ডিসিআই-আরএসসি ও ফারাজ হোসেন ফাউন্ডেশন যৌথভাবে জলঢাকার নীলফামারীতে ”ফ্রি আই স্ক্রীনিং ক্যাম্প” এর আয়োজন করে।

June 25, 2019, 10:50 AM, Hits: 366

ডিসিআই-আরএসসি ও ফারাজ হোসেন ফাউন্ডেশন যৌথভাবে জলঢাকার নীলফামারীতে ”ফ্রি আই স্ক্রীনিং ক্যাম্প” এর আয়োজন করে।

সালমা কাদির, হ-বাংলা নিউজ : আমরা অত্যন্ত আনন্দের সাথে জানাচ্ছি যে, ডিসিআই, আরএসসি ও ফারাজ হোসেন ফাউন্ডেশন যৌথভাবে সমগ্র বাংলাদেশ ব্যাপি বিনামূল্যে আই স্ক্রীনিং ক্যাম্পের আয়োজন করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় জুন ২৫, ২০১৯ তারিখে জলঢাকার গাবরোল সিদ্দিকীয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়- এ একটি বিনামূল্যে আই স্ক্রীনিং ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়। উক্ত ক্যাম্পের উদ্দেশ্য ছিল, যে সকল সুবিধাবি ত মানুষ অর্থের অভাবে চোখের ছানি অপারেশন, ঔষধ বা চশমার খরচ বহন করতে অক্ষম তাদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা, যাতে কোন মানুষই অন্ধ হয়ে না যায়।

উক্ত ক্যাম্পে মোট ৮৮৯ জন অসহায় মানুষ চক্ষু সেবা গ্রহণ করেন। তাদের মধ্যে ১৫৪ জন ছানি রোগী, ৩০০ জন চশমার রোগী সনাক্ত করা হয়।  উক্ত ক্যাম্পে মোট ২১৫ জন রোগীকে চশমা প্রদান করা হয় ও অবশিষ্ট রোগীদের আগামী ২ জুলাই গাবরোল সিদ্দিকীয়া স্কুলে চশমা প্রদান করা হবে। ৬৮০ জন রোগীকে ঔষধ প্রদান করা হয় ও ছানি রোগীদের আগামীকাল মরিয়ম চক্ষু হাসপাতাল নিয়ে অপারেশন করা হবে। 

উক্ত আই স্ক্রীনিং ক্যাম্পটি প্রয়াত ফারাজ আয়াজ হোসেন এর স্বরণে আয়োজন করা হয়। ফারাজ মানবতার জন্য যে অসম্ভব সাহস ও সর্বোচ্চ আতহুতি দিয়েছেন তা আজ বিশ্ববাসীর জন্য এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। পহেলা জুলাই ২০১৬ সালে হোলিআর্টিজান বেকারীতে সন্ত্রাসী আক্রমণের সময় বাংলাদেশী মুসলমান হিসেবে ফারাজকে চলে যাওয়ার জন্যে বল্লেও তিনি তার বন্ধুদের জন্য তা প্রত্যাখ্যান করেন এবং চরম আত্মাহুতি প্রদানের মাধ্যমে সাহসীকতা, মানবতা ও বন্ধুত্বের এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করে গেছেন। আরএসসি ও ডিসিআই এই মূল্যবোধ সারা বিশ্বের যুব সম্প্রদায় এর মধ্যে বিভিন্ন কার্যক্রমের মাধ্যমে প্রতিফলিত করতে চায়।

ডিসিআই এর প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক ডা. এহসান হক এক শুভেচ্ছা বার্তায় ক্যাম্পের সফলতা কামনা করে বলেন, “ফারাজের স্বরনে চক্ষু ক্যাম্পের উদ্দেশ্য হলো- হতভাগ্য-সুবিধাবি ত মানুষের চোখে দৃষ্টি ফেরানো এবং তাদের মাঝে নতুন ভাবে আশা জাগানো। আমি নিজে একজন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মানুষ হিসাবে বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকে বুঝতে পারি যে, অন্ধত্ব দূর করা কতটা প্রয়োজন এবং দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ও অন্যান্য প্রতিবন্ধীদের সহযোগিতা করা কতটা জরুরী। এটা আমাদের সবোর্চ্চ প্রতিজ্ঞা, যে সকল দরিদ্র মানুষ আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারণে ডাক্তারের নিকট গিয়ে চিকিৎসা নিতে অক্ষম তাদের সেবা প্রদান করা আমাদের সর্বোচ্চ প্রতিজ্ঞা। আমরা অন্ধত্ব দুর করে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মানুষকে সেবা প্রদানের জন্য বদ্ধ পরিকর”।   

জনাব , জেড এ সিদ্দিকী, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা, জলঢাকা, নীলফামারি উক্ত ফ্রি আই স্ক্রীনিং ক্যাম্পে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। তিনি ফিতা কেটে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষনা করেন। উক্ত অনুষ্ঠানে জনাব রেজাউল হক বাবু, ইউপি চেয়ারম্যান, কৈমারি ইউনিয়ন ও মোসাঃ রওশন আরা আক্তার উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও জনাব মোঃ আমিনুর রহমান; জনাব মোঃ আনিসুর রহমান; জনাব মোঃ মশফিকুর রহমান, জনাব মোঃ জান্নাতুল ফেরদাউস, ডালিম চন্দ্র রায়, ইউপি সদস্য সহ ন্থানীয় গণ্য-মান্য ব্যাক্তিবর্গ উক্ত ক্যাম্পে উপস্থিত ছিলেন। জনাব জামাল নাসের রোমেল, প্রোগ্রাম ম্যানেজার, আরএসসি; জনাব হুমায়ন কবীর, প্রোগ্রাম ডেভলপমেন্ট অফিসার আরএসসি, জনাব মোঃ গোলাম কিবরিয়া, এরিয়া ম্যানেজার, নীলফামারি, আরএসসি কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত থেকে উক্ত ক্যাম্প পরিচালনা করেন। এছাড়াও জনাব তাহ্মিদ ইবনে মাজহার ফারাজ হোসেন ফাউন্ডেশনের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন। উক্ত ফ্রি আই স্ক্রীনিং ক্যাম্পে আরএসসি এর অন্যান্য কর্মকর্তা সহ অত্র এলাকার বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত থেকে সহায়তা প্রদান করেন।

মরিয়ম চক্ষু হাসপাতালের একদল অভিজ্ঞ ডাক্তার উক্ত ক্যাম্পে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন।

 

 
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ