শেখ হাসিনার রাজনীতির কারিশমা।

November 11, 2018, 10:52 AM, Hits: 264

শেখ হাসিনার রাজনীতির কারিশমা।

 হ বাংলা নিউজ : আওয়ামীলীগ প্রধান শেখ হাসিনার রাজনীতিতে বিশেষ ধরনের কারিশমা রয়েছে। বাংলাদেশে একজন স্বৈর  শাসকের এত সমর্থক কখনো দেখা যায় নি। এছাড়াও ইতি মধ্যয়েই ড" কামাল হোসেনের মত  জনপ্রিয় বিরোধী জোট কেও রাজ নৈতিক

সংকটে ফেলেছেন আর তা করেছেন তাদের পছন্দ মত রাজ নৈতিক সংলাপের মাধ্যমেই। সংলাপে ফল কিছুই হয়নি কিন্তু কামাল হোসেনদের চরম সংকট তথা হাসিনার রাজনৈতিক

প্রতিপক্ষ বিএন পি  বড় ধরনের বেকায়দায় ফেলেছেন।

এখন বিএনপি কে  নির্বাচনে  জেতে হলে শেখ হাসিনার কায়দা-মতই নির্বাচনে যেতে হবে..

কারণ শেষ মেশ খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেওয়া হয়নি। আবার নির্বাচনে না যেয়ে  বিএনপির কিছু করার ও নেই। সমস্ত দল নির্বাচন-মুখি। এছাড়াও পর পর ২ বার নির্বাচনে না গেলে আইন গত সমস্যা হতে পারে। আন্তর্জাতিক ভাবে এই সংলাপ বিএনপি কে

বেকায়দায় ফেলেছে ও আওয়ামীলীগ কে সুযোগ করে দিয়েছে  এই কথা বলার যে, আওয়ামীলীগ বিএনপিকে  নির্বাচনে আসার জন্য সংলাপ করেছে ও নির্বাচনে  আসার আহবান জানিয়েছে, বিএনপি ইচ্ছা করেই নির্বাচন করে নাই। কাজেই আওয়ামীলীগের বিশেষ কিছু করার নেই।

গত ১০ বছর ক্ষমতায় থেকে এটা প্রমাণ করতে পেরেছে, তারাই এক মাত্র মুক্তি যোদ্ধার শক্তি, মুক্তিযোদ্ধাদের বেতন ভাতা বাড়িয়েছে। শেখ মুজীব হত্যার বিচার করেছে।

জামাতের প্রধান প্রধান নেতাদের ফাঁসিতে ল-টকিয়া প্রমাণ করেছে স্বাধীনতা বিরোধই শক্তিদের  ধ্বংস শেখ হাসিনা চান। অপরপক্ষে হাসিনার  প্রতিপক্ষ ধর্মীয় রাজনীতি  নিয়ে ব্যস্ত থাকা ও জামাতের সহিত জোট করার জন্য পাকিস্তানপন্থী ওল্ড রাজনীতি

করার  জন্য বি এনপি কে দায়ী করে বিরাট সংখ্যক যুবক শ্রেণীকে তার দলে টেনেছেন এই যুবক-গন মনে প্রাণেই  বিশ্বাস করেন  হাসিনার দলই এক মাত্র মুক্তিযোদ্ধার দল,

বিএনপি রাজাকার।  আওয়ামীলীগের  শেখ হাসিনা তেঁতুল হুজুর খ্যাত হজরত শফিরর  সাথে সখ্যতা করে, কওমি মাতা টাইটেল নিয়ে  ইসলাম পন্থিদের পিছনে যেয়ে বিএনপিকে

ব্যালেন্স করতে চাচ্ছেন কিন্তু নিজ দলকে বলছেন নির্বাচনের  তিনি এসব করছেন। 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ