চোখের ড্রপ’ দিয়ে হত্যা

September 5, 2018, 7:01 AM, Hits: 546

চোখের ড্রপ’ দিয়ে হত্যা

হ-বাংলা নিউজ :  সাউথ ক্যারোলাইনায় ঘরে পড়ে ছিল ৬৪ বছরের স্টিফেন ক্লেটন নামের এক ব্যক্তির লাশ। তাঁর স্ত্রী জানান, বাড়ির হলঘরের সিঁড়ি থেকে পড়ে গিয়ে মারা যান তিনি। কিছুদিন পর বাড়ির পেছনের উঠোনে অনুষ্ঠিত হয় তাঁর স্মরণসভা। সেখানে তাঁদের মধুর দাম্পত্য জীবনের কথা সবাই স্মরণ করেছেন।

কিন্তু লাশের ময়নাতদন্তে বের হয়ে আসে ভয়ংকর এক তথ্য। স্টিফেনের খাওয়ার পানিতে ধীরে ধীরে বিষ দিয়ে তাঁকে মারা হয়েছে। তাঁর শরীরে পাওয়া গেছে টেট্রাহাইড্রোজোলিন। এই উপাদানটি পাওয়া যায় আইড্রপ ও নাকের স্প্রেতে। চিকিৎসকের পরামর্শপত্র ছাড়াই এ দুটো ওষুধ সহজেই পাওয়া যায়।

সন্দেহভাজন হিসেবে গ্রেপ্তার করা হয় তাঁর ৫২ বছর বয়সী স্ত্রী লানা ক্লেনটনকে। তাঁর ফেসবুক পেজ থেকে জানা যায়, লানা শার্লটে ইউএস ডিপার্টমেন্ট অব ভেটেরান্স অ্যাফেয়ার্সে কাজ করেন।

গত শুক্রবার ইয়র্ক কাউন্টি পুলিশ জানায়, গত ১৯ থেকে ২১ জুলাই খাবারের সঙ্গে ওই ওষুধ মিশিয়েছেন লানা। লানা স্বামীর অজান্তে এ কাজ করার কথাও স্বীকার করেন।

মার্কিন ন্যাশনাল লাইব্রেরি অব মেডিসিনের মতে, টেট্রাহাইড্রোজোলিন হৃদ্‌রোগের কারণ হতে পারে। দম বন্ধ হয়ে আসতে পারে। এমনকি মানুষ কোমায়ও চলে যেতে পারে। চোখের লালচে ভাব কমাতে ব্যবহৃত এই ওষুধের কয়েক ড্রপ গুরুতর ক্ষতিকর ঘটনা ঘটাতে পারে।

লানার বিরুদ্ধে অতীত অপরাধের কোনো রেকর্ড নেই। আইনজীবীরা এখন ২০১৬ সালের এক ঘটনাকে তদন্ত করে দেখছে। ওই সময় একদিন লানা তাঁর ঘুমন্ত স্বামীকে তির ছুড়ে আহত করেছিলেন। ঘটনার তদন্ত কর্মকর্তারা লানাকে ওই সময় কাঁদতে ও খুব বিমর্ষ দেখেছিলেন। তখন পুলিশ বলেছিলেন, এটি দুর্ঘটনাবশত হয়েছে।

তখন লানা জানান, তাঁর স্বামী তাঁকে মানসিকভাবে নির্যাতন করেন। তাঁর মানসিক অবস্থা একেক সময় একেক রকম থাকে। কখনো শারীরিকভাবে নির্যাতন করেননি। স্টিফেন ক্লেটন ফিজিক্যাল থেরাপির কোম্পানির মালিক ছিলেন।

এই দম্পতির ছিল আট বছরের সংসার।

ইয়র্ক কাউন্টি প্রোবেত কোর্ট জানান, মৃত্যুর পর স্টিফেনের সম্পত্তির মালিক হবেন লানা। তাঁদের একটি বাড়ি রয়েছে। বাড়িটি মার্কিন প্রথম প্রেসিডেন্ট জর্জ ওয়াশিংটনের বাগান বাড়ি মাউন্ট ভারননের আদলে গড়া। এর দাম আট লাখ মার্কিন ডলার।

 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ