জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির উদ্যোগে সেনসাস কার্যক্রম। উৎসবমুখর পরিবেশে শিক্ষার্থীদের মাঝে স্কুল সাপ্লাই বিতরণ

September 10, 2020, 9:27 AM, Hits: 159

জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির উদ্যোগে সেনসাস কার্যক্রম। উৎসবমুখর পরিবেশে শিক্ষার্থীদের মাঝে স্কুল সাপ্লাই বিতরণ

সালাহউদ্দিন আহমেদ, হ-বাংলা নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে : জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি (জেবিএফএস)-এর উদ্যোগে সেনসাস কার্যক্রমে প্রবাসীদের উদ্বুদ্ধকরণ ও নাম অন্তর্ভূক্তি ছাড়াও সংগঠনের পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের মাঝে স্কুল সাপ্লাই বিতরণ করা হয়েছে। গত ৬ সেপ্টেম্বর রোববার বিকেলে স্থানীয় ক্যাপ্টেন টিলি পার্কে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। করোনাভাইরাস পরিস্থিতে দীর্ঘদিন লক ডাউনে থাকার পর ভিন্ন ধর্মী পরিবেশে স্বাস্থ্য সতর্কতার মধ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে শিশু-কিশোর-কিশোরী আর অভিভাবকদের উপস্থিতিতে অনষ্ঠানটি ছিলো উৎসবমুখর। উল্লেখ্য, আগামী ২১ সেপ্টেম্বর থেকে নিউইয়র্ক সিটির স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত রয়েছে। করোনাভাইরাস পরিস্থিতি স্থিতিশীল থাকলে ঐদিন থেকেই স্কুলগুলো খুলবে। অবশ্য স্কুলে শিক্ষার্থীদের পাঠানোর ব্যাপারে অভিভাবকদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা যাচ্ছে। 

অনুষ্ঠানে যুক্তরাষ্ট্রের চলমান সেন্সাস-২০২০ কার্যক্রমে প্রবাসী বাংলাদেশীদের উদ্বুদ্ধকরণ আর অংশগ্রহণ জোরদার করতে কুইন্স সেন্সাস অফিসিয়াল কমিটির মেম্বার ও কমিউনিটি বোর্ড মেম্বার ক্যাবেন প্যারস্টেল এবং ফ্রেন্ডস সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি এবং কমিউনিটি বোর্ড ও কুইন্স সেন্সাস কমিটির মেম্বার মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ারের নেতৃত্বে ভলেন্টিয়ারগণ সংশ্লিস্টদের নাম লিপিবদ্ধ করেন। এসময় সেন্সাস বিষয়েও আগ্রহীদের ধারণা ও প্রশ্নের উত্তর দেয়া হয়। 

অপরদিকে ‘ব্যাক টু স্কুল’ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে প্রবাসী বাংলাদেশী সহ অন্যান্য কমিউনিটির দেড় শতাধিক স্কুল শিক্ষার্থীদের মাঝে স্কুল ব্যাগ, খাতা-পেন্সিল সহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় স্কুল সামগ্রী বিতরণ করা হয়। ফ্রেন্ডস সোসাইটির উপদেষ্টা ও কর্মকর্তাবৃন্দ এসব সামগ্রী শিক্ষার্থীরে হাতে তুলে দেন। এসময় শিক্ষার্থীরা লাইনে দাঁড়িয়ে তাদের উপহার গ্রহন করেন।

অনুষ্ঠানে জেবিএফএস’র প্রধান উপদেষ্টা এবিএম ওসমান গণি, সভাপতি মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আল আমীন রাসেল সহ অন্যান্য কর্মকর্তারা সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন। তারা অতীতের মতো এবারো এই মহামারীর সময়ে ফ্রেন্ডস সোসাইটির কার্যক্রম সফল করায় সকল প্রবাসী বাংলাদেশীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, সকল সুখ-দু:খে ফ্রেন্ডস সোসাইট বাংলাদেশীদের পাশে ছিলো, আগামীতেও পাশে থাকবে। তারা বলেন, ফেন্ডস সোসাইটি প্রবাসী বাংলাদেশীদের সংগঠন। 

ফ্রেন্ডস সোসাইটির কর্মকর্তাদের মধ্যে উপদেষ্টা রেজাউল করীম চৌধুরী, মোহাম্মদ মনির হোসেন, সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম ও শেখ হায়দার আলী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সেবুল মিয়া, রেজাউল আজাদ ভূঁইয়া, ইফজাল আহমেদ চৌধুরী সহ আনোয়ার হোসেন, রিজু মোহাম্মদ প্রমুখ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। 

আরো উল্লেখ্য, জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি করোনায় আক্রান্ত বা ক্ষতিগ্রস্তসহ আনডকুমেনেটেড প্রবাসী বাংলাদেশী সহ দলমত নির্বিশেষে অন্যান্য কমিউনিটির মানুষদের মাঝে সাম্প্রতিককালে কুইন্স বরো অফিসের সহযোগিতায় ‘ফুড ডিষ্ট্রিবিউশন’ ছাড়াও তিন শতাধিক পরিবারের মাঝে পবিত্র রমজান মাসে ‘ফুড ও ইফতারী বক্স’ এবং পবিত্র ঈদুল ফিতরের আগে ‘ঈদ উপহার’ (চাল-ডাল সহ নিত্য প্রয়োজনীয় গ্রোসারী) সামগ্রী বিতড়ণ করে কমিউনিটিতে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে। এছাড়াও অর্ধ শতাধিক পরিবারের বাসা-বাড়িতে গিয়ে হোম ডেলিভারীর মাধ্যমে ‘ঈদ উপহার’ পৌছে দেয়া হয় বলে সংগঠনের সভাপতি ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আল আমীন রাসেল জানান। ফ্রেন্ডস সোসাইটির ‘ফুড বক্স’ বিতরণে বাংলাদেশী-আমেরিকান পুলিশ এসোসিয়েশন (বাপা)-এর কয়েকজন কর্মকর্তা সহযোগিতা করেন। 

মহামারী করোনায় যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বাংলাদেশীদের ‘মাদার সংগঠন’ হিসেবে পরিচিত বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমেদ সহ নিউইয়র্কে আড়াই শতাধিক বাংলাদেশী প্রাণ হারিয়েছেন।

 
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ