আক্রমণ নয়, রক্ষণই এখন রিয়ালের অস্ত্র

June 27, 2020, 1:03 PM, Hits: 84

 আক্রমণ নয়, রক্ষণই এখন রিয়ালের অস্ত্র

হ-বাংলা নিউজ : ‘আমাদের দর্শন হলো আক্রমণ। রিয়াল মাদ্রিদ সব সময়ই আক্রমণাত্মক দল ছিল।’

কথাটি জিনেদিন জিদানের। নিজের কোচিং মন্ত্র জানাতে গত চার বছরে বেশ অনেকবারই এ কথা শুনিয়েছেন জিদান। রিয়াল মাদ্রিদের ডাগ আউটে নিজের প্রথম পর্বে এটা যে মূলমন্ত্র ছিল, সেটা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। ইউরোপের শীর্ষ লিগে টানা গোল করার রেকর্ড গড়েছিল জিনেদিন জিদান। সেই রিয়ালই এখন ইউরোপের সবচেয়ে ভালো রক্ষণের রেকর্ড গড়ার পণ করেছে!

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর যুগে জিদানের দলের মূল মন্ত্র ছিল প্রতিপক্ষের চেয়ে এক গোল বেশি দেওয়া। কিন্তু নতুন দফায় এসে রোনালদোর মতো এক গোল মেশিন পাচ্ছেন না জিদান। মৌসুমে প্রায় ৫০ গোলের নিশ্চয়তা না থাকায় নতুন করে ভাবতে শুরু করেন এই কোচ। এবং গত মৌসুমে দলের ভগ্নদশা দেখে আগে রক্ষণ, পরে আক্রমণ মন্ত্র নিয়ে মাঠে নামতে শুরু করেছেন। লা লিগায় ৩১ ম্যাচ শেষে তাই দেখা যাচ্ছে, রিয়ালের চেয়ে ভালো রক্ষণ আর কারও নেই!

শুধু লা লিগায় নয়, ইউরোপেই গোল কম খাওয়ায় রিয়ালের সঙ্গে পাল্লা দিচ্ছে মাত্র একটি দল। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে সবচেয়ে দ্রুত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার রেকর্ড গড়া লিভারপুল। দুই দলই ৩১ ম্যাচে ২১ গোল খেয়েছে। এমনকি রক্ষণাত্মক ফুটবলের জন্য পরিচিত অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদও রিয়ালের চেয়ে এক গোল বেশি হজম করেছে। তবে লিভারপুল যেখানে ৭ ম্যাচ আগেই শিরোপা নিশ্চিত করে ফেলছে সেখানে রিয়ালকে মৌসুমের শেষ ম্যাচ পর্যন্তই হয়তো লড়তে হবে শিরোপার জন্য।

এর পেছনে জিদানের কৌশল বদলই ভূমিকা রেখেছে। বেনজেমা ছাড়া গোল করার মতো আর কোনো ভরসা খুঁজে না পাওয়া জিদান আজ সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ‘বর্তমানে একটা দলের রক্ষণ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা ভাগ্যবান, আমাদের কিছু নিবেদিত খেলোয়াড় আছে যারা নিজেদের কাজটা ভালো পারে। আর রক্ষণের কাজটা সবার। আমরা এ ব্যাপারে দলের একতা ও শক্তি দেখাচ্ছি। জেতার জন্য এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ।'

জিদানের দলের এমন রক্ষণে তাঁর গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়ার ভূমিকাও কম নয়। মৌসুমের শুরুতে বেশ কিছু ভুল করে একাদশ থেকেই ছিটকে পড়ার দশা হয়েছি কোর্তোয়ার। কিন্তু ফেরার পর ঠিকই নিজের জাত চিনিয়ে দিয়েছেন। ২৮ ম্যাচে মাত্র ১৮ গোল হজম করে লিগের সেরা গোলরক্ষক হওয়ার দৌড়ে অ্যাটলেটিকোর ইয়ান অবলাকের চেয়েও এগিয়ে আছেন। ২০০৭/০৮ সালে ইকার ক্যাসিয়াসের পর লা লিগার জামোরা ট্রফি জেতা হয়নি রিয়াল গোলরক্ষকের। কোর্তোয়া যদি সেটা এবার নিশ্চিত করতে পারেন, তাহলে রিয়ালও যে শিরোপা উৎসবে মাততে পারবে, এটা অনেকটাই নিশ্চিত।

 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ