খুলে দেওয়া হলো লাইফ সাপোর্ট

May 3, 2019, 4:58 AM, Hits: 495

খুলে দেওয়া হলো লাইফ সাপোর্ট

হ-বাংলা নিউজ : বরেণ্য অভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামানের শারীরিক অবস্থার এখন উন্নতি হচ্ছে। আজ শুক্রবার সকাল ১১টায় চিকিৎসকেরা তাঁর লাইফ সাপোর্ট খুলে দিয়েছেন। তিনি এখন স্বাভাবিকভাবে নিশ্বাস নিতে পারছেন। তাঁকে স্বাভাবিক খাবার দেওয়া হবে। তবে চিকিৎসকেরা তাঁকে আগামী ২৪ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণ করবেন। প্রথম আলোকে তেমনটাই জানালেন তাঁর মেজো মেয়ে কোয়েল আহমেদ।

হাসপাতালে এ টি এম শামসুজ্জামানকে দেখে এসে পরিচালক এস এ হক অলীক বলেছেন, ‘তিনি আমাকে দেখে হাসলেন, কথা বললেন। সবার কাছে দোয়া চাইলেন।’

গতকাল বৃহস্পতিবার শোনা গেছে, উন্নত চিকিৎসার জন্য এ টি এম শামসুজ্জামানকে দেশের বাইরে নিয়ে যাওয়ার কথা ভাবছেন তাঁর পরিবারের সদস্যরা। এ ব্যাপারে কোয়েল আহমেদ বলেন, ‘মনে হচ্ছে তার প্রয়োজন হবে না। কারণ, বাবার এখানেই ভালো চিকিৎসা হচ্ছে। আর চিকিৎসায় তিনি সাড়া দিচ্ছেন। তাঁর অবস্থার উন্নতি হয়েছে।’

এ টি এম শামসুজ্জামান রাজধানীর আসগর আলী হাসপাতালে অধ্যাপক রাকিব উদ্দিনের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন। গতকাল চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, লাইফ সাপোর্টে থাকা এ টি এম শামসুজ্জামানের শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। রক্তচাপ স্বাভাবিক রাখার জন্য ওষুধের পরিমাণও কমিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আগেই জানানো হয়েছে, আসগর আলী হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি করা হয়েছে এ টি এম শামসুজ্জামানকে। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে গত মঙ্গলবার দুপুরে তাঁকে লাইফ সাপোর্ট দেওয়া হয়।

কোয়েল আহমেদ বলেন, ‘২৭ এপ্রিল বাবার শরীরে একটা অস্ত্রোপচার করা হয়। যদিও সফলভাবে অস্ত্রোপচার হয়, তারপরও বয়সের কারণে বাবার শরীরে আরও কিছু সমস্যা দেখা হয়। ফুসফুসে সংক্রমণ দেখা দেওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়। ফুসফুসকে সুরক্ষা দিতে বাবাকে লাইফ সাপোর্ট দেওয়া হয়েছে। বাবার কিডনি ও লিভারের অবস্থা বেশ ভালো। সবার কাছে বাবার জন্য দোয়া চাই।’

৭৮ বছর বয়সী এ টি এম শামসুজ্জামান গত শুক্রবার রাতে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাঁর খুব শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। সেদিন রাত ১১টার দিকে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত শনিবার দুপুরে তিন ঘণ্টার অস্ত্রোপচার শেষে পর্যবেক্ষণে রাখা হয় এ টি এম শামসুজ্জামানকে।

দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যের কারণে অভিনয় থেকে দূরে থাকলেও মাঝেমধ্যেই শখের বশে অভিনয় করতে দেখা গেছে এ টি এম শামসুজ্জামানকে। তাঁর অভিনীত ‘আলফা’ ছবিটি সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে। নাসির উদ্দীন ইউসুফ পরিচালিত ছবিটি ২৬ এপ্রিল দেশের চারটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়।

এ টি এম শামসুজ্জামান বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা, পরিচালক, কাহিনিকার, চিত্রনাট্যকার, সংলাপ লেখক ও গল্পকার। অভিনয়ের জন্য কয়েকবার পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। শিল্পকলায় অবদানের জন্য তিনি ২০১৫ সালে একুশে পদক পেয়েছেন। 

 
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ