কানাডার এডমণ্টনে সকার মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছে বাংলাদেশি কানাডিয়ান রৌদসী চৌধুরী

September 14, 2018, 12:47 PM, Hits: 195

কানাডার এডমণ্টনে সকার মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছে বাংলাদেশি কানাডিয়ান রৌদসী চৌধুরী

 সুব্রত চৌধুরী,এডমন্ট , কানাডা থেকে : কানাডার  আলবার্টা প্রদেশের রাজধানী এডমণ্টনের সকার(ফুটবল)  মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছে বাংলাদেশি কানাডিয়ান কিশোরী রৌদসী চৌধুরী।এগার বছর বয়সেই তার ফুটবলে হাতেখড়ি।২০১৭ সালে এডমণ্টনের "কমিউনিটি সকার টিম" এ খুদে সদস্যা হিসাবে যোগদানের মাধ্যমে রৌদসীর সকার মাঠে দাপিয়ে বেড়ানো শুরু।কানাডিয়ান সকার কোচের নিবিড় প্রশিক্ষণে রৌদসী নিজেকে একজন দক্ষ সকার খেলোয়াড় হিসাবে গড়ে তোলে এবং অল্প সময়ের মধ্যে  তার প্রতিভার বিকাশ ঘটে।যার ফলস্বরূপ সে  "কমিউনিটি সকার টিম" এর নিয়মিত একাদশে স্থায়ী জায়গা করে নেয়।

 ষ্ট্রাইকার পজিশনে   তার মুন্সিয়ানা বিপক্ষ রক্ষণ   শিবিরে এাসের সৃষ্টি করে,যার ফলশ্রুতিতে বিপক্ষ দল গোল বণ্যায় ভেসে যায়। তার গোল করার মুন্সিয়ানার কারনে সে "আলবার্টা প্রভিনসিয়াল সকার টুর্নামেন্ট (অনূর্ধ্ব তেরো)" এ সেরা খেলোয়াড় হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে। রৌদসী চৌধুরীর প্রিয় পজিশন  ষ্ট্রাইকার পজিশন হলেও মধ্যমাঠে খেলতেও সে  স্বাছন্দ্য বোধ করে।

  এডমণ্টনের ডি এস মেকেঞ্জি স্কুল এর অষ্টম গ্রেডের ছাএী রৌদসী স্কুল সকার দলের নিয়মিত সদস্যা হিসাবেও  যথেষ্ট  সফলতার পরিচয় দিয়েছে। বর্তমানে রৌদসী এডমণ্টনের  "সাউথ ওয়েস্ট  স্টিং"  সকার দলের নিয়মিত খেলোয়াড় হিসাবে মাঠ  দাপিয়ে বেড়াচ্ছে।

  রৌদসী চৌধুরীর জন্ম ২০০৬ সালে বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলায়।চার বছর বয়সে সে মা-বাবার সাথে কানাডাতে আসে।চাকুরিজীবি বাবা-মা  সঞ্জীব চৌধুরী ও রূপা চৌধুরীর কনিষ্ঠা কণ্যা রৌদসী চৌধুরীর স্বপ্ন ২০২৭ সালে  অনুষ্ঠেয় ফিফা  মহিলা  বিশ্বকাপে কানাডার জাতীয় মহিলা ফুটবল দলে খেলা। বাবা-মার অনুপ্রেরণায় সেই স্বপ্নকে বুকে লালন করে রৌদসী এগিয়ে চলেছে স্বপ্ন পূরনের পথে। ভবিষ্যত সাফল্যের জন্য রৌদসী চৌধুরী সবার  আশীর্বাদ প্রার্থী ।  

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ