নোবেল পুরস্কার তালিকায় ইমরান!

March 11, 2019, 11:50 AM, Hits: 270

নোবেল পুরস্কার তালিকায় ইমরান!

হ-বাংলা নিউজ : পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে যুক্তরাষ্ট্রের একটি সংবাদপত্র নোবেল শান্তি পুরস্কারের প্রাথমিক তালিকায় জায়গা দিয়েছে বলে জানিয়েছে পাকিস্তানের গণমাধ্যম। ইমরানকে তালিকাভুক্ত করা মার্কিন ওই সংবাদপত্রটির নাম ‘দ্য ক্রিশ্চিয়ান সায়েন্স মনিটর’।

পাকিস্তানের জিয়ো নিউজের এক খবরে বলা হয়েছে, ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পর ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার চলমান উত্তেজনা নিরসনে ভূমিকার কারণেই মূলত নোবেল শান্তি পুরস্কারের প্রাথমিক তালিকায় ইমরান খানকে জায়গা দেওয়া হয়েছে। ইমরানের পাশাপাশি উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যকার শান্তি আলোচনার পদক্ষেপ নেওয়ায় দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জে ইনকেও তালিকায় জায়গা দেওয়া হয়েছে। ওই তালিকায় আরও আছেন ইথিওপিয়া ও ইরিত্রিয়ার মধ্যে চুক্তি সম্পাদনে মূল ভূমিকা রাখা ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবিই আহমেদ এবং ভেনেজুয়েলার বিরোধীদলীয় নেতা জুয়ান গুয়াইদো।

‘দ্য ক্রিশ্চিয়ান সায়েন্স মনিটর’-এর বরাত দিয়ে জিয়ো নিউজের খবরে বলা হয়েছে, শান্তিপূর্ণ নেতৃত্বের ক্ষেত্রে সম্ভবত সবচেয়ে বড় বিস্ময় এবং বিশ্বের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলেন ইমরান খান।

ভারত ও পাকিস্তান দুই দেশের সর্বশেষ সংকটের শুরু ১৪ ফেব্রুয়ারি। ওই দিন ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় দেশটির আধা সামরিক সিআরপিএফের গাড়িবহরে আত্মঘাতী হামলায় ৪০ জনের বেশি জওয়ান নিহত হন। পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মুহাম্মদ এ হামলার দায় স্বীকার করে। এ ঘটনার ১২ দিন পর ২৬ ফেব্রুয়ারি ভোরে পাকিস্তাননিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বালাকোটে বিমান হামলা চালায় ভারত। নয়াদিল্লির দাবি, ওই হামলায় পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি গোষ্ঠী জইশ-ই-মুহাম্মদের বড় ঘাঁটি গুঁড়িয়ে গেছে। নিহত হয়েছে ৩০০ জঙ্গি। জঙ্গি ঘাঁটিতে আকাশপথে মিরাজ-২০০০ যুদ্ধবিমান দিয়ে হামলা চালায় ভারতীয় বিমানবাহিনী। কিন্তু ওই হামলায় এখন পর্যন্ত মাত্র একজনের আহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে বলে দাবি হামলাস্থল পাকিস্তানশাসিত কাশ্মীরের বালাকোটের বাসিন্দাদের। এরপরই প্রতিবেশী দেশ দুটির মধ্যে চরম উত্তেজনা চলছে। পাকিস্তানের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, জঙ্গিদের লাশ কই। তবে ইতালির এক সাংবাদিক দাবি করেছেন, ভারতের আঘাত হানা জায়গা থেকে কয়েকটি দেহ সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এদিকে সেই হামলার পরদিনই ভারতের আকাশসীমায় ঢুকে পড়ে পাকিস্তানের একাধিক যুদ্ধবিমান। তার মধ্যে ছিল এফ-১৬ যুদ্ধবিমান। পরে ভারতের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এ দেশের সৈন্য ঘাঁটিই ছিল পাকিস্তানের আক্রমণের লক্ষ্য। কিন্তু তা অস্বীকার করেছে পাকিস্তান।

ভারতীয় যুদ্ধবিমানের একজন পাইলটকে আটকের দাবি করে তাঁর ভিডিও প্রকাশ করেছে পাকিস্তান। যদিও কিছুক্ষণ পরই সেই ভিডিও মুছে ফেলা হয়েছে। সেই ভিডিওতে একজন ব্যক্তিকে চোখ বাঁধা অবস্থায় দেখা যায়। ভারতের পক্ষ থেকে একজন পাইলট নিখোঁজ হওয়ার কথা স্বীকার করা হয়েছে। ভারতের দুটি বিমান ভূপাতিত করে পাকিস্তান, আটক করে ভারতীয় পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে। আর তাঁকে ফেরত দিয়ে ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হন ক্রিকেটার থেকে প্রধানমন্ত্রী হওয়া ইমরান খান। 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ