দেশে দেশে ঘুরবে ‘যদি একদিন’

March 10, 2019, 9:52 AM, Hits: 69

দেশে দেশে ঘুরবে ‘যদি একদিন’

হ-বাংলা নিউজ : এবার দেশ থেকে দেশে ঘুরবে সদ্য মুক্তি পাওয়া সিনেমা ‘যদি একদিন’। মুক্তির তিন দিনের মাথায় দেশের বাইরের বাঙালি দর্শকদের জন্য এমন সুখবর দিলেন পরিচালক মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ। জানালেন, বাংলাদেশের পর এ মাসেই কানাডা আর অস্ট্রেলিয়াতে মুক্তি পাচ্ছে ‘যদি একদিন’। আজ রোববার দুপুরে প্রথম আলোর সঙ্গে আলাপে তেমনটাই জানালেন। প্রেক্ষাগৃহে বসে দেশের বাইরের দর্শকদের সঙ্গে ছবিটি দেখার জন্য পরিচালক মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ, প্রযোজক সৈয়দ আশিক রহমান এবং ছবির দুই অভিনয়শিল্পী তাহসান খান, তাসকিন যাচ্ছেন সেখানে।

গত শুক্রবার ঢাকাসহ দেশের ২২টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পরিচালিত ‘যদি একদিন’। ছবির মুক্তি উপলক্ষে সেদিন সকালে কলকাতা থেকে ঢাকায় আসেন নায়িকা শ্রাবন্তী। পরদিন প্রেক্ষাগৃহে দর্শকের সঙ্গে বসে ছবিটি উপভোগ করেন তিনি। দর্শকের ভালোবাসায় মুগ্ধ হয়েছেন। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় তিনি কলকাতায় চলে যান। ছবির অন্য অভিনয়শিল্পীরা হলেন তাহসান, তাসকিন, সাবেরী আলম, রানী আহাদ, ফখরুল বাশার মাসুম, রাইসা, মিলি বাশার, আনন্দ খালেদ প্রমুখ। গানে কণ্ঠ দিয়েছেন তাহসান, হৃদয় খান, কোনাল, ইমরান, পড়শি, ফাহাদ ও আনিসা। ছবির আবহসংগীত করেছেন নাভেদ পারভেজ। গানের সংগীত পরিচালনা করেছেন ইমরান ও নাভেদ পারভেজ।

মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ বলেন, ‘এ মাসেই আমরা ছবিটি নিয়ে দেশের বাইরের দর্শকের মুখোমুখি হতে যাচ্ছি। দুটি দেশ থেকে ছবিটি প্রদর্শনের ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। সবকিছু ব্যাটে-বলে মিলে যাওয়ায় আমরাও রাজি হয়েছি। আমার বিশ্বাস, ছবিটি দেশের দর্শকদের ভালোবাসা যেমন আদায় করেছে, বাইরেও প্রশংসিত হবে। আমরা একটি সুন্দর গল্পের সিনেমার বানানোর চেষ্টা করেছি।’

পরিচালক জানান, আগামী এপ্রিল মাসে পর্যায়ক্রমে আরও পাঁচটি দেশে ‘যদি একদিন’ মুক্তি পাবে। এখন পর্যন্ত যেসব দেশের সঙ্গে পরিচালক ও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের আলাপ হয়েছে, সেসব দেশ হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, ইতালি, আয়ার‌ল্যান্ড ও আরব আমিরাত।

কানাডায় এই ছবির পরিবেশনা করছেন স্বপ্ন স্কেয়ারক্রো, যুক্তরাষ্ট্রে রাজ হামিদ, অস্ট্রেলিয়ায় তানিম আল মানান। মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ বলেন, ‘আমি সবার জন্য ছবিটি বানিয়েছি। ছবির গল্প বাবা-মেয়েকে ঘিরে। এমন বাবা-মেয়ে তো বাংলাদেশের সব ঘরে আছে। এখন পর্যন্ত অনেক বাবা-মায়ের প্রতিক্রিয়া পেয়েছি। আমি মুগ্ধ হয়েছি। আশা করছি, দেশের বাইরের বাবা-মায়েরাও ছবিটি দেখে এমন প্রতিক্রিয়াই জানাবেন। অপেক্ষায় আছি। আমাদের দেশে এখনো সিনেমা মানেই নাচ-গানে ভরপুর আর মারামারি। কিন্তু সবাই গল্পের পেছনে ছুটছে। আমার এই ছবির নায়ক গল্প। সারা দেশের মানুষই এই ছবির দর্শক।’
 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ