পরের ম্যাচ খেলতে পারলেই খুশি বাংলাদেশের অনেক খেলোয়াড়

January 26, 2020, 12:16 PM, Hits: 249

পরের ম্যাচ খেলতে পারলেই খুশি বাংলাদেশের অনেক খেলোয়াড়

হ-বাংলা নিউজ : পাকিস্তান সফর এখন পর্যন্ত হতাশা উপহার দিয়েছে বাংলাদেশকে। প্রথম ম্যাচে তবু বোলাররা লড়াই করেছেন, ব্যাটসম্যানদের খেলার মাঝে সে ছাপ পাওয়া যায়নি দুই ম্যাচেই। বাংলাদেশ দলের টানা ব্যর্থতার পেছনের কারণ খতিয়ে দেখার চেষ্টা চলছে। বাংলাদেশের ব্যাটিং কোচ নিল ম্যাকেঞ্জির ভাষ্য অনুযায়ী ব্যর্থতার অন্যতম কারণ ক্রিকেটারদের মানসিকতা। অনেকের মাঝেই নাকি উন্নতি করার মানসিকতা দেখেন না দলের ব্যাটিং কোচ।

ব্যক্তিগত কারণে দলের সঙ্গে পাকিস্তানে যাননি ম্যাকেঞ্জি। কিন্তু ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতা টের পেতে দলের সঙ্গে না থাকলেও চলছে। আজ মিরপুরে দলের বর্তমান অবস্থা নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখে পড়েছিলেন ব্যাটিং কোচ। তখনই বললেন দলের অনেক ব্যাটসম্যান নাকি কোনোমতে দলের সঙ্গে টিকে থাকতে পারলেই খুশি হন! পরিস্থিতির উন্নতির জন্য খেলোয়াড়দের মানসিকতার পরিবর্তন দরকার জানিয়েছেন ম্যাকেঞ্জি, ‘নিয়মিত ভালো খেলতে চাইলে আরও ক্ষুধার্ত হতে হবে। অধিকাংশ সময় পরের ম্যাচ খেলতে পারলেই খুশি থাকে এরা। যদি ৪০ বা ৬০ করে তাহলেই হলো। এটা ভুল মানসিকতা। আমি চাই এ খেলোয়াড়েরা বিশ্বের সেরা হোক অথবা অন্তত দলের সেরা ব্যাটসম্যান হোক। আমি এটাই ওদের মাথার মধ্যে ঢোকাতে চাই। আমার মনে হয় একটু হলেও উন্নতি হচ্ছে। কিন্তু ব্যাপারটা এখনো পর্যন্ত কিছুটা হতাশাজনক।’

ব্যাটসম্যানদের মধ্যে উন্নতি আনার জন্য আরেকটু সময় চান ম্যাকেঞ্জি। তিনি চান নতুন খেলোয়াড়দের বাজিয়ে দেখার সময় দেওয়া হোক কোচদের। কিছুদিন পর পর খেলোয়াড়দের বাদ দিয়ে নতুন আরও কয়েকজনকে ডেকে আনার বিরোধী ম্যাকেঞ্জি। এই দক্ষিণ আফ্রিকানের দাবি বাংলাদেশে খুব দ্রুত ছুড়ে ফেলে দেওয়া হয় ক্রিকেটারদের, ‘আমি এখানে আসার পর অনেক খেলোয়াড়কে আনা হয়েছে আবার বাদ দেওয়া হয়েছে। আমার এতটা তাড়াহুড়া পছন্দ নয়। কেউই এসে চমকে দিতে পারছে না। আমাদের নাঈমের মতো কাউকে দরকার। ভারতে একটা আশি রানের ইনিংস খেলেছে। প্রথম দিন ওর মাঝে জড়তা ছিল, তবু চল্লিশের ওপর করেছে। কিন্তু বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের আরেকটু নিয়মিত পারফর্ম করতে হবে।’

ব্যাটসম্যানদের ভালো করার একটা টোটকাও দিয়েছেন ব্যাটিং কোচ, ‘আমি চাই দলকে জেতানোর জন্য ওদের কেউ স্বার্থপর হোক। নিজের জন্য নয়। স্বার্থপর হতে হবে ইনিংস ছুড়ে ফেলে দিয়ে না আসার ক্ষেত্রে। যদি ৮০ করতে পারি, তবে সেটাকে কেন এক শ করব না, বা ১৪০ বা দুই শ বানাব না।’

এসব পরামর্শ নিশ্চয় ব্যাটসম্যানদের আগেই দিয়েছেন ম্যাকেঞ্জি। পাকিস্তান সফরে যদিও এর কোনো বাহ্যিক ফল টের পাওয়া যাচ্ছে না এখনো। 

 
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ