‘মিসেস বাংলাদেশ’ অবণী

September 22, 2019, 1:21 PM, Hits: 177

‘মিসেস বাংলাদেশ’ অবণী

হ-বাংলা নিউজ : বিবাহিত নারীদের নিয়ে সুন্দরী প্রতিযোগিতায় যুক্ত হলো বাংলাদেশ। খুঁজে বের করা হলো বাংলাদেশের বিবাহিত সেরা সুন্দরীকে। আয়োজন করে তাঁর মাথায় পরিয়ে দেওয়া হলো বিজয়ীর মুকুট। সেই ‘মিসেস বাংলাদেশ’ হয়েছেন মডেল ও তরুণ সমাজকর্মী মুনজারিন মাহবুব অবণী। পুরস্কার হিসেবে তিনি পেয়েছেন এক লাখ টাকা।

গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় গুলশান ক্লাবে ছিল প্রথমবারের মতো আয়োজিত ‘বায়োজিন কসমেসিউটিক্যালস মিসেস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৯’ সুন্দরী প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত অনুষ্ঠান। এতে প্রথম রানারআপ হয়েছেন রাবেয়া সুলতানা রবি আর দ্বিতীয় রানারআপ মাটি সিদ্দিকী। সারা বাংলাদেশ থেকে দুই সহস্রাধিক বিবাহিত নারীর মধ্য থেকে যাচাই-বাছাই করে মেধা ও সৌন্দর্যের ভিত্তিতে বের করে নেওয়া হয় সেরা প্রতিযোগীদের। প্রাথমিক নির্বাচন ও পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন রাউন্ডের অডিশন, গ্রুমিং এবং মোটিভেশনাল সেশনের মাধ্যমে নির্বাচন করা হয় সেরা ১০ প্রতিযোগী।

‘মিসেস বাংলাদেশ’ মুনজারিন মাহবুব অবণী উচ্ছ্বসিত। প্রথম আলোকে তিনি বলেন, ‘যেহেতু দেশে প্রথমবারের মতো বিবাহিত নারীদের নিয়ে বিউটি প্যাজেন্ট অনুষ্ঠিত হলো, আর সেখানে আমি চ্যাম্পিয়ন হলাম, এটা আমার জন্য একটা বিরাট ব্যাপার। আমার পরিবারও খুব খুশি হয়েছে। বাংলাদেশের হয়ে লাস ভেগাসে যেতে পারলে সেটা হবে আমার জীবনের অন্যতম বড় একটি অর্জন।’

পরে চূড়ান্ত পর্বে বিচারক শহিদুল আলম সাচ্চু, বরেণ্য আবৃত্তিকার শিমুল মুস্তফা, নারী উদ্যোক্তা সঙ্গীতা খান, বিউটি এক্সপার্ট সালেহা সরওয়ার, ডারমাটালজিস্ট ডা. তৌহিদা রহমান, ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরামের সভাপতি মুনা চৌধুরী, সান্দ্রা ফুডের চেয়ারম্যান সান্দ্রা ম্যাক্কারছি বেছে নেন সেরা মেধাবী ও সুন্দরীকে। চূড়ান্ত পর্বে ছিল লামিয়া আলমের কোরিওগ্রাফিতে একটি ফ্যাশন শো। জেকে, আঞ্জারা, স্প্লাশ, সাদাকালোর বর্ণিল পোশাকে টপ টেন প্রতিযোগীদের ড্যান্স কোরিওগ্রাফি পরিচালনা করেন নৃত্যশিল্পী এমডি ফারুক।

ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরামের পরিবেশনায় নৃত্য পরিবেশন করেন সোহেল রহমান, সিনথিয়া, আসিফ, হক বারিশ, নামিরা প্রমুখ। এ ছাড়া সংগীত পরিবেশন করে ব্যাক স্টেজ ব্যান্ড।

প্রতিযোগিতার অডিশন, গ্রুমিং এবং মোটিভেশনাল সেশনে বিচারক এবং মেন্টর ছিলেন অভিনেতা শহীদুল আলম সাচ্চু, বিউটি এক্সপার্ট সালেহা সারোয়ার, সামিনা সারা, মারিয়া মৃত্তিকা, ড. তৌহিদা রহমান, আবৃত্তিকার শিমুল মোস্তফা, গ্রুমিং ইনস্ট্রাক্টর কৃষাণ ভূঁইয়া, ফ্যাশন ডিজাইনার আজহারুল হক আজাদ, নিমা এহসান, পিয়াল হোসেন, অভিনেতা ও মডেল খালেদ হোসেন সুজন, উপস্থাপিকা ইসরাত পায়েল, ইউথ বাংলা কালচারাল ফোরামের সভানেত্রী মুনা চৌধুরী, ড্যান্স ডিরেক্টর এমডি ফারুখ, বিশিষ্ট নারী উদ্যোক্তা আইরিন ইসলাম, অভিনেতা ও উপস্থাপক জুলহাজ জোবাইয়ের, মডেল কোরিওগ্রাফার লামিয়া আলম, মডেল অভিনেতা অন্তু করিম প্রমুখ।

মিসেস বাংলাদেশের আয়োজক অপূর্ব আবদুল লতিফ জানান, বাংলাদেশে সৌন্দর্য ও মেধাভিত্তিক জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক অসংখ্য অনুষ্ঠান এর আগে অনুষ্ঠিত হয়েছে। কিন্তু মেধাবী ও বিবাহিত নারীদের নিয়ে তেমন কিছু হয়নি। নিবন্ধনপ্রক্রিয়া সফল হলে ‘মিসেস বাংলাদেশ’ চ্যাম্পিয়ন মুনজারিন মাহবুব অবণী আগামী ৬ ডিসেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে অনুষ্ঠিতব্য ‘মিসেস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন।

প্রকল্পটির অন্যতম পরিচালক আফসানা হেলালী বলেন, ‘নারীর শক্তি ও নারী জাগরণকে একধাপ এগিয়ে নিতেই আমাদের এ আয়োজন।’ টাইটেল স্পনসর বায়োজিন কসমেসিউটিক্যালসের প্রধান নির্বাহী মোহাম্মদ জাহিদুল হক বলেন, ‘অংশগ্রহণকারী সব নারী ও তাঁদের পরিবারকে সাধুবাদ জানাই। আধুনিক বাংলাদেশ গঠনে মিসেস বাংলাদেশের এ উদ্যোগ ভূমিকা রাখবে বলে আমার বিশ্বাস।’ 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ