ভারতের হয়ে শেষ ম্যাচটা খেলে ফেললেন ধোনি?

July 10, 2019, 2:23 PM, Hits: 63

ভারতের হয়ে শেষ ম্যাচটা খেলে ফেললেন ধোনি?

হ-বাংলা নিউজ : দীর্ঘদিন ধরে ভারতীয় ক্রিকেটের মহিরুহ হয়ে আছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। কিন্তু সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের কাছে ভারতের হারের পর প্রশ্ন উঠেছে, এবার কি তবে অবসরে যাচ্ছেন বিশ্বকাপজয়ী সাবেক এ ভারতীয় অধিনায়ক?

২০০৪ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে অভিষেক তাঁর। অভিষেকটা হয়েছিল দুঃস্বপ্নের মতো, এক বল খেলে কোনো রান করার আগেই ফিরেছিলেন রান আউট হয়ে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেমিফাইনালেও হলেন রান আউট। এ দুটি আউটের মধ্যে যোগসূত্র খুঁজে পাচ্ছেন অনেকে। ক্যারিয়ারের শুরু এবং ‘শেষ’—দুটি ম্যাচেই তাহলে রান আউট হতে হলো মহেন্দ্র সিং ধোনিকে?

ধোনির অবসরের ঘোষণা এখনো আসেনি। ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলিও বলেছেন, ‘অবসরের ব্যাপারে ধোনি এখনো কিছু জানাননি তাঁদের।’ কিন্তু ভারত সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নেওয়ার পর প্রশ্নটা বেশ জোরেশোরেই উঠেছে, বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচটা কি তবে খেলে ফেললেন ভারতের ইতিহাসে সেরা এ ফিনিশার?

ধোনি দেশের হয়ে জেতেননি, এমন কোনো শিরোপা নেই। ২০০৭ সালে প্রথমবারের মতো অধিনায়কত্বের দায়িত্ব পেয়েই ভারতকে জেতালেন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। তাঁর অধীনেই ভারত টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে উঠেছে, ২০১৩ সালে এই ইংল্যান্ডেই অধিনায়ক হিসেবে জিতেছিলেন চ্যাম্পিয়নস ট্রফি। তবে ধোনির সবচেয়ে বড় অর্জন নিঃসন্দেহে ২০১১ বিশ্বকাপে ভারতকে শিরোপা জেতানো। ২৮ বছরের শিরোপা-খরা যে ঘুচেছিল তাঁরই নেতৃত্বে! নুয়ান কুলাসেকারাকে বিশাল ছয় হাঁকিয়ে ফাইনাল জেতাচ্ছেন ধোনি, দৃশ্যটা ভারতীয় ক্রিকেটে অমর ছবি।

ধোনির সামনে সুযোগ ছিল আরও একবার দলকে ফাইনালে তোলার। উইকেটে যখন এলেন, ভারতের রান তখন ৫ উইকেটে ৭১। কঠিন পরিস্থিতি সন্দেহ নেই, কিন্তু এমন অবস্থা থেকেও বহুবার দলকে জয় এনে দিয়েছেন বলেই তো ধোনি! পরিসংখ্যান বলছে, ভারত রান তাড়া করছে এমন ম্যাচে ধোনি শেষ পর্যন্ত উইকেটে ছিলেন, এমন ঘটনা ঘটেছে ৫১ বার। এর মধ্যে ৪৭ বারই দলকে জিতিয়ে ফিরেছেন তিনি, হেরেছেন মাত্র দুইবার! রান তাড়া করা ইনিংসে ধোনির গড় প্রায় ১০০! ধোনিকে কেন ইতিহাসেরই অন্যতম সেরা ফিনিশার বলা হয়, তার সামান্য কিছু সাক্ষ্যই বোধ হয় দেবে এসব পরিসংখ্যান।

কিন্তু ৩৭ বছরের ধোনি কি আর সেই আগের ধোনি আছেন? বয়সের সঙ্গে সঙ্গে কিছুটা হলেও কমেছে ব্যাটিংয়ের ধার, আগের মতো যেন বাউন্ডারিও মারতে পারছিলেন না ইদানীং। তবুও ধোনি উইকেটে ছিলেন বলেই আশায় বুক বেঁধেছিলেন ভারতীয় সমর্থকেরা। পারলে তো এই ধোনিই পারবেন! কিন্তু এবার আর পারেননি। ৫০ রানে যখন রানআউট হলেন, ভারতের ফাইনালে ওঠার স্বপ্নও যেন ধোনির সঙ্গী হয়ে ফিরে চলল ভারতীয় ড্রেসিংরুমে।

ম্যাচ শেষে প্রশ্ন উঠেছে, ভারতের জার্সি গায়ে কি এটিই ধোনির শেষ ফেরা? বিশ্বকাপের পরপরই অবসরে যেতে পারেন, এমন গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল বিশ্বকাপের আগে থেকেই। কিন্তু ভারতের বিদায়ের পরও এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানাননি ধোনি। তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিও থেকে ভক্ত-সমর্থকেরা অনুমান করে নিচ্ছেন, ভারতের হয়ে শেষ ম্যাচটি খেলে ফেললেন ধোনি।

মার্টিন গাপটিলের সরাসরি থ্রোতে রান আউট হয়ে যখন ফিরছেন ধোনি, জয় থেকে ভারত তখনো ২৪ রান দূরে। এর আগে ফিরে গেছেন রবীন্দ্র জাদেজাও। ধোনি যেন তখনই বুঝে গিয়েছিলেন, এ ম্যাচ আর জেতা হবে না ভারতের। আর ভারতের বিদায় মানে তো তাঁর নিজেরও বিদায়! সেটি মনে হতেই কি না, নিজের অজান্তেই চোখের কোণে কি কিছুটা হলেও জল চলে এল তাঁর? ধোনিকে এমন অবস্থায় দেখে আবেগ সামলাতে পারেননি অনেক ভারতীয় সমর্থকই। একজন ভারতীয় সমর্থক টুইটারে লিখেছেন, ‘গত এক মাস ধরে আমি ধোনির সমালোচনা করে আসছি। কিন্তু আমি তাঁকে কাঁদতে দেখতে পারছি না। ২০১১ সাল থেকে তিনি আমার অনুপ্রেরণা। আমি কিছুতেই তাঁকে কাঁদতে দেখতে পারছি না।’ ধোনির কান্নার সেই ভিডিও শেয়ার করে অনেকেই ধোনির প্রতি নিজেদের ভালোবাসা জানিয়েছেন।

তবে কি সত্যিই এবার ভারতীয় ক্রিকেটে ধোনি অধ্যায়ের শেষ হতে চলেছে? উত্তরটা বোধ হয় ধোনিই সবচেয়ে ভালো জানেন। 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ