্রবার শেষ হওয়ার কথা ছিল।

দ্য নিউইয়র্ক টাইমসের খবরে বলা হয়, কানাডা ও আমেরিকান কর্মকর্তাদের মধ্যে চার দিনের ম্যারাথন বৈঠক কোনো সমঝোতায় পৌঁছাতে ব্যর্থ হলে হোয়াইট হাউস কংগ্রেসকে জানায়, মেক্সিকোর সঙ্গে প্রশাসন একটি সংশোধিত চুক্তিতে আবদ্ধ হবে এবং ত্রিপক্ষীয় নাফটা চুক্তিতে থাকার বিষয়টি কানাডার ওপর নির্ভর করছে। 

যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য প্রতিনিধি রবার্ট ই. লাইটহাইজার এক বিবৃতিতে বলেন, ‘আজ প্রেসিডেন্ট কংগ্রেসকে মেক্সিকো—এবং কানাডার সঙ্গে, যদি তারা ইচ্ছুক হয়—৯০ দিনের মধ্যে তাঁর চুক্তি স্বাক্ষরের ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন।’

হোয়াইট হাউসের আলোচনা চালিয়ে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশের সঙ্গে চিন্তাভাবনা পরিবর্তনের চেয়ে বাস্তবতার সম্পর্কই বেশি। বাণিজ্য চুক্তির ব্যাপারে চূড়ান্ত কর্তৃত্বের অধিকারী কংগ্রেস আগেই হোয়াইট হাউসকে সাবধান করে দিয়ে বলেছে, যেকোনো সংশোধিত চুক্তিতে অবশ্যই মেক্সিকো ও কানাডা উভয়কেই থাকতে হবে। ৩৬টি আমেরিকান অঙ্গরাজ্যের জন্য কানাডা হচ্ছে তাদের প্রধান রপ্তানি গন্তব্য। প্রেসিডেন্টের অনেক রাজনৈতিক সমর্থক তাঁকে বিশেষভাবে বলেছেন চুক্তিটির ‘ক্ষতিসাধন’ না করতে। কানাডাকে বাদ দিয়ে কোনো নয়া নাফটা চুক্তি হলে রিপাবলিকানদের সেটি ফুটো করে দেওয়ার সম্ভাবনা বেশি, যা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের জন্য বিব্রতকর হার হবে।

কানাডাকে নাফটায় রাখার রাজনৈতিক বাস্তবতা সত্ত্বেও প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দেশটিকে চোখে খোঁচা মারতে ছাড়েননি। তিনি গতকাল শুক্রবার অভিযোগ করেন, দেশটি যুক্তরাষ্ট্র থেকে ‘সুবিধা’ নিচ্ছে এবং গাড়ির ওপর শুল্ক ধার্যের হুমকি দেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কানাডা সম্পর্কে একান্তে যেসব অশালীন মন্তব্য করেছিলেন, সেগুলো স্নায়ুছেঁড়া আলোচনার মাঝখানে প্রকাশ হয়ে পড়লে ট্রাম্প দৃশ্যত সেটি উপভোগ করেন।

টরোন্টো স্টার গতকাল ব্লুমবার্গ নিউজের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বলা ‘অফ দ্য রেকর্ড’ মন্তব্য প্রকাশ করলে শেষ মুহূর্তে বাণিজ্য আলোচনা ঝাঁকি খায়। ওই প্রতিবেদন অনুসারে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছিলেন, কানাডাকে তাঁর ছাড় দেওয়ার কোনো ইচ্ছা নেই এবং কোনো চুক্তি হতে হবে ‘সম্পূর্ণ আমাদের শর্তে’।

গতকাল প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এক টুইটে বলেন, তাঁর অফ দ্য রেকর্ড কথা বলার চুক্তি ‘ভীষণভাবে ভঙ্গ করা হয়েছে। পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, ‘অন্তত কানাডা আমার অবস্থানটা জানল!’Eprothomalo

সময়ই বলতে পারে, কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্র কোনো চুক্তিতে পৌঁছাতে পারছে কি না। বেশ কয়েকটি বড় বাধা রয়েছে। ট্রাম্পের মন্তব্য কানাডিয়ানদের খেপিয়ে তুলেছে এবং তারা প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো আমেরিকার চাপের কাছে নতিস্বীকার করুন, চায় না। 

 
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ