যদি সুস্থ থাকতে চান

Displaying 1-20 of 552 results.
দৈহিক শক্তি বাড়ানোর ঘরোয়া কৌশল

দৈহিক শক্তি বাড়ানোর ঘরোয়া কৌশল

বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নারীদের দৈহিক শক্তি যেমন কমতে থাকে তেমনই পুরুষদেরও দৈহিক শক্তি হ্রাস পায়। চল্লিশোর্ধ্ব পুরুষদের মধ্যে অনেকেই নিজের সঙ্গিনীকে শারীরিকভাবে তৃপ্ত করতে পারার অক্ষমতায় ভোগেন।

আধুনিক চিকিৎসাবিজ্ঞানে পুরুষের লুপ্ত দৈহিক শক্তি পুনরুদ্ধারের উপায় হল টেস্টোস্টেরন রিপ্লেসমেন্ট থেরাপি (টিআরটি) নামের হরমোন চিকিৎসা। কিন্তু এই চিকিৎসা যথেষ্ট ব্যয়বহুল। তুলনামূলকভাবে পুরুষের দৈহিক শক্তি অটুট রাখার কিছু সহজ ঘরোয়া কৌশল দিতে পারে আয়ুর্বেদ শাস্ত্র। আয়ুর্বেদিক রিসার্চ অ্যান্ড ট্রিটমেন্ট অ্যাসোসিয়েশন-এর প্রকাশিত একটি গবেষণাপত্রে দেওয়া হয়েছে......

কিডনির সমস্যায় উপকারী কদবেল

কিডনির সমস্যায় উপকারী কদবেল

মৌসুমী ফলগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো কদবেল। টক স্বাদযুক্ত এই ফলটি কিন্তু কম বেশি সকলেরই প্রিয়। এটি সুস্বাদু ভর্তা, শরবত কিংবা চাটনি বানিয়েও খাওয়া যায়। শক্ত খোলসে আবৃত ভিটামিন সি সমৃদ্ধ এই ফলটি পুষ্টিগুণেও অনন্য। কদবেলে খাদ্যশক্তি, খনিজ, আমিষ, শর্করা, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন সি প্রভৃতি নানা উপাদান রয়েছে। এসব উপাদান শুধু শরীরে প্রশান্তি এনে দেয় না, শরীর সুস্থ্য রাখতেও সাহায্য করে। আবার কিডনির সুরক্ষারও কদবেলের জুড়ি মেরা ভার।

কদবেলের আরও নানা গুণ-

পেটের রোগ নিরাময়ে

কদবেলে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, ভিটামিন, লৌহ, পেকটিন প্রভৃতি রয়েছে, যা দীর্ঘস্থায়ী ডায়রিয়া......

কাশি হলেই কফ–সিরাপ নয়

কাশি হলেই কফ–সিরাপ নয়

অনেকেই গলা খুসখুস, কাশিতে ভোগেন। কিন্তু কাশির আছে ভিন্ন ভিন্ন ধরন। কারণও ভিন্ন ভিন্ন। এর জন্য অবশ্যই ভিন্ন ভিন্ন চিকিৎসা। কফ-কাশি হলেই দোকান থেকে কফ-সিরাপ কিনে খাওয়া কোনো সমাধান নয়। এতে যে কেবল বেশি ঘুম পায় তা নয়, বাজারে চলতি কফ-সিরাপগুলো অনেক সময় খিঁচুনি, ঝিমুনি, অস্বাভাবিক হৃৎস্পন্দন, কিডনি ও যকৃতের সমস্যাসহ নানা ক্ষতি করতে পারে।

কাশির সিরাপে হাইড্রোকার্বন থাকে। মূলত বুকব্যথা ও কাশি দমনে এটা ব্যবহৃত হয়। হাইড্রোকার্বন একধরনের নারকোটিকস, যা ক্ষতিকর। এটা ছাড়াও কফ-সিরাপের অনেক উপাদান যেমন: গুয়াইফেনেসিন, সিউডোএফেড্রিন, ডেক্সট্ররমিথোমরফনি ও ট্রাই মিথোপ্রলিপ্রিন......

ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য সকালের নাস্তা কতটা জরুরি?

ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য সকালের নাস্তা কতটা জরুরি?

অনেকে আছেন যারা সকালের নাস্তা ছাড়া দিন শুরুর কথা ভাবতেই পারেন না। অনেকেই আবার নানা অজুহাতে নাস্তা বাদ দেন। সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, সকালের নাস্তা বেশি পরিমাণে ক্যালরি পোড়াতে সাহায্য করে এবং সারাদিন রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। তাই প্রতিদিন সকালে স্বাস্থ্যকর এবং ভারী নাস্তা খেলে মস্তিষ্ক পুরোদিনের জন্য তৈরি হয়ে যায় এবং সারাদিন শক্তি পাওয়া যায়। কিন্তু এখন প্রশ্ন হলো, এ কথা সবার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য কি না? চলুন এবার জেনে নেওয়া এ সম্পর্কে বিশেষজ্ঞরা কী বলছেন...

ডায়েবেটিস রোগীরা কী নাস্তা করবেন?

যে সকালে নাস্তা করে, সে তার স্বাস্থ্যের......

স্বাস্থ্যের যেসব ব্যতিক্রম আপনার অজানা

স্বাস্থ্যের যেসব ব্যতিক্রম আপনার অজানা

স্বাস্থ্যগত কিংবা মানসিক যে কোন সমস্যায় প্রচলিত কিছু বিষয় আমরা মেনে চলি। এগুলো কোন কোন সময় আমরা সঠিক বলে ধরে নেই। অনেক আবার এগুলো মানতেই চাননা। যাই হোক না কেন, এই তথ্যগুলোর মধ্যে কিছু ব্যতিক্রম থাকতে পারে। আপনি হয়ত ভাবতে পারেন, এগুলো সঠিক হবে না। কিন্তু মজার বিষয় হলো, বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এই ব্যতিক্রমগুলো সঠিক হয়ে থাকে। সম্প্রতি গবেষকরা এমন কথাই বলেছেন।

এবার জেনে নিন স্বাস্থ্যের সেসব অজানা ব্যতিক্রম-

হালকা ঘুমের জন্য এক কাপ কফি

ঘুমকে দূর করার জন্য আপনি কফি পান করে থাকেন। কিন্তু ঘুমের জন্য কফি পান বিষয়টি অবাক করারই বটে। কিন্তু এটাই সত্যি। এক কাপ কফি বিকালের......

দ্রুত হাঁটলে কি বুকে চাপ পড়ে?

দ্রুত হাঁটলে কি বুকে চাপ পড়ে?

বয়স ৪০ পেরিয়ে গেছে। মাঝে মাঝে বুকটা বেশ জ্যাম হয়ে ওঠে, বিশেষ করে একটু দ্রুত হাঁটতে গেলে অথবা তাড়াহুড়া করে স্বাভাবিক কাজকর্ম সম্পাদন করতে গেলে কারও কারও হাঁটার সময় বুকে চাপ হয় আবার একটু থেমে গেলে দুয়েক মিনিটের মধ্যে বুকের চাপ কমে গিয়ে স্বাভাবিক হয়ে যায়।

কেউ কেউ একটু ঢেঁকুর তোলার চেষ্টা করেন এবং ঢেঁকুর উঠলে চাপ কমে যায়, তাই এটাকে গ্যাসের লক্ষণ মনে করে গ্যাসের মেডিসিন গ্রহণ করে থাকেন। এ সময় কেউ কেউ আবার দাঁড়িয়ে একটু আড়মোড়া ভাঙার চেষ্টা করেন, তাতেও চাপ কমে যায়। তাই ভাবতে থাকেন এটা তেমন কিছু নয়। কারও কারও বেলায় একটু পরিশ্রম করতে গেলে হার্টবিট বেড়ে যায় বা হার্টের গতি......

সুস্থ জীবনের পথ প্রশস্ত করে লাল শাক

সুস্থ জীবনের পথ প্রশস্ত করে লাল শাক

হ-বাংলা নিউজ:  সারা বছর পাওয়া যায় এমন সবজিগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো লাল শাক। এটি রূপে যেমন মনোহারী গুণেও তেমন কার্যকরী। আবার খেতেও সুস্বাদু। পুষ্টিগুণে ভরপুর লাল শাক কিন্তু রোগ প্রতিরোধের দিক থেকেও অনেক শাকের চেয়ে এগিয়ে। একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, লাল শাকে এমন কিছু উপকারি উপদান রয়েছে, যা ৩০ বছরের পর থেকে শরীরের ভাঙন আটকানোর পাশাপাশি একাধিক রোগকে দূরে রাখতে সাহায্য করে। তাই প্রতিদিন এই শাকটি খাওয়ার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরাও। তারা বলেন, নিয়মিত লাল......

ঈদের পর ফিট থাকতে

ঈদের পর ফিট থাকতে

উৎসব মানেই যেন পেট পুরে খাওয়া। ফিটনেস বা সুঠাম দেহ বলে যে একটা বিষয় আছে, তা আমরা ভুলে যাই। ভুললেই কিন্তু বিপত্তি! শরীর যেন বিগড়ে না যায়, সেদিকে খেয়াল রাখা জরুরি। সুইডেনের চালমার্স স্কুল অব টেকনোলজির বায়ো-ইনফরমেটিক্স ও সিস্টেম বায়োলজির পুষ্টি গবেষক সুমাইয়া পারভীন জানান, যতই নিয়মের মধ্যে থাকি না কেন, উৎসব এলে নিয়মকে একপাশে রেখে খাবার টেবিলে বসে যাই। এ ক্ষেত্রে নিজের যেমন সচেতন থাকা গুরুত্বপূর্ণ, তেমনি পরিবার ও সন্তানদের শরীর-স্বাস্থ্যের দিকে খেয়াল রাখা জরুরি।

সুমাইয়া ঈদের পরের সপ্তাহকে বেশ গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করে বলেন, ঈদের সময় ‘যা পাই তা–ই খাই’ এমনটা অভ্যাস......

ফ্রিজ থাকুক পরিষ্কার ও দুর্গন্ধমুক্ত

ফ্রিজ থাকুক পরিষ্কার ও দুর্গন্ধমুক্ত

পবিত্র ঈদুল আজহার আর মাত্র চারদিন বাকি। এই ঈদে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন পড়বে ফ্রিজের। সাধারণত মাছ, মাংস থেকে শুরু করে তরি-তরকারি, ফলমুল এমনকি রান্না করা খাবারও রাখা হয় ফ্রিজে। এতে অনেক সময় ফ্রিজে দুর্গন্ধ হতে পারে। তাই ঈদের আগে ফ্রিজ ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন। এটিকে এমনভাবে প্রস্তুত করে ফেলুন যাতে ঈদের সময় মাংস রাখতে কোন সমস্যা না হয়। মনে রাখবেন, ফ্রিজ পরিষ্কার করতে গিয়ে আমরা এমন কতগুলো ভুল করে বসি যাতে ফ্রিজের অনেক ক্ষতি হয়।  কাজেই ক্ষতি এড়াতে নিয়ম মেনে ফ্রিজ পরিষ্কার এবং দুর্গন্ধমুক্ত রাখুন।

ফ্রিজ পরিষ্কার এবং দুর্গন্ধমুক্ত রাখবেন যেভাবে-

সুইচ বন্ধ করুন

......

যা খেলে পুরুষের শরীর ঠিক থাকে

যা খেলে পুরুষের শরীর ঠিক থাকে

বয়স লুকাতে চান? সুস্থ থাকতে ও তারুণ্য ধরে রাখতে কিছু খাবার পুরুষের জন্য অতি প্রয়োজনীয়। নিয়মিত এসব খাবার খেলে সহজে বয়সের ছাপ পড়ে না। বয়স বাড়তে শুরু করলে শরীরে তার চিহ্ন ফুটতে শুরু করে। শুধু বয়সের ছাপ নয়, শরীর দুর্বলবোধ হতে থাকে। যাঁরা বংশগতভাবে ভাগ্যবান বা যাঁরা স্বাস্থ্যকর জীবন যাপন করেন, তাঁদের ক্ষেত্রে সহজে বয়স বোঝা যায় না। বয়স চল্লিশের কোঠায় যাওয়ার পর থেকে মেটাবলিজমের হার কমতে থাকে। তাই এ সময় শরীর ঠিক রাখতে খাবার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। যদিও দেহঘড়ির চলার পথ আটকানো কঠিন, তারপরও কিছু খাবারের কারণে বয়সের ছাপ পড়ার হার ঠেকিয়ে রাখা যায়। ভারতের পুষ্টিবিদ শিল্পা......

লবঙ্গের সঙ্গে বন্ধুত্বের যত উপকারিতা...

লবঙ্গের সঙ্গে বন্ধুত্বের যত উপকারিতা...

বাঙালি বাড়িতে একটু জমিয়ে রান্না হবে আর তাতে গরম মশলা জায়গা পাবে না, তা আবার হয় নাকি! আসলে শুধু বাঙালি হেঁসেলে নয়, যে কোনও ধরনের রান্নাতেই গরম মশলার ব্যবহার হয়ে থাকে। আচ্ছা, রান্নায় কেন বলুন তো গরম মশলা ব্যবহার করা হয়, শুধুই কি সুগন্ধের জন্য?

তা কিন্তু নয়! গরম মশলার মধ্যে থাকা প্রতিটি উপাদানেরই আলাদা আলাদা উপকারিতা রয়েছে। আর ঠিক এই কারণেই আজকের এই প্রবন্ধে আলোচনা করা হবে লবঙ্গকে নিয়ে। সেই প্রাচীনকাল থেকে এশিয়া মহাদেশের অন্তর্গত প্রতিটি দেশে লবঙ্গের ব্যবহার হয়ে আসছে। আবার লবঙ্গ উৎপাদনে সুবিখ্যাত মালুকু দ্বীপ কার দখলে থাকবে সেই নিয়ে বহু যুদ্ধের সাক্ষী হয়ে রয়েছে......

স্তন্যপান করানো মায়ের জন্য বিশেষ উপকারি যেসব খাবার

স্তন্যপান করানো মায়ের জন্য বিশেষ উপকারি যেসব খাবার

হ-বাংলা নিউজ: মাতৃত্বকালীন সময়ে অনেক নারী দুর্বল হয়ে যান। হরমোনের পরিবর্তন তার একটা বড় কারণ।তাছাড়াও রাতে ঠিকমতো ঘুম না হওয়া, বারবার বাচ্চাকে দুধ খাওয়ানো, এসবের কারণেও মায়েরা ক্লান্তি অনুভব করেন। তা সত্ত্বেও চিকিৎসকরা, স্তন্যপান করানোর পরামর্শ দিচ্ছে সদ্য সন্তান প্রসব করা মায়েদের।

এমন কিছু খাবার আছে যা  ব্রেস্ট ফিডিং করাচ্ছেন মায়েদের জন্য উপকারি। নিচে রইলো সেসব খাবারের তালিকা-

১। মেথি-

পরীক্ষা বলছে, মেথির বীজে রয়েছে গ্যাল্যাকটোগোগেস। এই রাসায়নিক উপাদান......

পুষ্টি উপাদানের ‘পাওয়ার হাউজ’ মিষ্টি কুমড়া

পুষ্টি উপাদানের ‘পাওয়ার হাউজ’ মিষ্টি কুমড়া

সারাবছরই পাওয়া যায় এমন সহজলভ্য সবজিগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো মিষ্টি কুমড়া। স্বাদের কারণে দেখতে সুন্দর কাঁচা-পাকা এই সবজিটি কিন্তু অনেকেই খেতে পছন্দ করেন।  শুধু স্বাদ নয়, পুষ্টিগুণেও কিন্তু মিষ্টি কুমড়ার জুরি মেলা ভার। এতে ভিটামিন এ, বি-কমপ্লেক্স, সি এবং ই, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ক্যালসিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, আয়রন, জিঙ্ক, ফসফরাস, কপার, ক্যারটিনয়েড প্রভৃতি নানা গুরুত্বপূর্ণ উপাদান রয়েছে, যা আমাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় অনেক উপকারী। প্রাকৃতিক পুষ্টি উপাদানের ‘পাওয়ার হাউজ’ বলা হয় মিষ্টি কুমড়াকে। আবার বিশেষজ্ঞরাও একে ‘সুপারফুড’ আখ্যায়িত করে বলেছেন, নিয়মিত খাদ্য তালিকায়......

যেসব খাবার ফ্রিজে রাখা ঠিক নয়

যেসব খাবার ফ্রিজে রাখা ঠিক নয়

 এখনকার দিনে বাড়িতে ফ্রিজ বা রেফ্রিজারেটর অনেকে জরুরি বলে মনে করেন। এতে অনেক খাবার সংরক্ষণ করা যায়। কিন্তু রেফ্রিজারেটরে সব খাবার রাখা যায় না। পরিচিত খাবারের মধ্যে কিছু খাবার রেফ্রিজারেটরে রাখলে তার স্বাদ ও গন্ধ বদলে যায়। কমে যায় পুষ্টিমান। কয়েকটি পরিচিত খাবার আছে, যা ফ্রিজে না রাখাই ভালো: টমেটো: অনেকে টমেটো কিনে ফ্রিজে রেখে দেন। এতে টমেটো নিস্তেজ ও ময়দার তালের মতো তুলতুলে হয়ে যায়। একটা খোলা কনটেইনারে টমেটো ভরে জানালার পাশে রাখতে পারেন। এতে টমেটো সতেজ ও টুসটুসে থাকবে। আলু: আলু যে ফ্রিজে রাখতে নেই—এ কথা অনেকেরই জানা। 


ফ্রিজে রাখলে আলুর শর্করার গুণাগুণ নষ্ট......

ফলের খোসায় রোগ নিরাময়

ফলের খোসায় রোগ নিরাময়

আমরা সবসময় অনেক ফল-ফলাদির খোসা উচ্ছিষ্ট হিসাবে ফেলে দেই। অথচ আশ্চর্য এসবের উপকারিতা সম্পর্কে জানলে অনেকেই আমরা ফলের খোসাসহ নানা খাবারের নানা উচ্ছিষ্ট ফেলে দিতাম না। এখানে ফলের খোসা ও অন্য উপাদানের নানা গুণ তুলে ধরা হলো:

১. তরমুজের খোসা শারীরিক ক্ষমতা (সেক্স বুস্টার) বাড়ায় এমনি একটি সুখবর দিয়েছে টেক্সাস এ এন্ড এম বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা। তরমুজের খোসায় রয়েছে সাইট্রুলিন নামক যৌগ যা সেক্স বুস্টার হিসাবে কাজ করে। ২. কলার খোসা সম্পর্কে ২০১৩ সালের এক গবেষণায় বলা হয়েছে বিশ্বব্যাপী বছরে ৪০ মিলিয়ন টন কলার খোসা ফেলে দেয়া হয়। অথচ এসবের রয়েছে ওন্ড বা জসম হিলিং-এর উপাদান।......

ঝাল খাওয়া কি খারাপ?

ঝাল খাওয়া কি খারাপ?

হৃদ্‌রোগীদের সাধারণভাবে বলা হয় ঝাল মসলাযুক্ত খাবার কম খেতে। আসলেই কি মসলা বা ঝাল তাদের জন্য খারাপ? তেল–চর্বিযুক্ত খাবার বা রিচ ফুড খারাপ তো বটেই। কেননা, এগুলো রক্তে কোলেস্টেরল বাড়ায়, যা রক্তনালিতে ব্লক বা বাধা তৈরি করে। কিন্তু ঝাল তো আর চর্বি বা তেল নয়। ২০১৫ সালে হার্ভার্ড, অক্সফোর্ড ও পিকিং বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক একটি গবেষণায় দেখান যে যাঁরা মোটেও ঝাল খান না, তাঁদের তুলনায় যাঁরা প্রতিদিন বা সপ্তাহে অন্তত দুই দিন ঝাল খান, তাঁদের হৃদ্‌রোগ, ফুসফুস ও ক্যানসারজনিত রোগে মৃত্যুহার কম।

ঝালের মূল উপাদান হলো ক্যাপসেইসিন। এর নানামুখী উপকারিতা আছে। যেমন-

এক. এটি পরিপাকতন্ত্রে......

সকালের নাস্তায় ৭টি স্বাস্থ্যকর খাবার

সকালের নাস্তায় ৭টি স্বাস্থ্যকর খাবার

হ-বাংলা নিউজ: সকালের নাস্তা আমাদের শরীরের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এটি সারা দিন আমাদেরকে প্রাণবন্ত ও সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, সকালের নাস্তা বেশি পরিমাণে ক্যালরি পোড়াতে সাহায্য করে এবং সারাদিন ধরে রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণেও সাহায্য করে। তাই প্রতিদিন সকালে স্বাস্থ্যকর এবং ভারী নাস্তা খেলে মস্তিষ্ক পুরোদিনের জন্য তৈরি হয়ে যায় এবং সারাদিন শক্তি পাওয়া যায়। কিন্তু সব ভারী খাবারই স্বাস্থ্যকর নয়। তাই আমাদের জানতে হবে সকালের নাস্তায় কোন খাবারগুলো......

কেচাপ শিশুদের জন্য কেন স্বাস্থ্যকর নয়?

কেচাপ শিশুদের জন্য কেন স্বাস্থ্যকর নয়?

খাবারের স্বাদ বাড়াতে কেচাপের জুড়ি মেলা ভার। টোস্ট, রুটি, স্যালাড, ফ্রাই, বার্গার প্রভৃতি খাবারগুলো আমরা কেচাপ ছাড়া খাওয়ার কথা ভাবতেই পারিনা। কিন্তু কখনও ভেবে দেখেছেন কি, কেচাপ স্বাস্থ্যকর নাকি অস্বাস্থ্যকর? আমাদের মধ্যে অনেকেই ভাবেন, কেচাপ ক্ষতিকর নয়। কারণ এর মূল উপকরণ তো টমেটো। এতে এমন সব উপাদান বিদ্যমান আছে, যা আমাদের শরীরের জন্য অনেক উপকারী। সমস্যাটা আসলে এখানেই। শিশুদের বেশি করে কেচাপ খাওয়ানো কিন্তু মোটেই স্বাস্থ্যকর নয়। কেননা তারা অনেক দিন ধরে নিয়মিত এই কেচাপ খেতে থাকলে তা শিশুদের নানা স্বাস্থ্য সমস্যার সৃষ্টি করে।

এবার জেনে নিন কেচাপ শিশুদের জন্য কেন......

না ছাড়লে প্রেসার বাড়বে!

না ছাড়লে প্রেসার বাড়বে!

"স্মোকিং ইজ ইনজুরিয়াস টু হেল্থ"। তো! একথা নতুন কী যে ধূমপান না ছাড়লে মরতে হবে। ঠিক বলেছেন, এর মধ্যে কোনও নতুন কথা নেই। কিন্তু মৃত্যুটা যে কতটা ভয়ানক হতে পারে তা একটি পরীক্ষায় জানা গেছে। এতদিন সবাই জানতেন যে ধূমপান করলে ক্যান্সার হওয়ার আশঙ্কা বাড়ে। কিন্তু সম্প্রতি একটি গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিত ধূমপানের অভ্যাস থাকলে হতে পারে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা, আর তা থেকে আশঙ্কা বাড়ে হার্ট অ্যাটাক বা স্ট্রোকের।

গবেষণা কী বলছে:

দীর্ঘ কয়েক বছরে ধরে সংগ্রহ করা ডেটা বিশ্লেষণ করার সময় চিকৎসকেরা লক্ষ করেছিলেন রোজ একটা করেও সিগারেট খেলেও উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা......

ঝেড়ে ফেলুন হতাশা

ঝেড়ে ফেলুন হতাশা

মানসিকরোগ-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনে বেশ কয়েকটি গবেষণার ফলাফল থেকে জানানো হয়, ‘দেখা গেছে কোনো বিষয় নিয়ে আমরা যতটা না মানসিক চাপের মধ্যে রয়েছি তার থেকেও বেশি চিন্তিত থাকি কীভাবে মানসিক চাপ দূর করা যায়- সেটা নিয়ে।’

প্রতিবেদনে আরও উল্লেখ করা হয়, যারা অতিরিক্ত মানসিক চাপের মধ্য দিয়ে যান তাদের হৃদ-স্পন্দনের পরিমাণ তুলনামূলক কম থাকে। ফলে হৃদরোগের ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়।

তাই মানসিক চাপ কমানোর জন্য চেষ্টা করতে হবে। আর সেজন্য রয়েছে বেশ কিছু সহজ কিন্তু কার্যকর পন্থা।

মেডিটেশন বা ধ্যান: মানসিক চাপ কমাতে অত্যন্ত কার্যকর ও পুরাতন উপায়। এটি মনের নেতিবাচক চিন্তা দূর......

সর্বাধিক পঠিত