জিদানকে ছেড়ে মরিনহোর কাছে যাবেন বেল

November 21, 2019, 2:28 PM, Hits: 99

জিদানকে ছেড়ে মরিনহোর কাছে যাবেন বেল

হ-বাংলা নিউজ : ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর উত্তরসূরি হওয়ার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু রোনালদো চলে যাওয়ার পরও রাজত্ব বুঝে নেওয়ার ইচ্ছে দেখা যায়নি গ্যারেথ বেলের মাঝে। উল্টো দুদিন পর পর ক্লাব ছাড়ার গুঞ্জন শোনা যায়। তবে এবার হয়তো সত্যিকারেই রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়ার সময় এসেছে বেলের। সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ সভাপতিই বলছেন, খুব বেশি দিন স্পেনে থাকা হচ্ছে না ওয়েলশ ফরোয়ার্ডের।

ক্লাবের হয়ে গত কিছুদিন ধরেই মাঠে দেখা যাচ্ছে না বেলকে। চোটের কারণে খেলছেন না তিনি। কিন্তু ঠিকই ওয়েলশের হয়ে দুটি ম্যাচ খেলেছেন এ সপ্তাহে। এর মাঝে শেষ ম্যাচে জয় দিয়ে ইউরো নিশ্চিত করেছে তাঁর দেশ। ম্যাচ শেষে তাঁর সতীর্থরা একটি ব্যানার নিয়ে হাজির হয়েছিল—‘ওয়েলশ, গলফ, মাদ্রিদ...গুরুত্বের ধারা।’ সহজ হিসাব বেলের কাছে ওয়েলশ ও গলফ খেলাই বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এ মজাতে বেল নিজেও অংশ নিয়েছেন।

রিয়ালের সাবেক সভাপতি র‍্যামন ক্যালদেরন এ ব্যানার নিয়ে দাঁড়ানোকে বোকামি বলছেন। দ্য অ্যাথলেটিককে বলেছেন, ‘বেলের জন্য এখন রিয়ালে খেলা খুব কঠিন হবে। কারণ ওই ব্যানারের সঙ্গে দাঁড়ানোটা ছেলেমানুষি হয়ে গেছে। সমর্থকেরা খুবই খেপেছে, কারণ ওদের এটা একদম পছন্দ হয়নি। সে দলের হয়ে এ মৌসুমে খুবই কম খেলেছে কিন্তু আন্তর্জাতিক সূচিতে ঠিকই দুটি ম্যাচ খেলেছে। জিদানের জন্যও ব্যাপারটা কঠিন করে তুলেছে। ব্যানার নিয়ে এভাবে ছবি তোলায় জিদান মোটেও খুশি হবে না। বেল নিজের কোনো উপকার করেনি এতে। বরং আগুনে ঘি ঢেলে দিয়েছে। এখন জিদানের পক্ষে কঠিন হবে ওকে একাদশে নেওয়া। এমনকি বেঞ্চে রাখতেও সমস্যা হবে।’

ক্যালদেরনের ধারণা, সামনের জানুয়ারিতেই দল বদলের সম্ভাবনা আছে বেলের। তাঁর সাবেক ক্লাব টটেনহাম মাত্রই নতুন কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে হোসে মরিনহোকে। নতুন করে দল সাজাতে বেলকে প্রয়োজন হতে পারে মরিনহোর। এর আগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে থাকা অবস্থায় বেলকে নেওয়ার সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছিলেন এই কোচ। ক্যালদেরনেরও ধারণা বেলের টটেনহামে যাওয়ার সম্ভাবনা অনেক, ‘ওর চীনে যাওয়ার একটা সম্ভাবনা জেগেছিল। কিন্তু সেখানে তারাই যায় যাদের ক্যারিয়ার শেষ বা অনেক টাকা দরকার। এখনো সর্বোচ্চ পর্যায়ে তিন-চার বছর খেলতে পারবে বেলে। সে কি টটেনহামে মরিনহোর সঙ্গে যোগ দেবে? কেন নয়? মরিনহোর তার ব্যাপারে কী ভাবে সেটার ওপর নির্ভর করছে। তবে আমি নিশ্চিত টটেনহামের ভক্তদের ওর ব্যাপারে অনেক সুখস্মৃতি আছে। বেল যদি ওখানে ফেরে তবে সবার জন্যই ভালো। কারণ ওর চীনে যাওয়াটা খুব করুণাদায়ক হবে।’ 

 
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ