পশ্চিমবঙ্গে চলছে গুন্ডারাজের রাজত্ব: মোদি

February 8, 2019, 9:38 AM, Hits: 78

পশ্চিমবঙ্গে চলছে গুন্ডারাজের রাজত্ব: মোদি

হ-বাংলা নিউজ : ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, পশ্চিমবঙ্গে চলছে এখন গুন্ডারাজ, দুর্নীতিবাজ সরকারের রাজত্ব। এখানে গণতন্ত্র নেই। তাই এই রাজ্যে দুর্নীতিবাজদের বাঁচাতে এত তৎপর মুখ্যমন্ত্রী মমতা।

পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ি জেলার ময়নাগুড়িতে আজ শুক্রবার বিকেলে এক জনসভায় মোদি এ কথা বলেন। ময়নাগুড়ির চূড়াভান্ডারে বিজেপি এই জনসভার আয়োজন করে।

মোদি বলেন, খুনের রাজনীতি চালিয়ে যাচ্ছেন মমতা। সিন্ডিকেট রাজত্ব কায়েম হয়েছে এই রাজ্যে। চিটফান্ডের মাধ্যমে গরিবের টাকা লুট হয়েছে। সেই লুটেরাদের বাঁচাতে এখন ধরনায় বসছেন মমতা। মোদি প্রশ্ন করেন, ‘আর কত ধরনা দেবেন দুর্নীতিবাজ আর লুটেরাদের বাঁচানোর জন্য?’ বলেন, ‘চিটফান্ড-কাণ্ডে কাউকে ছাড়া হবে না। কটা ধরনা করবেন করুন। কিন্তু লুটেরারা বাঁচতে পারবে না।’

মোদি আজ উত্তরবঙ্গের সঙ্গে তাঁর টানের কথা উল্লেখ করে বলেন, উত্তরবঙ্গের সঙ্গে আমার চায়ের সম্পর্ক। তাই চা-ওয়ালাকে এত ভয় কিসের দিদির? প্রসঙ্গত, উত্তরবঙ্গ এই রাজ্য প্রধান চায়ের জোগানদার। আজ জলপাইগুড়িতে একটি সার্কিট বেঞ্চের উদ্বোধন করে মোদি বলেন, ২০ বছর আগে এই সার্কিট বেঞ্চ গড়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়। মঞ্জুরিও পাওয়া যায়। কিন্তু গড়তে পারেনি এই বেঞ্চ।


মোদি বলেন, বাম আমলে এই রাজ্যের হাল খারাপ করা হয়েছে। তৃণমূল এসে এই হাল আরও খারাপ করে দিয়েছে। বাংলায় এখন হিংসার রাজ চলছে। বিজেপিকে সভা করতে দেওয়া হয় না। এখন বাংলার শাসন করছে জগাই আর মাধাই। তাদের বিদায় নিশ্চিত। তিনি মমতার সরকারকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘তৃণমূল হলো কমিউনিস্ট সরকার পার্ট-২।’ মোদি বলেন, ‘মমতা এখন বুঝতে পারছেন তাঁদের পায়ের তলার মাটি সরে যাচ্ছে। বিজেপির উত্থান ঘটেছে। তাই তাঁরা ভয়ে বিজেপির ওপর অত্যাচার শুরু করেছেন।’
মমতার গড়া প্রস্তাবিত মহাজোট নিয়ে কটাক্ষ করে মোদি বলেন, মহাজোট হলো মহাভেজাল। বাংলার দুর্নীতিবাজ সরকারকে আর দুর্নীতিবাজদের আড়াল করতে দেওয়া হবে না। দুর্নীতিবাজদের আর রেহাই হবে না। দুর্নীতিবাজদের হটিয়ে এই রাজ্যে বিজেপিকে ক্ষমতায় আনতে হবে। ত্রিপুরার লালঝান্ডা নামিয়েছিল বিজেপি। এবার পালা এই বাংলা। এখানেই উড়বে বিজেপির পতাকা। বলেছেন, তৃণমূল বাংলার মাটির বদনাম করেছে। এবার বাংলার মানুষ সেই বদনাম ঘুচিয়ে এখানে বিজেপির পতাকা ওড়াবে। 

 
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ