পেঁয়াজের বাজারে নোয়াখালী প্রশাসনের ঝটিকা অভিযান ও জরিমানা

October 1, 2019, 11:30 AM, Hits: 186

পেঁয়াজের বাজারে নোয়াখালী প্রশাসনের ঝটিকা অভিযান ও জরিমানা

জাহাঙ্গীর বাবু, হ-বাংলা নিউজ : নোয়াখালী জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধিতে অবৈধ মুনাফাখোরদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ঝটিকা অভিযান চালিয়ে জ‌রিমানা করা হয়েছে।

জেলার উপকন্ঠের  পৌরবাজারের পর নোয়াখালী জেলার ব্যাস্ততম ও আবহমান কাল ধরে প্রসিদ্ধ বানিজ্য কেন্দ্র নোয়াখালীর চৌমুহানী বাজার।সে বাজারেও চলেছে অভিযান। 

ভারতের পেঁয়াজ রফতানীর বন্ধ ঘোষনায় দেশে পেঁয়াজের মজুত থাকা সত্বেও এক শ্রেণীর লোভী ব্যাবসায়ীরা এই কৃত্তিম সংকট সৃষ্টি করে।

জেলা প্রশাসক  তনময় দাস এর তাৎক্ষণিক নির্দেশনায় নোয়াখালী জেলা শহরের পৌর বাজার চৌমুহনী আর্থ বাজারে অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি কারিদের বিরুদ্ধে ৩০ সেপ্টেম্বর রোববার দুপুর ১১ টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালনা করে।

আদালত পরিচালনা করেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ রোকনুজ্জামান খান,  আদালত পরিচালনায় সহযোগিতা করেন জেলা বাজার কর্মকর্তা জিশু বড়ুয়া, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর নোয়াখালী এর সহকারী পরিচালক দেবানন্দ সিনহা এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় সহযোগিতা করেন সহকারী প‌রিচালক আবু সা‌লেহ এর নেতৃ‌ত্বে লক্ষ্মীপুর র‍্যাব ১১ ও সুধারাম মডেল থানা পুলিশ। 

সকাল ১১টায় জেলা শহরের পৌর বাজারে বাজারে অভিযান পরিচালনাকালে দেখা যায় ব্যবসায়ীগণ তাদেরকে পেঁয়াজ বিভিন্ন দামে বিক্রি করছেন মূল্যভে‌দে ৬০ টাকা থেকে ৯০ টাকা পর্যন্ত। 

তবে উপস্থিত লোকজনের কাছে জানা যায় যে, এটা বিক্রি হচ্ছে ৯০ টাকা থেকে ১৩০ টাকা পর্যন্ত । 

দোকানদারগণ মূল্য আরো বেশি বিক্রি করছেন এ সময় অতিরিক্ত মুনাফা মুনাফা করার দায়ে পৌর বাজারের আহমেদ স্টোর‌কে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৩৮ ধারার বিধান মোতাবেক ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং বাজারের সকল দোকানে দোকানের ব্যবসায়ীদেরকে নিয়ে মূল্যবৃদ্ধি না করার বিষয়ে সচেতন করা হয়।

এরপর অভিযান পরিচালনা করা হয় বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী বাজারে। অভিযান পরিচালনাকালে দেখা যায়, বাজারের অধিকাংশ আড়ত ব্যবসায়ী কমিশনে পেঁয়াজ বিক্রি করে থাকেন এবং তাদের অ‌তি‌রিক্ত দা‌মে বিক্রয়ের জন্য ব্যাপারীগণ নির্দেশনা দিয়ে থাকেন । 

এই অবস্থায় অভিযানকারী দল হাতেনাতে আড়ত ব্যবসায়ী ব‌শির উ‌দ্দিন‌কে আটক করে । তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে দেখা যায় তিনি অতিরিক্ত মুনাফা আদায় করার জন্য আরত ব্যবসায়ীদের নির্দেশনা দিয়েছেন এবং তা বিক্রি করছিলেন। এজন্য তাকে কৃষি বিপণন আইন ২০১৮ এর ১৯ ধারায় ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় ।

একই সময় চৌমুহনীর বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কে ডেকে এ বিষয়টি অবগত করা হয় এবং তাকে আদালত থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়, উক্ত রাতের মধ্যেই চৌমুহনীতে ব্যাপারীদের বৈঠক করে পেঁয়াজের সর্বনিম্ন মূল্য নির্ধারণ করার জন্য । 

এরপর বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে সচেতন করার লক্ষ্যে বিভিন্ন নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

তথ্য সুত্রে জেলা প্রশাসন,তারা জানিয়েছে জনস্বার্থে আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে। 

 
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ