বিনা ভোটে ময়মনসিংহ সিটি মেয়র আ.লীগের টিটু

April 17, 2019, 9:11 AM, Hits: 120

বিনা ভোটে ময়মনসিংহ সিটি মেয়র আ.লীগের টিটু

হ-বাংলা নিউজ : ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনে প্রথম মেয়র বিনা ভোটে নির্বাচিত হলেন। জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রার্থী শেষ পর্যন্ত মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেওয়ায় একমাত্র প্রার্থী আওয়ামী লীগের প্রার্থী ইকরামুল হক টিটু। রিটানিং কর্মকর্তা ময়মনসিংহ সিটির প্রথম মেয়র হিসেবে বুধবার তাঁর নাম ঘোষণা করেন।

কয়েক দিন ধরে ময়মনসিংহের রাজনৈতিক অঙ্গন ও সাধারণ মানুষের ধারণা ছিল, জাপা প্রার্থী শেষ পর্যন্ত মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেবেন। তাতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র নির্বাচিত হবেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী ইকরামুল হক। বুধবার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে জাপা প্রার্থী জাহাঙ্গীর আহমেদ নিজের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন। তখন মেয়র পদে একমাত্র প্রার্থী আওয়ামী লীগের ইকরামুল হক টিটুকে নির্বাচিত ঘোষণা করেন ময়মনসিংহের রিটার্নিং কর্মকর্তা।

ময়মনসিংহের রিটার্নিং কর্মকর্তা আলীমুজ্জামান বলেন, ‘আইন অনুযায়ী ইকরামুল হককে নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়েছে।’

মেয়র পদে আবু মো. মুসা সরকার, বিশ্বজিৎ ভাদুড়ী ও শহিদুল ইসলাম স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। মনোনয়নপত্রে সমর্থকদের তথ্য নিয়ে ত্রুটি থাকায় ১০ এপ্রিল রিটার্নিং কর্মকর্তা তাঁদের মনোনয়নপত্র বাতিল করেন।

স্বতন্ত্র তিনজন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ার পর থেকেই ময়মনসিংহ সিটিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র নির্বাচিত হওয়ার বিষয়ে গুঞ্জন শুরু হয়। স্থানীয় রাজনীতিক, সুধীজন ও সাধারণ মানুষের ধারণা ছিল, সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও জাপা জোটবদ্ধ হয়ে নির্বাচন করায় সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ওই দুই দল পরস্পরের প্রতিদ্বন্দ্বী হবে না।

জাপার একাধিক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, জাহাঙ্গীর আহমেদ মেয়র পদে নির্বাচনে শেষ পর্যন্ত থাকবেন না, এমনটা তাঁরা আগেই অনুমান করতে পেরেছেন। নির্বাচন বিষয়ে জাপার কেন্দ্রীয় নেতারা কেউ কোনো নির্দেশনা দেননি।

গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের ঘোষণা দেওয়ার সময় জাহাঙ্গীর আহমেদ দুই দলের জোটের কারণে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের কথা জানান। তিনি বলেন, দুই দলের জোট দেশের উন্নয়নে একসঙ্গে কাজ করছে। একই ধারাবাহিকতায় ময়মনসিংহ সিটিতে তিনি ইকরামুল হককে সমর্থন দেন।

গতকালের জাপার কর্মিসভায় আমন্ত্রিত হয়ে যান ইকরামুল হকসহ আওয়ামী লীগের নেতারা। সেখানে ইকরামুল হক বলেন, ময়মনসিংহের উন্নয়নে তিনি নিবেদিত হয়ে কাজ করবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন বাস্তবায়নের কর্মী হিসেবে তিনি কাজ করতে চান।

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার পথে ইকরামুল হককে গতকাল দিনভর অভিনন্দন জানান ময়মনসিংহের বিভিন্ন শ্রেণি–পেশার মানুষ। তাঁরা ফুল দিয়ে ইকরামুল হককে অভিনন্দন জানান। এ ছাড়া গতকাল বিকেল থেকে হাজারো মানুষ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইকরামুলকে অভিনন্দন জানান।

আগামী ৫ মে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মেয়র পদে নির্বাচন না হলেও ৩৩টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর এবং ১১টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে মহিলা কাউন্সিলর পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। 

 
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ