পাকিস্তান বিশ্বকাপের দ্বিতীয় কিংবা তৃতীয় ফেবারিট!

April 14, 2019, 9:50 AM, Hits: 69

পাকিস্তান বিশ্বকাপের দ্বিতীয় কিংবা তৃতীয় ফেবারিট!

হ-বাংলা নিউজ : পাকিস্তানকে এবারের বিশ্বকাপের অন্যতম ফেবারিট দল বলছেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক এউইন মরগান।

এবারের বিশ্বকাপ ক্রিকেটে অন্যতম ফেবারিট পাকিস্তান। কথাটা যিনিই বলছেন, তাঁর দিকে অনেকে বাঁকা চোখে তাকাচ্ছেন। মাত্রই যে কদিন আগে হোম সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৫-০তে হারল পাকিস্তান! কিন্তু এবারের মন্তব্যটি খোদ ইংল্যান্ড অধিনায়ক এউইন মরগানের। ২০১৭ সালে অনেকের হিসাব এলোমেলো করে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জিতেছিল পাকিস্তান। সেই স্মৃতি মাথায় রেখে মরগান বলছেন, এবারের বিশ্বকাপে পাকিস্তান প্রধান ফেবারিট যদি না–ও হয়, দ্বিতীয় কি তৃতীয় ফেবারিট হিসেবে তাদের নাম লিখতেই হবে।

বিশ্বকাপের আগেই পাকিস্তানের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের একটি ওয়ানডে সিরিজ খেলবে ইংলিশরা। এর আগে ৫ মে দুদল একমাত্র টি-টোয়েন্টিটা খেলবে। তারপর ৫ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শেষেই বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচ। এরপর তো মে মাসের শেষে বিশ্বকাপ।

বড় পরীক্ষায় নামার আগে সিরিজটিকে স্বাগতই জানাচ্ছেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক, ‘এই সিরিজটা বিশ্বকাপের মহাযজ্ঞে প্রবেশের দারুণ একটা পথ। আশা করছি খুব ভালো আর প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ক্রিকেট হবে এখানে। পাকিস্তান সম্ভবত এবারের বিশ্বকাপের দ্বিতীয় কিংবা তৃতীয় ফেবারিট। ওরা চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জিতেছিল, ওই টুর্নামেন্ট জেতার পথে ইংল্যান্ডের মাটিতেই দারুণ খেলেছিল। তাই ওদের বিপক্ষে এই সিরিজের জন্য আমরা সবাই মুখিয়ে আছি।’

পাকিস্তান যদি দ্বিতীয় বা তৃতীয় ফেবারিট হয়, তাহলে প্রথম ফেবারিট কারা? এই প্রশ্ন স্বাভাবিকভাবেই ওঠে। প্রথম ফেবারিটের নাম মরগান বলেননি। তবে আকারে-ইঙ্গিতে নিজেদের কথাই বুঝিয়ে দিয়েছেন। ক্রিকেটবোদ্ধারাও বলছেন, এবার ইংল্যান্ডের প্রথম বিশ্বকাপ জেতার সুবর্ণ সুযোগ। দলটাও তো দুর্দান্ত।

আইসিসি ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়েও ইংল্যান্ডের অবস্থান শীর্ষে। ২০১৫ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের কাছে হারের পর ছিটকে গিয়েছিল ইংল্যান্ড। তখন থেকেই এই বিশ্বকাপ চোখে রেখে দল গোছানোর শুরু। তবে এই বিরাট পালাবদলে অধিনায়ক কিন্তু অভিন্নই রেখেছে তারা। গত বিশ্বকাপের পর থেকে ওয়ানডে দলটাতেও খুব বেশি পরিবর্তন আসেনি। মরগান এটাকেই নিজেদের শক্তি বলে মানছেন, ‘চার বছর ধরে আমরা একসঙ্গে খেলছি। আজকে আমাদের দলের এই অবস্থানে আসার পেছনে অনেকেরই গুরুত্বপূর্ণ অবদান আছে। এই মুহূর্তে চাইলে আমরা ১৮ কিংবা ১৯ জনের একটা স্কোয়াড বানাতে পারব, যারা প্রত্যেকে ১৫ জনের চূড়ান্ত স্কোয়াডে জায়গা পাওয়ার দাবিদার। পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজটার একটা বড় সুবিধা হবে, বিশ্বকাপে নিজেদের জায়গা আরও পাকা করার সুযোগ পাবে অনেকে।’ 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ