জাতিসংঘকে বাংলাদেশের গণহত্যা স্বীকৃতি দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে নির্মূল কমিটি

October 31, 2019, 10:16 AM, Hits: 108

জাতিসংঘকে  বাংলাদেশের  গণহত্যা স্বীকৃতি দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে নির্মূল কমিটি

বাংলাদেশে সংগঠিত একাত্তরের গণহত্যা ও মিয়ানমারে চলমান রোহিঙ্গাদের গণহত্যার স্বীকৃতি ও প্রতিরোধের বিষয়ে একটি আন্তর্জাতিক সম্মেলন ২৫ অক্টোবর সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় স্থায়ী বাংলাদেশ মিশনে অনুষ্ঠিত হয় । সম্মেলনটি নির্মল কমিটির সুইস অধ্যায় দ্বারা এবং কেন্দ্রীয় নির্মল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবিরের সভাপতিত্বে আয়োজিত হয়। মিয়ানমারে রোহিঙ্গা গণহত্যা তদন্তের জন্য নাগরিক কমিশনের সদস্য সচিব বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেছেন।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন সুইস নির্মল কমিটির সভাপতি জনাব রহমান খলিলুর এবং তার পরে অতিথি বক্তা মিসেস নিকোলা স্প্যাফোর্ড ফুয়ের, ভাইস প্রেসিডেন্ট, আর্থ ফোকাস ফাউন্ডেশন, জেনেভা, সুইজারল্যান্ড, ডঃ লখুমাল লুহানা, সাধারণ সম্পাদক, ওয়ার্ল্ড সিন্ধি কংগ্রেস, যুক্তরাজ্য , মিঃ থমাস হুনেকেকে, মানবাধিকার কর্মকর্তা, এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চল, জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনের হাই কমিশন, জেনেভা, ড। নাসির দष्टी, নির্বাহী রাষ্ট্রপতি, বালুচ মানবাধিকার কাউন্সিল, ইউকে, মিঃ তরুন কান্তি চৌধুরী, সেক্রেটারি, নির্মুল কমিটি, সুইডেন , ডাঃ মনোজ কুরিয়ান, সমন্বয়কারী, ওয়ার্ল্ড কাউন্সিল অফ গীর্জা, জেনেভা, সুইজারল্যান্ড, মিঃ আনসার আহমেদ উল্লাহ, যুক্তরাজ্য, নির্মুল কমিটি, যুক্তরাজ্য, লেখক ও ইতিহাসবিদ জনাব প্রিয়জিৎ দেবারকর, ভারত, মিঃ মুনির মেনগাল, , সভাপতি, বালুচ ভয়েস, জেনেভা, সুইজারল্যান্ড, মিঃ বিকাশ চৌধুরী বড়ুয়া, ভাইস প্রেসিডেন্ট, ইউরোপীয় বাংলাদেশ ফোরাম, নেদারল্যান্ডস, ইউএন-তে র‌্যাডিএইচও প্রোগ্রাম ম্যানেজার, ইন্টারফেইথ ইনস্টিটিউশনের সাধারণ সম্পাদক, ব্যারিস্টার মনির জামান শেখ, যুক্তরাজ্য, মিঃ তাজুল ইসলাম, প্রেসিডেন্ট, সুইস আওয়ামী লীগ এবং মিঃ দেবব্রত চা ক্রেবার্টি, কাউন্সেলর, বাংলাদেশ মিশন, জেনেভা।

সম্মেলনটি একটি প্রস্তাব পাস করে । সেই প্রস্তাবে  সম্মেলনের অংশগ্রহণকারীরা, বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, সুইজারল্যান্ড, যুক্তরাজ্য, নেদারল্যান্ডস, সুইডেন, ফ্রান্স, বেলজিয়াম, নরওয়ে এবং ফিনল্যান্ডের রাজনীতিবিদ, বুদ্ধিজীবী, শিক্ষাবিদ ও মানবাধিকারকর্মীরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এবং জাতিসংঘকে  একাত্তরে বাংলাদেশে সংঘটিত গণহত্যা সহ সকল গণহত্যা স্বীকার করার জন্য আহ্বান করেন।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রস্তাবে বলা হয় যে মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের সময়সীমা নির্ধারণকারী একটি বাধ্যতামূলক রেজোলিউশন গ্রহণের জন্য জাতিসংঘকে অবশ্যই ভূমিকা নিতে হবে। বিশ্ব সম্প্রদায় এবং ইউএনএইচসিআরকে মিয়ানমারে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের দ্রুত নিরাপত্তা এবং তাদের নাগরিকত্ব নিশ্চিত করার জন্য দ্রুত পদক্ষেপের জন্য কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানানো হচ্ছে ।

সম্মেলনে উদ্বেগ প্রকাশ করে কেউ কেউ বলেন  যে কিছু উগ্রপন্থী গোষ্ঠী এবং এনজিওরা রোহিঙ্গা তরুণদের শরণার্থী শিবিরগুলিতে উগ্রপন্থী করার চেষ্টা করছে এবং ভবিষ্যতে আঞ্চলিক ও বিশ্বব্যাপী সুরক্ষার জন্য হুমকির কারণ হতে পারে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত অন্যান্য অংশগ্রহণকারীরা হলেন, সুইজারল্যান্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল খান, মিয়া আবুল কালাম, জমাদার নজরুল ইসলাম, উপদেষ্টা, সুইজারল্যান্ড নির্মূল কমিটি, মশিউর রহমান সুমন, মাসুম খান দুলাল, সহ-সভাপতি, সুইজারল্যান্ডের নির্মুল কমিটি, মোহাম্মদ মোজাম্মেল জুয়েল, উপদেষ্টা, সুইজারল্যান্ড আওয়ামীলীগ, বাতিরুল হক সরদার, সভাপতি, বঙ্গবন্ধু লেখক সাংবাদিক  ফোরাম, লন্ডন, রুমী হক, সেক্রেটারি, যুদ্ধাঅপরাধ মঞ্চ, যুক্তরাজ্য এবং অরুণ বড়ুয়া, সুইজারল্যান্ডের সংখ্যালঘু পরিষদের সভাপতি। 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ