প্রধানমন্ত্রীর জাতিসংঘে ভাষণ যুক্তরাষ্ট্র আ.লীগ ও বিএনপি’র পাল্টাপাল্টি সমাবেশ

September 28, 2018, 1:59 PM, Hits: 762

প্রধানমন্ত্রীর জাতিসংঘে ভাষণ  যুক্তরাষ্ট্র আ.লীগ ও বিএনপি’র পাল্টাপাল্টি সমাবেশ

সালাহউদ্দিন আহমেদ , নিউইয়র্ক থেকে : জাতিসংঘের ৭৩ তম সাধারণ পরিষদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাষণ ঘিরে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ ও যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি জাতিসংঘ ভবনের সামনে বৃহস্পতিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) পাল্টাপাল্টি সমাবেশ করেছে। আওয়ামী লীগ প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ-কে স্বাগত জানিয়ে ‘স্বাগত সমাবেশ’ করে এবং সরকারের পক্ষে নানা শ্লোগান দেয়। অপরদিকে বিএনপি প্রধানমন্ত্রীর জাতিসংঘে আগমনের প্রতিবাদ জানিয়ে ‘বিক্ষোভ সমাবেশ’ করে এবং দলীয় চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি আর অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন দাবী করে সরকার বিরোধী নানা শ্লোগান দেয়। কড়া পুলিশী নিরাপত্তায় অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগ-বিএনপি’র সমাবেশ থেকে পাল্টপাল্টি শ্লোগানে জাতিসংঘ ভবনের সামনে ফাস্ট এভিনিউ ও ৪৭ স্ট্রীট-এর কর্ণার মুখরিত হয়ে উঠে। বিকেল ৩টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত উভয় দলের সমাবেশ চলে। আওয়ামী লীগ আর বিএনপি’র সমাবেশ ছিলো স্মরণকালে বৃহৎ সমাবেশ। 

জাতিসংঘ ভবনের সামনে স্বাগত আর প্রতিবাদ জানাতে আসা আওয়ামী লীগ-বিএনপির সমাবেশ চলাকালীন সময় মাঝে উভয় দলের কোন কোন নেতা-কর্মীর মধ্যে কিছু সময় উতপ্ত বাক্য বিনিময়ও হয়। তারা একদল অপর দলকে আক্রমণ করে ‘গালাগালি’ করেও নানা শ্লোগান দেয়। তবে, কোন দলই পুলিশ বেস্টনীর বাইরে যেতে পারেনি। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে ভাষণ উপলক্ষে দুপুর থেকেইে ভবনটির সামনে (ফাস্ট এভিনিউ ও ৪৭ স্ট্রীট-এর কর্ণার) সমানে জড়ো হতে থাকে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’র নেতা-কর্মীরা। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের সর্বস্তরের বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী স্বাগত সমাবেশে অংশ নেন। বাংলাদেশ থেকে আগত প্রধানমন্ত্রীর সফর সঙ্গী হয়ে আসা দলীয় লোকজনও সমাবেশে অংশ নেয়। সমাবেশে দলীয় নেতা-কর্মীরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাÐ তুলে ধরে ‘শেখ হাসিনার সরকার বারবার দরকার’ সহ নানা শ্লোগান দিতে থাকে এবং পুলিশ বেষ্টনির মধ্যে থেকেই তারা খন্ড খন্ড মিছিলও বের করে। সমাবেশে আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ বলেন, সংগঠনের স্বার্থে আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ। আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে জয়ী করতে ঐক্যের বিকল্প নেই।

অপরদিকে আওয়ামী লীগের সামাবেশের ঠিক বিপরীত দিকেই কয়েক গজ দূরে অনুষ্ঠিত হয় যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির ‘বিক্ষোভ সমাবেশ’। এসময় তারাও পুলিশের নিরাপত্তা ব্যারিকেডের মধ্যে মিছিল বের করে এবং মুহু মুহু শ্লোগান দিতে থাকে। বিএনপির প্রতিবাদ সমাবেশে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সর্বস্তরের বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী ছাড়াও সংগঠনটির যুক্তরাজ্য, কানাডা, ফিনল্যান্ড ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশের একাধিক নেতাকর্মীও উপস্থিত ছিলেন। সমাবেশে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসি ও নিউইয়র্ক ছাড়াও নিউজার্সী, ম্যাচাসুয়েটস, পেনসিলনেনিয়া, কানেকটিকাট, ভার্জেনিয়া সহ বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের বিএনপির নেতা-কর্মীরা যোগ দেন। 

তবে দীর্ঘ প্রায় ৭ বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র কমিটি না থাকায় একাধিক ভাগে বিভক্ত দলীয় নেতৃবৃন্দের নেতৃত্বে নেতা-কর্মীরা একই স্থানে সমাবেশ করে। সমাবেশের একদিকে নেতৃত্ব দেন সাবেক সভাপতি আব্দুল লতিফ স¤্রাট, সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি গিয়াস আহমেদ, সাবেক সহ সভাপতি আলহাজ সোলায়মান ভ‚ইয়া, সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল পাশা প্রমুখ। অপরদিকে নেতৃত্ব দেন প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ডা. মজিবুর রহমান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান জিল্লু, সাবেক সহ সভাপতি সামসুল ইসলাম মজনু, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক হেলাল উদ্দিন, যুবদলের সভাপতি জাকির এইচ চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ অহমদ প্রমুখ। অপরাংশের নেতৃত্বে দেন সাবেক যুগ্ম আহŸায়ক ও যুক্তরাষ্ট্র জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মিজানুর রহমান ভ‚ঁইয়া। 

এছাড়াও সমাবেশের নেতৃত্ব দেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন, সাবেক কোষাধ্যক্ষ জসিম ভূইয়া, বিএনপি নেতা নিয়াজ আহমেদ জুয়েল, আনোয়ারুল ইসলাম, ফিরোজ আহমেদ প্রমুখ। 

বিএনপির সমাবেশে কেন্দ্রীয় বিএনপি’র সিনিয়র আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. এহসানুল হক মিলন, অপর আন্তর্জাতিক সম্পাদক মাহিদুল ইসলাম, সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, অপর সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ও জনপ্রিয় কন্ঠ শিল্পী বেবী নাজনীন, যুক্তরাজ্য বিএনপি’র সভাপতি এম এ মালিক প্রমুখ নেতৃবৃন্দ অংশ নেন। 

 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ